ব্রেকিং নিউজঃ
Home / টকশো / রুপসী চাঁদপুর আয়োজনে করোনাকালে লেখাপড়া বিষয়ে বিশেষ লাইভ ‘টকশো’

রুপসী চাঁদপুর আয়োজনে করোনাকালে লেখাপড়া বিষয়ে বিশেষ লাইভ ‘টকশো’

স্টাফ রিপোর্টার : রুপসী চাঁদপুর এই সময় এর আয়োজনে করোনাকালে লেখাপড়া বিষয়ে জুম অ্যাপে বিশেষ লাইভ টক-শো রুপসী চাঁদপুর বিডি ফেসবুক পেজে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৬জুলাই (বৃহস্পতিবার) রাত ৯টায় চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক ও নাট্যকার বি এম হান্নান এর সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে অংশগ্রহন করেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরন দাশ।

চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরন দাশ তার বক্তব্যে বলেন, চাঁদপুর কলেজের যে ঐতিহ্য রয়েছে কলেজে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে। আমি মনে করি যেহেতু আমি এ কলেজের ছাত্র ছিলাম। এ কলেজের প্রতিটা ইটের সাথে আমার সম্পর্ক রয়েছে। আমি চাঁদপুর কলেজকে নিয়ে ভাবি। এটা বাংলাদেশের একটা অন্যতম বিদ্যাপীঠ হবে। আমি কাজ করে যাচ্ছি সকলে আমাকে সহযোগিতা করছেন। যখন কভিড-১৯ সংক্রামন শুরু হলো তখন সরকার শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা করেছে। ইন্টারনেট ব্যবহার করে করোনার সময়ে শিক্ষাটাকে চালিয়ে নিতে হয়। অনলাইনে বিভিন্ন ভাবে ক্লাস নেওয়া যায়। ইউটিউবের মাধ্যমেও ক্লাস নেওয়া যায়। আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে কিভাবে দ্রুত তথ্য পৌছানে যায়। দেখলাম ফেসবুকে আমাদের কানেকটিভিটি বেশি।

তিনি বলেন, ড্যাফোডিল যে ভাবে পরীক্ষা নিয়েছে। আমাদের প্রাথমিক ভাবে অনলাইনে ক্লাসে সফলতা পেয়েছি। আমাদের চাঁদপুর কলেজের অধিকাংশ শিক্ষার্থী অনলাইন ক্লাস দেখছে। বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থী স্মাটফোন ব্যবহার করে। কিভাবে ইন্টারনেট শিক্ষার্থীদের কাছে পৌছানো যায় এবং ক্লাসগুলো যাতে শিক্ষার্থী দেখতে পায়। আমরা পরীক্ষা নিরীক্ষা করতেছি কিভাবে অনলাইনে আরো বেশি শিক্ষার্থী সংযুক্ত করা যায়। রিটেন পরীক্ষা অনলাইনে নিতে হলে আরো পরীক্ষা নিরীক্ষা নিতে হবে। সরকার যে বৃত্তিটা দিচ্ছে। এবছর এর ধরনটা একটু পরিবর্তন হয়েছে। শিক্ষার্থীদের অভিভাবকের মোবাইলে সরাসরি বিকাশ একাউন্ট টাকা চলে যাচ্ছে। করোনকালটার আমরা ভেবেছি এটা চলে যাবে। এখন মতবেদ রয়েছে এটা কতটুকু দীর্ঘায়িত হবে। করোনা দীর্ঘায়িত হলে, তাহলে অনলাইনের উপর আমাদের নির্ভর হতে হবে। সোহেল রুশদী যে জিনিসটা উপস্থাপন করেছে এটা একটা ভালো দিক। ইউনিয়ন পরিষদের ইন্টারনেট সংযোগটা কিন্তু হাইস্পিড। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী মহোদয় অনেক দূরদর্শী ও বিচক্ষন মানুষ। তিনি ভবিষ্যত নিয়ে ভাবেন। করোনা কালে প্রযুক্তিগত শিক্ষা প্রতি আমাদের নির্ভর করতে হবে। এনসিটিবি কিন্তু কারিকুলাম পরিবর্তনের একটা চিন্তাভাবনা করছে। দুর্যোগ থেকেই নতুন কিছু তৈরি হতে পারে। শিক্ষার্থীরা যাতে শিক্ষা থেকে ঝরে না পড়ে এ জন্যই অনলাইনে ক্লান পরিচালনা করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: সাজেদা বেগম পলিন।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, প্রথমেই আপনাদেরকে ধন্যবাদ আপানাদের লাইভ অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রন জানিয়েছেন। আরো ভালো লাগছে আজকে যাদের সাথে আমি লাইভে আসতে পেরেছি এজন্য আমার ভালো লাগছে। আমার সদর উপজেলার আমার চিকিৎসা কর্মী আমরা সবাই মিলে ভাবলাম এমন কি করা যায়, করোনার ব্যাপারে পেজ খুললে কি করা যায়। আমরা চিকিৎসকরা মিলে কভিড ১৯ হেল্পলাইন গুলো খুলেছি। এখানে মানুষের করোনার ব্যাপারে পরামর্শ দিয়েছি।

