ব্রেকিং নিউজঃ
Home / স্বাস্থ্য / শাহরাস্তিতে করোনা টিকা নেয়ার হার বাড়ছে, রেজিস্ট্রেশন করেছে ৩,৪৭৪জন

শাহরাস্তিতে করোনা টিকা নেয়ার হার বাড়ছে, রেজিস্ট্রেশন করেছে ৩,৪৭৪জন

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলায় টিকা নেয়ার গতি ভালো লক্ষ্য করা গেছে।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত এই উপজেলায় মোট ২,৩০০জন টিকা গ্রহন করেছেন। এসময় পর্যন্ত টিকা গ্রহনের জন্য ৩,৪৭৪জন্ রেজিস্ট্রেশন করেছে। টিকা দেয়ার উদ্বোধনী দিনে(৭ ফেব্রুয়ারি)এই উপজেলায় মোট ২৮জন টিকা গ্রহন করেছেন। এদের মধ্যে ৮জন মহিলা ২০জন পুরুষ। ২০ ফেব্রুয়ারি  ২২০জন টিকা গ্রহন করেছে। এদের মধ্যে ৪৬জন মহিলা ১৭৪জন পুরুষ। শাহরাস্তি উপজেলায় করোনা টিকা ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা মেডিক্যাল অফিসার ডা. মেহেদি বাসার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এই উপজেলায় টিকা নেয়ার হার ক্রমান্নয়ে বাড়ছে। তবে টিকা নেয়ার গতি আরো বাড়ানো উচিত বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করেন। সেকারণে উপজেলা প্রশাসন এই উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের তথ্যসেবা কেন্দ্র ও ১টি পৌরসভার মাধ্যমে উপজেলার স্বাস্থ্য কেন্দ্রের অধীনে কর্মরত ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকর্মীদের জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজে লাগানো যেতে পারে। উপজেলায় টিকা দেয়ার স্থানটি সঠিকভাবে সাজানো হয়েছে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে টিকা দিতে এই কেন্দ্রের আয়তন আরো প্রশ্বস্ত হওয়া বাঞ্চনীয় বলে টিকা নিতে আসা ব্যক্তিদের কেউ কেউ মনে করেন।

অনুসন্ধানে জানা যায়, এই কেন্দ্রে প্রাথমিক পর্যায়ে যে ১৫ শ্রেণি/পেশার মানুষ টিকা গ্রহন করার কথা তার গতি মন্থর। যারা টিকা নিতে আসছেন তাদের মধ্যে শিক্ষকের সংখ্যা বেশি লক্ষ্য করা গেছে। বিভিন্ন পেশার মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়, কেউ কেউ টিকা নেয়ার পরবর্তী ঝুঁকি কি হতে পারে তা নিয়ে ভাবছেন। আবার কেউ কেউ মনে করছেন এপর্যায়ে অন্যরা টিকা নিক, এতে কি অবস্থা দাঁড়ায় তা দেখে টিকা নেয়ার বিষয়ে তারা সিদ্ধান্ত নিবেন। কেউ কেউ টিকা নিয়ে কি হবে এমন মন্তব্য করছেন। অনেকে টিকা নিয়ে ভালো থাকবেন কিনা এমন সন্দিহানে রয়েছেন।

প্রথম পর্যায়ে এই উপজেলায় মোট ৬,৮২৮ ডোজ টিকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে।

করোনা থেকে মুক্ত থাকতে সাধারণ মানুষের দ্রুত টিকা কেন্দ্রে এসে টিকা গ্রহনের কার্যক্রমকে সাফল্য মণ্ডিত করতে টিকা কেন্দ্রে আসা উচিত যা অনেক বেশি প্রয়োজন ও গুরুত্বপূর্ন। করোনাভাইরাসের টিকা পাওয়া যে সর্বজনীন অধিকারের বিষয় এবং সরকার যে সেই অধিকার শতভাগ বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর, তা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। টিকা নিতে আসা লোকজন টিকা নেয়ার রেজিস্ট্রেশন কেন্দ্রে এসে সম্পন্ন করতে চান যা জনবলের সংকটে সম্ভব হয় না। উপজেলার যেকোন ইউনিয়ন তথ্যসেবা কেন্দ্রে টিকা নেয়ার রেজিস্ট্রেশন করা যায় এবিষয়ে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো উচিত বলে কেউ কেউ মনে করেন। করোনা মুক্ত থাকতে হলে টিকা নেয়ার বিকল্প নেই এবিষয়ে উপজেলাবাসিকে সচেতন করার জন্য বেশি বেশি প্রচার-প্রচারণার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিবেচনায় নেয়া বাঞ্চনিয়। তা’হলে টিকা নেয়ার গতি বাড়বে বলে অনেকে মত প্রকাশ করেছেন।

Facebook Comments

Check Also

হাজীগঞ্জে বহু মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি জামায়াত নেতা আতাউল করিম গ্রেপ্তার

বিশেষ প্রতিনিধি : জামায়াত নেতা আতাউল করিম দীর্ঘদিন হাজীগঞ্জ উপজেলা থেকে গা-ঢাকা ছিলেন। তার বিরুদ্ধে …

Shares
vv