ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / হাজীগঞ্জে দু’গ্রামে অগ্নিকান্ডে ১০ পরিবার নিঃস্ব, প্রায় কোটি টাকা ক্ষয়ক্ষতি

হাজীগঞ্জে দু’গ্রামে অগ্নিকান্ডে ১০ পরিবার নিঃস্ব, প্রায় কোটি টাকা ক্ষয়ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টার : হাজীগঞ্জের দু’টি গ্রামের বৈদ্যুতিক শর্ট-সার্কিটের আগুনে নি:স্ব হয়েছে ১০টি পরিবার। শনিবার সকালে চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের হাজীগঞ্জ উপজেলার সীমন্তাবর্তী দেবপুর গ্রামের বেপারী বাড়ীতে ও দুপুর দেড় টায় উপজেলার ১নং রাজারগাঁও ইউনিয়নের মুকুন্দসার গ্রামের সূত্রধর বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

দু’গ্রামের আগুনে ১০টি বসতঘরসহ ২০টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর পরনের কাপড় ছাড়া সব পুড়ে কয়লা হয়ে যায়।

দেবপুর বেপারী বাড়ির সুলতান বেপারীর ছেলে জামাল হোসেন, আবুল কালাম, কামাল হোসেন, কালু বেপারীর ছেলে বিল্লাল হোসেন ও আউয়াল বেপারী এবং সাত্তার বেপারীর ছেলে ইমান হোসেন। আগুনে বসতঘর, রান্নাঘর, আসবাবপত্রসহ প্রায় ৩৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ক্ষতিগ্রস্ত জামাল হোসেনের বসতঘর থেকে আগুন সূত্রপাত ঘটে। মূহুত্বে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় বাড়ীর লোকজন ও স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা করে। কিন্তু আগুনের লেলীহান শিখার তীব্রতায় কেউ ধারে কাছেও যেতে পারেনি।

খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দকমল কর্মীরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় দেড় ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষনে পাঁচটি বসতঘর, ৫টি রান্নাঘর এবং ঘরে থাকা, টিভি, ফ্রিজ, আসবাবপত্র, তৈজসপত্র, প্রয়োজনী কাগজপত্র, স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ সব কিছু পূড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে করে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর পরনের কাপড় ছাড়া আর কিছুই রইলো না।

এ দিকে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান প্রাথমিকভাবে ১৫ লাখ টাকা নির্ধারণ করা হলেও, আগুনে প্রায় ৩৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্তরা। এবং ক্ষতিগ্রস্ত জামাল হোসেনের বসতঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে তারা নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে মুকুন্দসার সূত্রধর বাড়ির বাসান চন্দ্র সূত্রধর, পরিতোষ চন্দ্র সূত্রধর, অমূল্য চন্দ্র সূত্রধর, অমল চন্দ্র সূত্রধর ও উত্তম চন্দ্র সূত্রধরের বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। অগ্নিকান্ডে বসতঘর ছাড়াও ৫টি রান্নাঘর, ১টি গোয়ালঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। এতে করে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর পরনের কাপড় ছাড়া তারা আর কিছুই বসতঘর থেকে বের করে আনতে পারেনি।

আগুন লাগার পর পরই স্থানীয় লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করেন। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দকমল কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসেন। এই অগ্নিকান্ডে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

ফলে এ দু’টি অগ্নিকান্ডের ঘটনা কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে এমনটি ধারনা করছেন স্থানীয়রা।

Facebook Comments

Check Also

মতলব দক্ষিণে পৃথক অগ্নিকান্ডে ৪ বসতঘর পুড়ে ছাই

মোজাম্মেল প্রধান হাসিব : চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় পৃথক অগ্নিকান্ডে ৪ বসতঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। …

vv