ব্রেকিং নিউজঃ
Home / অর্থনীতি / মানবসেবায় এক উজ্জল দৃষ্টান্ত রেমিট্যান্স যোদ্ধা মতলবের সুজন সরকার

মানবসেবায় এক উজ্জল দৃষ্টান্ত রেমিট্যান্স যোদ্ধা মতলবের সুজন সরকার

মাসুদ হোসেন : চিকিৎসা করার কিংবা ঔষধ কথা নার জন্য টাকা নেই, টাকার জন্য ভর্তি হবে কিংবা বই কিনতে পারছেন না দরিদ্র শিক্ষার্থী, টাকার অভাবে হুইল চেয়ার কিনে চলতে পারেননা প্রতিবন্ধী অসহায় ব্যক্তি, এমন অসংখ্য দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে মানবতার এক অনন্য নজির সৃষ্টি করেছেন ২২ বছর বয়সী রেমিট্যান্স যোদ্ধা সুজন সরকার। তিনি চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের কোটরাবন্দ গ্রামের আবদুল ওহাব সরকারের বড় ছেলে।

রাব্বি হোসেন সুজন সরকার পেশায় সৌদি আরবের একটি ফাইভ স্টার হোটেলে কর্মরত থেকে পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে সমাজের জন্য নিরবে নিভৃতে কাজ করে চলেছেন এই প্রবাসী। তিনি ২০১২ সালে শিক্ষাজীবনে ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও ঐ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। সুজন সরকার ছোটবেলা থেকেই পড়াশোনা ও রাজনীতির পাশাপাশি সমাজ ও মানুষের সেবায় কাজ করতেন। পরিবারের আর্থিক চাহিদা মিটাতে শিক্ষাজীবনের ইতি টেনে পাড়ি জমান প্রবাসে। দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করা এই মানুষটি এখনো প্রবাস জীবনে থেকে জেলার বিভিন্ন এলাকার অসহায় মানুষ, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সংগঠনসহ সমাজে ব্যাপক কাজ করে চলেছেন।

বিশেষ করে মহামারী করোনাভাইরাসের এই দূর্যোগ মুহুর্তে প্রবাসে থেকেও বিভিন্ন সংগঠন কিংবা মানুষের মাধ্যমে অসহায় হয়ে পড়া মানুষের বাড়ি বাড়ি ত্রাণ সামগ্রী ও নগদ অর্থ পৌছে দিয়েছেন। শৈশব বয়স থেকেই এই যুবক সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের অসহায় মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছেন। প্রবাস জীবনে নিজেকে স্বাবলম্বী করার পর থেকে নিরবে নিভৃতে সমাজের অসংখ্য অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন এই যুবক। সামাজিক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে মুক্তহস্তে দান করে যাচ্ছেন প্রবাসী এই যুবক। রাব্বি হোসেন সুজন সরকার সেবামূলক কাজগুলোকে প্রচারে আগ্রহী নয়। তিনি নিরবেই সমাজের বিভিন্ন অসহায় শ্রেণীর সাহায্য করতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন।

সুজন সরকারকে সমাজের সামর্থবানের জন্য উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হিসেবে উল্লেখ করে সচেতন মহল বলেন, আমাদের সমাজে অনেকেই সামর্থবান হলেও অসহায় মজলুমের পাশে বিপদে আপদে দাঁড়ানোর মানসিকতা অনেকের নাই। প্রবাসী যুবকের এই নীরব সমাজসেবা অন্য সামর্থবানদের মধ্যে সমাজের অসহায় মানুষের প্রতি তাঁদের দায়িত্ব ও কর্তব্য স্বরণ করিয়ে দিবে। এবিষয়ে রাব্বি হোসেন সুজন সরকার বলেন, ছোটবেলা থেকেই সব সময় মানুষের জন্য কিছু করতে পারা নিজেকে ভাগ্যবান মনে করতাম। মানুষের বিপদে সব সময় পাশে ছিলাম এবং ভবিষ্যতেও পাশে থাকতে চাই। আরও বড় পরিসরে মানুষের পাশে থেকে মানুষের জন্য কিছু করতে পারলে নিজেকে প্রকৃত মানুষ হিসেবে ধন্য মনে করবো।

Facebook Comments

Check Also

ফরিদগঞ্জে যুবতিকে ধর্ষণের চেষ্টা, অভিযুক্ত আটক

এস এম ইকবাল : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে ৫ মার্চ শুক্রবার সকালে ফরিদগঞ্জ বাজার লিংক রোডে ২১ …

Shares
vv