ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / হাইমচর-চাঁদপুর সড়কে ৫০ টাকা ভাড়া পুনঃনির্ধারণ

হাইমচর-চাঁদপুর সড়কে ৫০ টাকা ভাড়া পুনঃনির্ধারণ

হাইমচরে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে সিএনজি স্কুটার ভাড়া নৈরাজ্যের অবসান

হাইমচরের আলগীবাজার থেকে চাঁদপুর পর্যন্ত সিএনজি স্কুটার ভাড়া নিয়ে যে চরম নৈরাজ্য চলছিলো, অবশেষে তার অবসান হলো। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও হাইমচর থানার অফিসার ইনচার্জের হস্তক্ষেপে এর অবসান হয়। তাঁরা উদ্যোগী হয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে বসে এ রূটে ভাড়া ৫০ টাকা পুনঃনির্ধারণ করেন।

আলগীবাজার সিএনজি স্কুটার স্ট্যান্ডে যাত্রী প্রতি ১৫০/২০০ টাকা ভাড়া নিচ্ছে সিএনজি স্কুটার চালকরা, যাত্রীদের কাছ থেকে এ ধরনের অভিযোগ পেয়ে গতকাল ২ জুলাই হাইমচর থানার অফিসার ইনচার্জ রনোজিত রায় স্ট্যান্ডে গিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্তি ভাড়া আদায়ের সত্যতা পেয়ে অভিযুক্ত সিএনজি স্কুটারগুলো আটক করেন। সংবাদ পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারী ঘটনাস্থলে এসে সিএনজি স্কুটার চালক, যাত্রী, লাইনম্যান ও স্ট্যান্ড কমিটিকে নিয়ে আলোচনায় বসেন। এরপর সর্বসম্মতভাবে চাঁদপুর-হাইমচর রূটে ভাড়া ৫০ টাকা পুনঃনির্ধারণ করা হয়। এ সময় সিএনজি স্কুটার চালক ও যাত্রীদের উদ্দেশ্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারী বলেন, আলগী বাজার-চাঁদপুর রূটে ইতিপূর্বে ৫০ টাকা ভাড়া ছিল। মেইন সড়ক সম্প্রসারণের কাজ চলাকালীন ভিন্ন রাস্তা দিয়ে ঘুরে যাওয়ার কারণে ৫০ টাকার পরিবর্তে চালকরা ৬০ টাকা করে ভাড়া নেয়া শুরু করে। রাস্তার কাজ শেষ হলেও অতিরিক্ত ১০ টাকা ভাড়া আজও কমেনি। বার বার তাগিদ দেয়ার পরও সিএনজি স্কুটার চালকরা প্রশাসনের কথা আমলে নেয়নি। তাই চালক ও যাত্রীদের কথা বিবেচনা করে আমরা আজ পূর্ব নির্ধারিত ভাড়া নেয়ার জন্যে সর্বশেষ সিদ্ধান্ত দিলাম।

থানার অফিসার ইনচার্জ রনোজিত রায় বলেন, আমরা ঈদ উপলক্ষে স্ট্যান্ড কমিটিকে ৭০ টাকার বেশি ভাড়া না নেয়ার জন্যে তাদের প্রতি অনুরোধ করেছিলাম। কিন্তু ঈদে সিএনজি স্কুটার চালকরা যাত্রীদের জিম্মি করে ২শ’ টাকা করে ভাড়া আদায় করেছে। ঈদ ছুটি শেষ হলেও আজ ২ জুলাইও যাত্রীদের কাছ থেকে ১৫০/২০০ টাকা হারে নেয়া হচ্ছে। তাই আমি ফোর্স নিয়ে এসে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। নির্ধারিত ভাড়ার বেশি নেয়ার কোনো অভিযোগ পেলে তাৎক্ষণিক সেই সিএনজি স্কুটার চালকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রশাসনের হস্তক্ষেপে সিএনজি স্কুটার ভাড়া নিয়ন্ত্রণে আসায় যাত্রীরা ধন্যবাদ জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসনকে। আজকের (গতকালের) মতো প্রতিদিন একজন করে দারোগা সিএনজি স্কুটার স্ট্যান্ডে উপস্থিত থেকে মনিটরিং করলে যাত্রীদের বিরাট উপকার হবে বলে যাত্রীরা দাবি জানান।

প্রতিবেদন: সাইদ হোসেন অপু

Facebook Comments

Check Also

হাইমচরে দেশীয় অস্ত্রসহ ৬ ডাকাতকে আটক করেছে নৌ-পুলিশ

মোঃ সাজ্জাদ হোসেন রনি, হাইমচর : চাঁদপুর জেলার হাইমচর উপজেলায় নীলকমল নৌ-পুলিশের ইনচার্জ আবদুল জলিলের …

vv