ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / শাহরাস্তিতে আলোচিত প্রিয়া খুনে যুবক আটক

শাহরাস্তিতে আলোচিত প্রিয়া খুনে যুবক আটক

মোঃ মাসুদ রানা : দপুরের শাহরাস্তিতে আলোচিত নওরোজ আফরিন প্রিয়া (২১) খুনে জড়িত সন্দেহে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃত যুবকের সাথে মামলার বাদী প্রিয়ার মায়ের পরকীয়ার সখ্যতা নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। বৃহস্পতিবার(২৩-সেপ্টেম্বর) অভিযুক্ত যুবক হান্নানকে পুলিশ চাঁদপুর জেলহাজতে প্রেরণ করে। ওই ঘটনায় গত বুধবার (২২-সেপ্টেম্বর) বিকেলে শাহরাস্তি থানা পুলিশ প্রিয়ার মায়ের প্রতিবেশী প্রেমিক দেবকরা গ্রামের মৃত. মুনসুর আলী ভূঁইয়ার পুত্র মোঃ আঃ হান্নান (৩১) আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেয়।

নিহত প্রিয়ার পরিবার,পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার রায়শ্রী দক্ষিণ ইউপির ছোট পোদ্দারবাড়ি ইসমাইল হোসেন জীবিকার প্রয়োজনে বহুবছর ধরে বিদেশে অবস্থান করছেন।ওই সুযোগে যুবক হান্নানের সঙ্গে প্রিয়ার মায়ের ৫/৬ বছর ধরে অভিসারের সম্পর্ক এলাকায় চাউর হতে থাকে । ওই সময় স্থানীয়দের গুঞ্জন প্রিয়াকে প্রভাবিত করলে সেও একদিন মা ও অভিযুক্ত যুবক হান্নানকে বেসামাল অবস্থায় ধরে ফেলে। ওই সময় রুমির প্রবাসী স্বামী ইসমাইল হোসেন স্ত্রী এমন জীবন চারণের কথা শুনে সম্পর্ক অবসানের সিদ্ধান্ত নেয়। তারপর দুটো বাচ্চা কথা চিন্তা করে বিষয়টি থানা-পুলিশ মামলায় গড়িয়ে গ্রাম্য সালিশে নিষ্পত্তি হয়। ওই সময় স্থানীয়দের আপত্তির মুখে হান্নান ঘটনা রটনা সামলিয়ে (বিদেশে) সৌদি আরব পাড়ি জমায়। তারপর বিষয়টি ঢাকা পড়ে যায়।

এদিকে গত ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার রায়শ্রী দক্ষিন ইউপি আহম্মদ নগর ছোটপোদ্দার বাড়ির প্রবাসী ইসমাইল হোসেন ও তাহমিনা সুলতানা রুমি দম্পতির একমাত্র কন্যা নওরোজ আফরিন প্রিয়াকে (২১) কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ওই হত্যাকাণ্ডের ঠিক মাসখানিক পূর্বে প্রিয়ার মায়ের কথিত প্রেমিক বিদেশ থেকে এলাকায় ফিরে আসে। তারপরেই এই নির্মম হত্যাকান্ডের ঘটনা সংঘটিত হয়েছে বলে স্থানীয়দের মুখে রটিয়ে বেড়াচ্ছে।ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আসাদুল ইসলাম জানান, ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আঃ হান্নানকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে চূড়ান্ত বক্তব্য পেশ করা যাবে।শাহরাস্তি মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আবদুল মান্নান জানান, প্রিয়া হত্যা রহস্য উদঘাটনে পুলিশ নিরলসভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে অভিযুক্ত যুবক হান্নানকে আটক করা হয়েছে। শীঘ্রই ওই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করা সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার গৃহবধূ স্বামী কামরুজ্জামান চৌধুরী হৃদয় কুমিল্লায় একটি পোল্টি ফার্মে চাকরি করেন। ওই দম্পতির আবরীন জামান উম্মে আনহার নামে ১৮ মাস বয়সী একটি শিশু সন্তান রয়েছে। ঘটনার সময় নিহতের মা তাহমিনা সুলতানা রুমি প্রিয়ার মেয়ে আনহার জন্য ঔষধ আনতে পাশের বাড়িতে স্থানিয় গ্রাম্য চিকিৎসক গৌরাঙ্গের কাছে গিয়েছেলেন বলে মামলায় উল্লেখ করেছেন। সেখান থেকে ফিরে তিনি ঘরে প্রিয়ার রক্তাক্ত লাশ দেখতে পান। পরদিন ওই ঘটনায় প্রিয়ার মা তাহমিনা সুলতানা রুমি শাহরাস্তি মডেল থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার এজহারে ঘটনার রাত ৭ টা ৫ মিনিট হতে ৮টা ৩০ মিনিটের মধ্যবর্তী যে কোন সময়ে মধ্যে অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতিকারী ওই গৃহে প্রবেশ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ভিকটিমকে কুপিয়ে হত্যা করে বলে উল্লেখ করা হয়।

Facebook Comments

Check Also

বঙ্গবন্ধুর আর্দশের নিজের ও দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে : মাইনুল হোসেন খান নিখিল

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় সেবা মাস উপলক্ষে শিকারী কান্দি আকবরীয়া উচ্চ …

Shares
vv