ব্রেকিং নিউজঃ
Home / প্রিয় অনুসন্ধান / শাহরাস্তিতে ইউপি চেয়ারম্যান-মেম্বারের চালবাজীর ব্যবস্থা নিতে এমপির নির্দেশ

শাহরাস্তিতে ইউপি চেয়ারম্যান-মেম্বারের চালবাজীর ব্যবস্থা নিতে এমপির নির্দেশ

বিশেষ প্রতিনিধি : রায়শ্রী উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম পাটোয়ারী লিটন ও মেম্বার মোঃ মনির চৌধুরীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য। এলাকার লোকজনের আবেদনের প্রেক্ষিতে শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জের গনমানুষের নেতা মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি গত ১২ মে এই নির্দেশ দেন।

জানা যায়, শাহরাস্তি উপজেলার রায়শ্রী উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম পাটোয়ারী লিটন ও ৯নং ওয়ার্ড সদস্য মনির চৌধুরীর বিরুদ্ধে সম্প্রতি ত্রানের চাল আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যপারে ওই ইউনিয়নের দহশ্রী গ্রামের মৃত আঃ হাকিমের পুত্র মোঃ আজাদ হোসেন বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

এছাড়া ওই ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ মনির চৌধুরীর বিরুদ্ধে ন্যায্য মূল্যের চাল আত্মসাতের অভিযোগে আনসার আলীর পুত্র মোঃ মেহেদি হাসান বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। বিষয়টি স্থানীয় সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের দৃষ্টিগোচর হলে তিনি শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন।

চেয়ারম্যান ও মেম্বারের বিরুদ্ধে ত্রাণ আত্মসাৎ সংক্রান্ত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ৫ মে ওই ইউনিয়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিনামূল্যের চাল বিতরণকালে ১০ কেজির পরিবর্তে সাড়ে ৭ কেজি হতে ৮ কেজি করে চাল বিতরণ করে।

এ ব্যপারে অভিযোগকারী আজাদ হোসেন চেয়ারম্যানকে চাল কম দেয়ার কারণ জিজ্ঞেস করলে তিনি চাল কম পেয়েছেন, তাই কম বিতরণ করছেন বলে জানান। এক পর্যায়ে ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য মনির চৌধুরী আজাদকে ঘাড় ধাক্কা দেয় এবং এ বিষয়ে কথা বললে কল্লা (মাথা) কেটে ফেলার হুমকি দেয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

সরেজমিনে ওই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে আনন্দপুর গ্রামের নোয়াব আলী মেম্বার বাড়ির মৃতঃ সেকান্দার আলীর পুত্র আলী আকবর, একই গ্রামের গুজরত আলী মিস্ত্রী বাড়ির মৃতঃ দুলাল হোসেনের পুত্র ইমান হোসেন, মিয়াজী বাড়ির আঃ মান্নানের পুত্র ইমান হোসেন সোহেল, গাজী বাড়ির হারুন রশিদের পুত্র রিপন নতুন বাড়ির হুমায়ূন কবিরের স্ত্রী সুফিয়া বেগম চাল ওজনে কম দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন।

আতাকরা গ্রামের ইউনিয়ন ত্রাণ কমিটির যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আঃ রব জানান, ওই গ্রামের আঃ সাত্তার, নজরুল ইসলাম ও সাফিয়া বেগমকে চাল ওজনে কম দেয়া হয়েছে।

বোগরা গ্রামের আরিফ উল্যাহও সাংবাদিকদের কাছে চাল ওজনে কম দেয়ার কথা জানান। ,
দহশ্রী গ্রামের মোঃ মোস্তফার পুত্র ওসমান গনী ও বোরহান উদ্দিনের স্ত্রী নাজমা বেগম একই অভিযোগ করেন।

এদিকে ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার মনির চৌধুরীর বিরুদ্ধে ন্যায্য মূল্যের চাল আত্মসাতের অভিযোগে একই ওয়ার্ডের আনসার আলীর পুত্র মোঃ মেহেদি হাসান বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই ওয়ার্ডের মেম্বার মনির চৌধুরী গরীব ও অসহায় মানুষের জন্য বরাদ্দকৃত সরকারি সহায়তা ভিজিডি ও ন্যায্য মূল্যের চাল বিতরণের কার্ড তার নিকট জমা রেখে অসহায় মানুষের চাল আত্মসাত করে আসছে।

সরেজমিনে ওই ওয়ার্ডে গেলে উল্যাশ্বর গ্রামের কাঁঠালিয়া বাড়ির রেহান উদ্দিনের পুত্র মোঃ আবুল কাশেম,
দক্ষিণ পাড়া তালুকদার বাড়ির মৃত হাসান আহম্মদের পুত্র মোঃ শাহ্ আলম, কাঁঠালিয়া বাড়ির আবুল খায়েরের পুত্র এমরান হোসেন, নোয়াবাড়ির মৃতঃ সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী শিরিন আক্তার, মৃতঃ অরুন চন্দ্র ধামের পুত্র অপু ধাম অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ মোঃ মোশারফ হোসেন মুশু বলেন, শাহরাস্তি হাজীগঞ্জের গনমানুষের নেতা মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপির সাথে ১৯৯১ সাল হতে কাজ করছি। তাঁর এলাকায় চালের ওজন নিয়ে কারসাজি জনগনের জন্য সরকারি সহযোগিতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলছে।

চালের অনিয়মের অভিযোগকারীরা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত বলে চেয়ারম্যান যে বক্তব্য দিয়েছেন তা স্পষ্ট দালালী। রায়শ্রী উত্তর ইউনিয়নে এমপি মহোদয়ের সম্মান অক্ষুন্ন রাখতে সব ধরণের অনিয়ম ও দালালী রোধে আওয়ামীলীগের প্রতিটি কর্মী অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকা রাখবে।

তিনি আরও জানান, চেয়ারম্যান ত্রাণের চাল আত্মসাৎ করেছে মর্মে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সরকার প্রদত্ত সকল সুযোগ সুবিধা সহ ইউনিয়ন পরিষদে যে কোন বরাদ্ধের সুষ্ঠু বন্টনের বিষয়ে চেয়ারম্যানকে নির্দেশনা দেন। এর ব্যত্যয় ঘটলে আইনগত ব্যবস্থার কঠোর হুঁশিয়ারী দেন নেতৃবৃন্দ।

চেয়ারম্যান ওই বিষয়গুলো উপস্থাপন না করে ব্যক্তিগত প্রচারের উদ্দেশ্যে সাংবাদিকদের দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করিয়েছেন।

ইউনিয়ন ত্রাণ কমিটির স্থানীয় সংসদ সদস্যের প্রতিনিধি প্রফেসার মোঃ জয়নাল আবেদীন জানান, ত্রাণ অনিয়মের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে নিয়ে তার কার্যালয়ে বসা হয়েছে। তিনি ওজনে কমের বিষয়ে খাদ্যগুদামকে দোষারোপ করছেন। আমরা স্পষ্ট বলে দিয়েছি, গরীব অসহায়দের ত্রানে ওজনে কম দেয়া সহ্য করা হবে না। খাদ্যগুদাম হতে কম দেয়া হলে সেটা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে হবে।

শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিরীন আক্তার জানান, অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করার জন্য একজন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুর সড়কের কোটি টাকা ব্যয়ে কালভার্ট নির্মাণে দুর্নীতি, ঢালাই চলে রাতের আঁধারে

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর মতলব পেন্নাই সড়কে ৪ কোটি ১৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে দুটি কালভার্ট নির্মাণের …

vv