ব্রেকিং নিউজঃ
Home / বিশেষ প্রতিবেদন / শাহরাস্তিতে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী মানিক, দুর্নীতির অভিযোগ

শাহরাস্তিতে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী মানিক, দুর্নীতির অভিযোগ

মো. মজিবুর রহমান রনি : শাহরাস্তি উপজেলার চিতোষী পুর্ব ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আঃ আজিজ মানিকের বিরুদ্ধে দলে অনুপ্রবেশ, দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যপারে ওই ইউনিয়নের নরহ গ্রামের মৃত. আঃ আউয়ালের পুত্র মোঃ আবু ইউসুফ জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সম্প্রতি গনমাধ্যমের হাতে ডাক মারফত ওই অভিযোগের কপি পৌঁছেছে। এতে মোঃ আবু ইউসুফ, পিতাঃ মৃতঃ আব্দুল আউয়াল, সাং- নরহ, পোঃ চিতোষী বাজার, শাহরাস্তি, চাঁদপুর নিজেকে একজন আওয়ামীলীগ কর্মী দাবী করে উল্লেখ করেন, তিনি ছোটবেলা হতেই হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের অনুসারি হিসেবে দলীয় কর্মকান্ড চালিয়ে আসছেন।

বর্তমান প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনা দলে শুদ্ধি অভিযান শুরু ও দুর্নিতিবাজদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করলেও মাঠ পর্যায়ে কতেক অসৎ নেতৃবৃন্দের অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতায় রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকার পরও দলের ৬৯ বছরের ইতিহাস ঐতিহ্য ভুলুন্ঠিত হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন।

অভিযোগে বলা হয়, শাহরাস্তি উপজেলার চিতোষী পুর্ব ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আঃ আজিজ মানিক বঙ্গবন্ধুর আদর্শে পরিচালিত দলে একজন ছদ্মবেশী জামাত-বিএনপির এজেন্ট। যিনি ছাত্রজীবনের একজন শিবির ক্যাডার, যৌবনে জাতীয় পার্টি ও সর্বশেষ নিজ অস্তিত্ব রক্ষায় আওয়ামী লীগ হয়েছেন। বিএনপি-জামাত পরিবারের এই নেতা বংশে নিজেই একমাত্র আওয়ামী লীগ। তার বড় ছেলে বিএনপির সক্রিয় কর্মী, মেঝ ছেলে জামাত-শিবিরের রাজনীতির সাথে সরাসরি যুক্ত। কয়েক বছর আগে কুমিল্লায় নাশকতার পুর্ব প্রস্তুতিকালে শিবির নিয়ন্ত্রিত একটি মেস হতে তাকে আটক করা হয়। যা মামলার নথিপত্র পর্যালোচনায় প্রমানিত হবে।

তিনি নিজে দলীয় আদর্শ জলাঞ্জলি দিয়ে দলের জাল কাগজ তৈরি করে নিজ পুত্রকে ছাত্রলীগ বানিয়ে জেলথেকে জামিনে বের করেন। ছোট ছেলে বাবার পরিচয় ভাঙ্গিয়ে এলাকায় মাদক ও অসামাজিক কার্যকলাপের অঘোষিত গডফাদার। সাম্প্রতিক সময়ে পঞ্চনগর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে তুলে নেয়ার চেষ্টার ঘটনায় বর্তমানে জেলহাজতে আছে।

এছাড়া দলীয় সম্পাদকের পদাসীন হওয়ার পর হতে তার পরিবারের সদস্যরা এলাকায় মাদক ও প্রকাশ্য জুয়ার আসরের সঞ্চালকের আসনে বসেন। এলাকার লোকজন তার ক্ষমতা ও পেশীশক্তির ভয়ে মুখ খোলার সাহস করে না বলে অভিযোগে জানানো হয়।

মোঃ আঃ আজিজ মানিকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উল্লেখ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর গৃহায়ন প্রকল্পের আওতায় জমি আছে ঘর নাই প্রকল্পে দুঃস্থ ও অসহায়দের কাছ হতে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার কথা তুলে ধরা হয়। এতে বড়তুলা গ্রামের জনৈক ব্যক্তির কাছ হতে অর্থ আদায়ের ঘটনা যা পরে স্থানীয় সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপে সমাধান হয় বলে জানানো হয় ।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, আজিজ মানিক ভিজিএফ, ভিজিডি, বয়স্ক ভাতা ও মাতৃত্বকালিন ভাতার কার্ড বানিজ্যে তার চাচাতো ভাই ফিরোজ মেম্বারের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করেন এবং সরকারের বিনামূল্যে বিদ্যুৎ প্রদান কর্মসূচী হতে জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতাদের খরচের কথা বলে খানা প্রতি ৮ থেকে ২০ হাজার টাকা আদায় করেন।

এবিষয়ে চিতোষী পুর্ব ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আঃ আজিজ মানিক মুঠোফোনে জানান, তিনি কখনোই অন্য রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন না।

তিনি গত ২৫ বছর আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড পর্যায় থেকে শুরু করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দায়িত্বে। আমার ধারণা সামনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউন্সিল থাকার কারণে আমার বিরুদ্ধে এই মিথ্যা অভিযোগ করেছে। আমার কোন সন্তান অন্য রাজনীতির সাথে জড়িত নাই। আমাকে ব্যাক্তিগতভাবে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চিনেন।

Facebook Comments

Check Also

মতলব উত্তরে রোপা আমনের বাম্পার ফলন : ধান কাটা শুরু

মনিরুল ইসলাম মনির : মতলব উত্তরে দেশের অন্যতম সেচ প্রকল্প মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্পে এই মৌসুমে রোপা …

vv