ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / হাজীগঞ্জ-কচুয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের ১ কিলোমিটার সড়ক অচল
হাজীগঞ্জ-কচুয়া সড়কের মডেল কলেজ রোড পর্যন্ত এক কিলো সড়কের বেহাল চিত্র।

হাজীগঞ্জ-কচুয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের ১ কিলোমিটার সড়ক অচল

আঞ্চলিক মহাসড়কের প্রায় ১ কিলোমিটারেই খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।  প্রতিদিনই সড়কের কোথাও না কোথাও দুর্ঘটনা ঘটছে।  অসংখ্য খানাখন্দের কারণে আঞ্চলিক এই মহাসড়কে যানজটও সৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে মহাসড়ক দিয়ে যাতায়াতকারী সাধারণ মানুষ চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।

গত কয়েক বছর ধরে মাত্র এক কিলোমিটার ছোট থেকে বড় বড় গর্তের কারনে হাজীগঞ্জ-কচুয়া মহাসড়কটি অচল হওয়ার পথে। বর্তমানে সড়কটির শুরুতে হাজীগঞ্জ বিশ্বরোডের মূখ থেকে কচুয়া সড়কের মডেল কলেজ রোডের মাথায় ব্রিজ পর্যন্ত এক কিলো. সড়ক যেন পুকুরে পরিনত হয়েছে।

পাশ দিয়ে যাওয়ার মত কোন যানবাহন চলাচলের উপযোগি পরিস্থিতি নেই বললেই চলে। হাজীগঞ্জ পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড বাসিন্দারা এ পথ দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে প্রতিনিয়ত দূর্ভোগের কবলে পড়তে দেখা যায়।

জানা যায়, গত ৮ বছর পূর্বে এ সড়কটি বাইপাশ সড়ক হিসেবে চিটাগাং টু ঢাকা যানবাহন চলাচল শুরু হয়। এতে হাজীগঞ্জ টু কচুয়া অংশের কাজ পায় শাকিল এন্টারপ্রাইজ। কাজের গুনগত মান নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও এর কোন বিধি ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি বলে জানাগেছে। সেই থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত সড়কটির কাজ সংস্কার হয়েছে গত ৩ বছর পূর্বে। নাম মাত্র সংস্কার করা হলেও সড়কটির সমান্তরাল কাজের তেমন কোন পরিবর্তন দেখা যায়নি। যে কারনে সংস্কারের ৬ মাসের মাথায় শুরু হয় ছোট ছোট গর্ত। বর্তমানে এসব ছোট গর্তগুলো হাজীগঞ্জ মডেল কলেজ থেকে বিশ্বরোডের মাথা পর্যন্ত পুকুরে পরিনত হয়েছে। এসব অনিয়ম যেন দেখার কেউ নেই।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, হাজীগঞ্জ-কচুয়া সড়কটির কিছু কিছু অংশ পিচ উঠে বালির সাথে লেগে গেছে। সড়কটির মাঝ পথে ফেটে গেছে। যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে যেন পাহাড়ের উপরে উঠছে আর নামছে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে পৌর এলাকার বিশ্বরোডের মূখ থেকে কচুয়া অংশের এক কিলো দিয়ে যানবাহন চলাচল দূরের কথা একজন মানুষ হেটে চলাচল করা সম্ভব নয়।

এমন পরিশ্চিতিতে গত কয়েক বছর ধরে দূর্ভোগে চলাচল করতে হচ্ছে বলে জানান যানবাহনের চালক ও স্থানীয় পথচারীরা।
সড়কের কয়েকজন যানবাহনের চালকের সাথে কথা বলিলে তারা অভিযোগ করে বলেন, সড়কটি গত ৩ বছর ধরে দেখছি এমন বড় বড় গর্তে পড়ে আছে।কোন দিন সড়ক বিভাগের লোকজনকে গাড়ী দিয়ে ইট পালাতে দেখলাম না। যানবাহন চলাচলে পুরোই অনুপযোগী, তাই আমরা কচুয়া থেকে হাজীগঞ্জ বাজারে আসলে মডেল কলেজের চলাচলরত ষ্টেশন রোড দিয়ে বাজারে প্রবেশ করি।

চাঁদপুর সড়ক বিভাগের জনৈক কর্মকর্তা বলেন, হাইওয়ে সড়ক স্থানীয় এমপি মহোদয়ের সুপারিশক্রমে টেন্ডার প্রক্রিয়া চলমান থাকে। এ সড়কের জন্য এখন পর্যন্ত এমন কোন টেন্ডার পাশ হতে দেখিনি।

এখানকার স্থানীয় বাসিন্ধাদের দাবি, অচিরেই যেন আমাদের এমপি মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি মহোদয় সড়কটি সংস্কারে সু-দৃষ্টি দিবেন।

প্রতিবেদন: জহিরুল ইসলাম জয়

Facebook Comments

Check Also

ফরিদগঞ্জে নিখোঁজের ৪দিন পর মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

এস.এম ইকবাল : ফরিদগঞ্জে নিখোঁজ হওয়ার ৪দিন পর নুরুল হুদা (৬০) নামে এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির …

vv