ব্রেকিং নিউজঃ
Home / প্রিয় অনুসন্ধান / হাইমচরে ইউপি সদস্য দেলোয়ার গাজীর বিরুদ্ধে গৃহবধূর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

হাইমচরে ইউপি সদস্য দেলোয়ার গাজীর বিরুদ্ধে গৃহবধূর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর জেলাধীন হাইমচর উপজেলার ১ নং গাজীপুর ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন গাজীর বিরুদ্ধে গৃহবধূকে শীলতাহানী করার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। গাজীপুর ইউনিয়নের বাজাপ্তী গুচ্ছগ্রামে জেলে আল-আমিনের বসতঘরে এই ঘটনাটি ঘটে। এ নিয়ে পুরো হাইমচর উপজেলায় ব্যাপক আলোচনা ও গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।
এই ঘটনায় অভিযুক্ত ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন গাজী বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার অনুরোধ জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

গত শনিবার দুপুরে বাজাপ্তী গুচ্ছগ্রামে জেলে আল-আমিনের ঘরে ঢুকে সুকৌশলে টাকার প্রলোভন দেখিয়ে গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেন ইউপি সদস্য লম্পট দেলোয়ার হোসেন গাজী।

শ্লীলতাহানীর শিকার হওয়া গৃহবধূর পরিবারবর্গ জানায়, ঘটনার দিন দুপুরে তার স্বামী আলআমিন নদীতে মাছ ধরতে গেলে সেই সুযোগে ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন গাজী ঘরে প্রবেশ করে।

এসময় গৃহবধূ তার সন্তানকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়ার সময় দেলোয়ার হোসেন গাজী টাকার লোভ দেখিয়ে তাকে একটু সময় দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানায়। লম্পট দেলোয়ার হোসেনের কথা না শোনায় সে জোরপূর্বক শ্লীলতাহানী করার চেষ্টা করে। এসময় তার ডাক চিৎকারে লম্পট ঘর থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর খবর শুনে আলআমিন বাসায় আসলে গৃহবধূ পুরো ঘটনার ব্যাখ্যা দেয়।

এই ঘটনার পরই পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে লম্পট ধর্ষণকারীর বিচারের দাবিতে সবাই সোচ্চার হয়ে ওঠে।
শুধু তাই নয় লম্পট দেলোয়ার হোসেন এই গ্রামে অবস্থান করে বেশ কিছু কিশোরী ও নারীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে। যারা তাঁর কথা শুনেনা তাদেরকেই গুচ্ছ গ্রাম থেকে বের করে দিয়েছে। এছাড়া লম্পট দেলোয়ার হোসেন গুচ্ছগ্রামে অবস্থান করে মাদক বিক্রি করে আসছিল। নারী নির্যাতন মাদক বিক্রি ছাড়াও সকল অপকর্মের হোতা ছিলেন ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন। ঘটনার পর থেকেই লম্পট দেলোয়ার হোসেন এলাকা ছেড়ে ঘা ডাকা দিয়েছে।

এই ঘটনাটি সমাধানের জন্য ও শ্লীলতাহানীর শিকার হওয়া গৃহবধূ যাতে কাউকে না বলে আর প্রতিবাদ না করে সেজন্য লম্পট এর পক্ষে বেশ কিছু দালাল চক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন গাজী মুঠোফোনে বেশ কয়েকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া না যাওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে ১নং গাজীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবু গাজী জানায়,ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন গাজী যদি অভিযুক্ত হয়ে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। তবে বিষয়টি দুঃখজনক তা কারো জন্য কাম্য নয়।

Facebook Comments

Check Also

ফরিদগঞ্জ শিক্ষা অফিসের কাণ্ড : সুস্থ শিক্ষককে অসুস্থ বানিয়ে প্রক্সি

এস. এম ইকবাল : প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা নিয়ে অনৈতিক কর্মকান্ড জড়িয়ে পড়ছে ফরিদগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিস। …

vv