ব্রেকিং নিউজঃ
Home / বাংলাদেশ / রাজনীতি / রামপুরে হাইব্রিড আ’ লীগ নেতা মাহবুবুর রহমানের শক্ত বিচরন

রামপুরে হাইব্রিড আ’ লীগ নেতা মাহবুবুর রহমানের শক্ত বিচরন

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, চাঁদপুর হাইমচর-৩ নির্বাচনী এলাকার উন্নয়নের রুপকার, সাবেক সফল পররাষ্ট্রমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির নিজ এলাকা চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫নং রামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সমর্থীত এক নেতার বিচরনে অতিষ্ঠ আওয়ামী লীগ সমর্থীত নেতাকর্মী সমর্থকগন। তিনি আওয়ামী লীগের একজন বড় মাপের নেতা হিসেবে নিজেকে নিজেকে দাবি করেন।

অথচ এ নেতা হাত ধরে এক রামপুরে বিএনপির শক্ত ভাবে বিচরন করেন। খোদ শিক্ষামন্ত্রীর নিজ এলাকায় হাইব্রিড আওয়ামী লীগের নেতার দাপট ও বিচরনে তৃনমূলের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী সমর্থকদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া বিরাজ করছে।

বলছি শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আদর্শের সৈনিক, রামপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি, রামপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারীর কথা। তিনি ২০০৩ সালের রামপুর ইউনিয়ন বিএনপির ত্রীবার্ষিক সম্মেলনে আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতির দায়িত্ব পান। তারপর থেকে মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারীর হাত ধরে রামপুর ইউনিয়ন বিএনপির শক্তিশালি সংগঠন হিসেবে বিচরন শুরু করেন। ২০০৬ সালে ছোট সুন্দর বাজারে বিএনপির কার্যালয়ে বিএনপির ২৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী তিনি পালন করা হয়।

তিনি বর্তমানে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির পদে অদিষ্ট রয়েছেন। শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি চাঁদপুরের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারী বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিক হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করেন। অথচ এক সময় এই মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারী বিএনপির বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে দাপটিয়ে বেড়িয়েছেন, আন্দোলন করেছেন। নের্তৃত্ব দিয়েছেন।

নিউজের সাথে ছবি ও তথ্য দেখলে সবাই তাকে ছিনবেন। এবার বলছি ভিন্ন কথা, মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারী নিজের জন্য, নিজের স্বার্থের জন্য, নিজের অস্থিত্ব টিকিয়ে রাখার জন্য আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকেই তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির পদ পান। আসন্ন উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রী বার্ষিক সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে তিনি প্রতিদ্বন্ধিতা করবেন বলে জানা যায়।

দেশের চলমান ক্যাসিনো সম্রাটদের ধরপাক, এবং তৃনমূল থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের যাচাই-বাঁচাই করে ওয়ার্ড থেকে শুরু করে ইউনিয়ন, উপজেলা এবং জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি করার জন্য কেন্দ্রীয় ভাবে নিধেজ্ঞা দিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশের শুদ্বি অভিযানে হাইব্রিড আওয়ামী লীগের কিছুটা দাপট কমলে ও মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারী ভুলে গেছেন, তিনি যে এক সময় রামপুর ইউনিয়ন বিএনপির অভিভাবকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি এখন বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটির সুপারিশ করছেন। ওয়ার্ড ও ইউনয়নের পদ প্রত্যাশিরা মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারীর সরাপর্ণ হচ্ছেন এবং নিজের সুনামের কথা চারিদিকে বলে বেড়াচ্ছেন।

রামপুর ইউনিয়নের নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যাক্তি বলেন, রামপুরের হাইব্রিড এ আওয়ামী লীগের নেতাকে বাদ দিয়ে রামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটির সম্মেলন করলে রামপুরের তৃনমূলের আওয়ামী লীগের নেতার্মীরা মূল্যায়িত হবেন। এ জন্য তারা শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

রামপুর ইউনয়ন আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত, শক্তিশালী করতে হলে হাইব্রিড আওয়ামী লীগ বাদ দিতে হবে। ত্যাগি নেতাকর্মী সমর্থকের মতামতের ভিত্তিতে কমিটি দিলে শিক্ষান্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির হাত শক্তিশালী হবে।

রামপুরের আওয়ামী লীগ শক্তিশালী সংগঠন হিসেবে রামপুরে বিচরন করবে।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুর ১২নং চান্দ্রা ইউনিয়ন আ’লীগের পদ-প্রত্যাশীদের প্রচারণা তুঙ্গে

ফাহিম শাহরণি কৌশিক : চাঁদপুর ১২ নং চান্দা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে পদ-প্রত্যাশী নেতাদের …

vv