ব্রেকিং নিউজঃ
Home / ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর / ভবঘুরে, ভিক্ষুক, পাগলদের মাঝে সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন চাঁদপুরের খাবার বিতরণ

ভবঘুরে, ভিক্ষুক, পাগলদের মাঝে সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন চাঁদপুরের খাবার বিতরণ

সাইফুল ইসলাম সিফাত : করোনা দুর্যোগের এ সময় অসহায় রাস্তার পাশে, রেললাইনে, ছাদের নীচে যারা শুয়ে থাকে সেই ভবঘুরে পাগল, ভিক্ষুক, প্রতিবন্ধী মানুষ ও বেওয়ারিশ অভূক্ত কুকুরের মুখে খাবার তুলে দিতে কাজ করছেন সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন চাঁদপুর জেলা শাখা কমিটি।

সংগঠনটির সভাপতি চাঁদপুর জেলা শাখা ও কেন্দ্রীয় সহ পরিচালক (প্রচার বিভাগ) এর দিক নির্দেশনায় সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মো. মনিরুজ্জামান মহসিন এর নের্তৃত্বে চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে এসব অসহায়দের খুঁজে বের করে মুখে আহার তুলে দিচ্ছেন সংগঠনের সদস্যরা।

১ মে চাঁদপুর রেল স্টেশন এলাকায় ৩০০ জন ভবঘুরে লোক, পাগল, ভিক্ষুক ও দুস্থদের মাঝে এক বেলার খাবার বিতরণ করেন।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে গরিব অসহায় মানুষের হাতে এসব খাবার তুলে দেন চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ বলেন, এটি নিঃসন্দেহে একটি মহতী উদ্যোগ। যুবকদের এ উদ্যোগের সঙ্গে সমাজের বিত্তবানরাও শামিল হতে পারেন।

তিনি বলেন, এ ধরনের উদ্যোগের মাধ্যমে অসহায়দের সেবা করার সুন্দর একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তারা।
এই সময় সংগঠনের সভাপতি চাঁদপুর জেলা শাখা ও কেন্দ্রীয় সহ পরিচালক (প্রচার বিভাগ) বলেন, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের থাবায় সবচেয়ে বেশি অসহায় হয়ে পড়েছে দিনমজুর ও শ্রমজীবি মানুষ। তবে তাদের সাহায্যার্থে মানবিকতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে পাশে আছেন সরকার, নামী-দামী মানুষ ও প্রতিষ্ঠান। কিন্তু বেওয়ারিশ অভুক্ত কুকুর, ভিক্ষুক, পাগল ও ভবঘুরে মানুষগুলোর কথা ভাবছেন কয়জন? এমনই প্রশ্ন তার।

সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মো. মনিরুজ্জামান মহসিন বলেন, করোনা আতঙ্কে সারা দেশে থেমে গেছে মানুষের কোলাহল। বন্ধ রয়েছে দোকানপাট, হোটেল, রেস্টুরেন্ট, বেকারি। এতে করে খাদ্য সংকটে পড়েছে পাগল, প্রতিবন্ধী, ভবঘুরে মানুষ ও বেওয়ারিশ কুকুরগুলো। কেননা হোটেল-বেকারির উচ্ছিষ্ট খাবার খেয়েই বেঁচে থাকে এ প্রাণীটি। আবার রাস্তায় যখন মানুষের চলাচল থাকে, বহু মানুষের ভিড়ে কেউ না কেউ এই অসহায় পাগলগুলোর মুখে খাবার তুলে দেন। তবে আজ সবই বন্ধ, তাই মানবিক কারণে করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে এই কাজে নামি।

আরও পড়ুন… কচুয়ায় ভাবির সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে দেবর এখন শ্রীঘরে

সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন হাজীগঞ্জ উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সিফাত বলেন, গত রমজানের শুরুতে জেলার বিভিন্ন এলাকায় সংগঠনের সদস্যদের অবস্থা দেখতে গিয়ে দেখেছি- হাট বাজারে পাগল, প্রতিবন্ধী ও কুকুরগুলো অনাহারে কাঁদছে, হন্যে হয়ে খাবার খুঁজছে। তখন অনুভব করলাম এদেরও ক্ষুধা আছে, খাবারের জন্য ওরা হাহাকার করছে। করোনায় যখন রাস্তায় কোন মানুষই নেই এই মুহূর্তে তাদের পাশে দাঁড়ানো খুবই জরুরী। তাই সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন চাঁদপুর জেলা শাখার মোটামুটি সচ্ছল সদস্যদের ও বিভিন্ন শুভাকাঙ্খীদের সহযোগিতায় আমরা এই কাজটি করছি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের জেলা সমন্বয়ক মোঃ ফয়সাল চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক মোঃ সোহাগ আহমেদ, আলো সম্পাদক মো মাসুম বিল্লাহ, চাঁদপুর সদর উপজেলার সভাপতি সাইদ হোসেন অপু চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক কে. এম. হাবিবুর রহমান রবি, কচুয়া উপজেলা শাখার আলো সম্পাদক মোঃ মাজহারুল, মতলব দক্ষিণ উপজেলা সভাপতি মো রাজীব আহমেদ, জেলা সদস্য মোঃ রবিউল চৌধুরী প্রমূখ।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুরে শুক্রবার ১১৫ নমুনায় ৩ জনের করোনা শনাক্ত

মাসুদ হোসেন : চাঁদপুরে নতুন করে ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। সনাক্তের হার ৩.১৫%। শুক্রবার …

Shares
vv