ব্রেকিং নিউজঃ
Home / সমস্যা-সম্ভাবনা / মতলবের উপাদী দক্ষিণে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন এখন ভয়াবহ দুর্ঘটনার অশনি সংকেত
মতলব দক্ষিণ উপজেলার ৬নং উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের ১৭৯নং বাকরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঝুঁকিপূর্ণ পরিত্যাক্ত ভবন।

মতলবের উপাদী দক্ষিণে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন এখন ভয়াবহ দুর্ঘটনার অশনি সংকেত

মাসুদ হোসেন : চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার ৬নং উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের ১৭৯নং বাকরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। এ আধাপাকা বিদ্যালয় ভবনটি প্রায় দেড় যুগ পরিত্যাক্ত ঘোষনা হলেও অধ্যবদি অপসারিত হয়নি। এটি এতটাই জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে, দেখলে মনে হবে যেন এখনিই ভেঙ্গে পড়ছে।

জরাজীর্ণ এ ভবনটির পূর্ব দিকে রয়েছে ব্যাস্ততম সড়ক, পশ্চিমে বসত বাড়ি, উত্তরে খোলা মাঠ ও দক্ষিণ রয়েছে বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন। শতাধিক বছরের পুরনো ঝুঁকিপূর্ণ এ ভবনটি এখন ভয়াবহ দুর্র্ঘটনার অশনি সংকেত হয়ে দাড়িয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ১৯১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত এ বিদ্যালয়ের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সড়কের পথযাত্রীরা হঠাৎ ঝড় বৃষ্টি নামলেই ঝুঁকিপূর্ণ ভবনটিতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। এলাকার কিছু মানুষ তাদের পালিত গরু ছাগল মাঝে মাঝে এখানে বেঁধে রাখছে।

এছাড়াও স্থানীয় বসতবাড়ির লোকজন তো আছেই। সবচেয়ে বড় ধরনের ক্ষতির সম্মূখীন হতে পারে বিদ্যালয়ে আগত কোমলমতি শিশুদের। তারা এ জরাজীর্ণ ভবনটিতে গিয়ে খেলাধুলা করতে দেখা গিয়েছে। হয়তো তাদের অজান্তে যেকোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে এ অকেজো ভবনটি। এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের অভিবাবকরাও চিন্তায় দিন কাটাচ্ছেন। তারা বলছেন আমাদের সন্তানদের শিক্ষার জন্য বিদ্যালয়ে পাঠাই। কিন্তু এই ঝুঁকিপূর্ণ পরিত্যাক্ত ভবনের কারনে অবুঝ শিশুদের জীবনের নিরাপত্তা অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে।

সম্প্রতি যোগদানকৃত প্রধান শিক্ষক আব্দুর রব ভবনটির প্ররিত্যাক্ত বা অপসারনের বিষয়ে কিছু না জানলেও সভাপতি মোঃ আলফাজ উদ্দিন খান জানান, পরিত্যাক্ত এই আধাপাকা ভবনটি অপসারনের জন্য কখনো আবেদন জানানো হয় নি। তাই এভাবে জরাজীর্ণভাবে পড়ে আছে।

এলাকার সচেতনদের দাবী, কোমলমতি শিশুদের খেলাধুলার জন্য একটু মাঠের ব্যবস্থা ও যে কোন প্রকার দূর্ঘটনার ঝুঁকি এড়াতে মতলব দক্ষিণ উপজেলা প্রশাসন দ্রুত ভবনটি অপসারনের ব্যবস্থা নিবেন।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুরে হাইভোল্টেজ বিদ্যুতের লাইন ভেতরে রেখেই ভবন নির্মাণ!

অমরেশ দত্ত জয় : এটিকে ‘মরণ ফাঁদ’ বললেও বোধ হয় কম বলা হবে। এ যেন …

vv