ব্রেকিং নিউজঃ
Home / সমস্যা-সম্ভাবনা / হাইমচরে ড্রেজারে মাটি-বালু উত্তোলনে হারিয়ে যাচ্ছে কৃষি জমি

হাইমচরে ড্রেজারে মাটি-বালু উত্তোলনে হারিয়ে যাচ্ছে কৃষি জমি

মো. সাজ্জাদ হোসেন রনি, হাইমচর : চাঁদপুর হাইমচর উপজেলায় কৃষি জমি থেকে অবৈধভাবে মাটি ও বালি উত্তোলন করে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে।

আজ মঙ্গলবার হাইমচর উপজেলায় প্রতিটি ইউনিয়নে আনাচে কানাচে কৃষিজমিতে কিংবা পুকুরে নিয়মনীতি না জেনে ড্রেজার বসিয়ে মাটি উত্তোলন করে আসছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চাঁদপুর সদর হাইমচর সীমান্তবর্তী এলাকায় বাংলাবাজারের কৃষি জমিতে মোঃ শুনু গাজীর ড্রেজার,হাইমচর উওর আলগী ইউনিয়নে ২নং ওয়ার্ড আওয়ামীলেগ নেতা শাহজাহান ভূইয়ার বাড়ির সামনের কৃষি জমিতে মোঃ নজরুল গাজীর ড্রেজার,৪নংওয়ার্ড চৌধুরী বাজার পূর্ব পাশে জাকির ছৈয়ালের কৃষি জমিতে মোঃ মোস্তফা গাজির ড্রেজার, গাজীর বাজার থেকে সামনে এগিয়ে দঃ পাশে মাসুম খার পুকুরে মোঃ আবু তাহের মিজির ড্রেজার, আনন্দ বাজারে দক্ষিনে গিয়ে ডা.সুমনের কৃষি জমিতে মোঃ মিজান গাজীর ড্রেজার, হাইমচর উপজেলা ৬নং চরভৈরবী ইউনিয়নে আমতলী বাজারে নিকট নদীর সংযোগস্থল সরকারী খালের উপর মোঃ বিল্লাল জমদ্দারের ড্রেজার,৩নং দঃ আলগী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে সাইফুল ইসলাম বেপারীর কৃষি জমিতে মোঃ নেছারের ড্রেজার, ৪নং নীলকমল ইউনিয়ন ও ঈশান বালার চর সহ হাইমচর উপজেলা ৬টি ইউনিয়নে প্রতিটি ওয়ার্ডের আনাচে কানচে কৃষিজমিতে অবৈধ ভাবে ড্রেজার বসিয়ে মাটি উত্তোলন করে আসছে কিছু অসাধু ড্রেজার মলিকরা।

ইউপি সদস্য মোঃ মজিব কবিরাজ, মানিক পাটওয়ারী, জুয়েল পাটওয়ারী, মাসুদ খান, জাকির ছৈয়াল, চরভৈরবী ইউনিয়নে মানিক দেওয়ান, মিজান মাল সহ আরো অনেকে সাংবাদিকদেরকে জানান, এভাবে যদি প্রতিবছর বর্ষার মৌসুমে নিষিদ্ধ ঘোষিত দানব সন্রাস মিনি ড্রেজার কৃষিজমিতে বসিয়ে যে ভাবে মাটি উত্তোলন করে আসছে কিন্তু আসেপাশের জমিগুলো হুমকির মুখে থাকে।

এতে করে বাড়িঘর বিলীন হয়ে যায়। সি আইপি বেরী বাঁধ সুরঙ্গ করে পাইপ ঢুকিয়ে মাটি নেয় এতে করে রাস্তা ভেঙ্গে যায়। গাড়ি যাতায়াতের অনেক সমস্যা হয়।তাঁরা আরো জানায়, সরকার মিনি ড্রেজারকে নিষিদ্ধ ঘোষনা করেছেন। কারন আমাদের দেশের ফসলী জমি গুলো যদি তাঁরা এভাবে বিলীন করে দেয় তাহলে ফসল উৎপাদিত হবে কিভাবে। সরকার কৃষি বনায়ন এর উপর চাপ প্রয়োগ করে যাতে করে ফসলী জমিতে ফসল উৎপাদন করা যায়।। সচেতন ব্যক্তিরা আরো জানান, আমরা হাইমচরকে রক্ষা করতে চাই। এ উপজেলাটি নদী ভাংতি উপজেলা এভাবে যদি মিনি ড্রেজার বসিয়ে কৃষিজমি শেষ করে দেয় আমাদের দেশের ফসল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা কমে যাবে বলে জানান।

হাইমচর উপজেলা সহকারী কমিশনার( ভূমি) মোঃ মেজবাহ উল আলম ভূঁইয়া বলেন, উপজেলায় কৃষি জমিতে মিনি ড্রেজার বসিয়ে যদি মাটি উত্তোলন করে এবং কৃষিজমির মালিকদের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয় তাহলে ক্ষতিগ্রস্তরা আমাদেরকে লিখিত অভিযোগ করলে আমরা ড্রেজারের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিবো।

অপরদিকে হাইমচর উপজেলা ৬নং চরভৈরবী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আহম্মেদ আলী মাষ্টার জানান, এ ইউনিয়নে চরভাঙ্গা গ্রামের ফজলুল শেখের ঝিল থেকে প্রায় ২’মাস ধরে মোঃ ফারুক মাঝির ড্রেজার বসিয়ে মাটি উত্তোলন করে আসছে। এবং তাঁর নেতৃত্বে কয়েক টি জায়গায় ড্রেজার বসানো হয়। স্থানীয়রা বাধা দিলে বিভিন্ন বাভে হুমকি ধমকি দেয়। তিনি আরো জানান, কেউ যদি অভিযোগ দেয় তাহলে আমরা যথাযত ব্যবস্থা নিব।

অন্যদিকে ২নং উঃ আলগী ইউপি চেয়ারম্যান মনীর আহমেদ দুলাল পাটওয়ারী জানান, ড্রেজার মালিকরা প্রশাসনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে রাতের আঁধারে কৃষি জমির মাটি কেটে বিক্রি করে। এতে পাশ্ববর্তী জমি ও বাড়ীঘর ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা।কিন্তু কে শুনে কার কথা তাঁরা রাতে দিনে মাটি কাটে।আমাদের পরিষদে ক্ষতিগ্রস্তরা অভিযোগ দেয় আমরা তাঁদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিবো। এলাকার সচেতন মহল জানান, এ অবৈধ ড্রেজারের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রসাশনের কাছে সু দৃষ্টি কামনা করছে হাইমচর উপজেলা বাসী।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুরে সেনা কর্মকর্তার ৫০ বছরের চলাচলের রাস্তা বেড়া দিয়ে প্রতিবন্ধকতা

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর সদর উপজেলার ২ নং আশিকাটি ইউনিয়নের হাফানিয়া গ্রামে ২ সেনা কর্মকর্তার …

vv