তিনি বলেন, এখানে বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা সাজেশন্স দিচ্ছে। আমাদের উচিত বাচ্চারা যেন মানসিকভাবে ভেঙ্গে না পড়ে, এ সময় হরমোন পরিবর্তন হয়। তাই এসময় তাদেরকে সময় দিতে হবে। সৃজনশীল কাজে সহযোগিতা করতে হবে। ক্লাস করার জন্য মোবাইল ব্যবহার করবে, কিন্তু বেশি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। মা-বাবার সাথে খেলা-ধূলা করা, ইনডোরে খেলাধূলা করতে পারে শিক্ষার্থীরা। করোনা আক্রান্ত রোগীরা তথ্য গোপন করার কারনে সংক্রমন আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। স্কুলে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও চিকিৎসা সেবার একটি কার্যক্রম চলছে। সেহেল রুশদী ভাইয়ের প্রতিষ্ঠানেও এ সেবাটা শুরু করেছি। শিক্ষকগন প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। সকল শিক্ষকরা অনলাইনে শিক্ষা পরিচালনা করছে।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন, শাহতলী জিলানী চিশতী কলেজ গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ও দৈনিক চাঁদপুর খবর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল রুশদী।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, আমি বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বে রয়েছি। পাঁচ মাস করোনা কালীন সময়ে সংসদ টেভিতে লাইভ ক্লাস হচ্ছে। জিলানী চিশতী উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা হয়েছে ১৯৬৪ সালে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান করা হচ্ছে। সংসদে টিভিতে যে ক্লাস গুলো হচ্ছে, সেগুলো শিক্ষার্থীরা দেখছে। অসিত বরন দাস স্যার শিক্ষার উন্নয়নে অনলাইনে অভিভাবকদের সাথে সভা করেছেন। আমার প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের বলেছি শিক্ষার্থীদের খোজ খবর নিতে। অভিভাবকদের সাথে করোনাকালীন সময়ে শিক্ষা কিভাবে চালালে শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে সে বিষয়ে । আজকে শিক্ষার্থীরা এখানে অশংগ্রহন করাতে শিক্ষার্থীদের সুবিধা ও অসুবিধার কথা জানতে পারলাম। মোবাইল ব্যবহারে কলেজের ক্ষেত্রে সুফল পাচ্ছে। মোবাইল বেশি ব্যবহার করলে নেশায় পরিনত হতে পারে।

তিনি বলেন, সংসদ টিভিতে যে ক্লাস পরিচালিত হয়। করোনাকালীন সময়ে ডা: দীপু আপা যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কমিটির কাজ হচ্ছে সরকারের পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়ন করা। গ্রাম পর্যায়ে ইন্টারনেট সুবিধা সেভাবে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই অনলাইনে ক্লাস দেখতে শিক্ষার্থীদের কিছুটা অসুবিধা হচ্ছে।

শিক্ষার্থীরা প্রতি অভিভাবকদের নজর রাখতে হবে। শিক্ষার্থীরা যাতে পড়াশুনায় থাকে। শিক্ষার্থীরা বাসায় পরীক্ষা দিবে এর পরিদর্শক হচ্ছে মা। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ইন্টারনেট সংযোগ দিয়ে অনলাইন ক্লাসে সহযোগিতা করা যাবে গ্রাম পর্যায়ে। দুযোর্গে সমগ্র বিশ্ব কঠিনতম সময় পার করছেন। জেলা প্রশাসন করোনায় নাগরিকদের সচেতন করার জন্য সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে মানবন্ধন করেছেন। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর সহায়তায় সদর হাসপাতালে অক্সিজেন প্লান্ট দিয়েছেন এজন্য মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপি মহোদয়কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আমার প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের অনলাইনে ক্লাসপরিচালনার উপর জোর দিয়েছি।
তিনি বলেন, যে সকল শিক্ষার্থীদের স্মার্ট ফোন রয়েছে, তারা যেন নিয়মিত ক্লাসগুলো দেখে তা নিশ্চিত করতে হবে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে সকল শিক্ষককে শিক্ষক বাতায়নে সংযুক্ত হওয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। আমাদের শিক্ষকদের অনেক সুবিধা-অসুবিধা রয়েছে। তারপরও তারা অনলাইনে ক্লাস নিচ্ছে। আমরা অনলাইন ক্লাসগুলো নিশ্চিত করার জন্য গভর্নিং বডি থেকে নির্দেশনা দিয়েছি। শিক্ষার্থীদের একটা মেসেজ হলো এ মহামারি সময় বাসায় পড়াশুনা করতে হবে। বাসায় সংসদ টিভিতে ক্লাসগুলো দেখতে হবে।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মধ্যে অংশগ্রহন করেন, মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনির শিক্ষার্থী রুমাইয়া বিনতে, চাঁদপুর ড্যাপোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ২য় শ্রেনি শিক্ষার্থী জেবা, আদিবা, রাইসা।

Facebook Comments

Check Also

শিক্ষামন্ত্রীকে শাহাদাৎ হোসেন জাকির পাটওয়ারীর শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিল অনুমোদন পাওয়ায় শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি …

vv