ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / ‘বিশ্ব ব্যাংককে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে’

‘বিশ্ব ব্যাংককে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে’

পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ তোলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে বিশ্ব ব্যাংককে মাফ চাইতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বলেছেন, ‘এর জন্য বিশ্বব্যাংককে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে মাফ চাইতে হবে। এ ব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া যায়।’ রোববার সংসদে অনির্ধারিত এক আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।

পদ্মা সেতুতে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার সময়ে আনিসুল হক দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান আইনজীবী ছিলেন। সে সময়কার স্মৃতিচারণ করেন তিনি।

আনিসুল হক জানান, বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধিরা নিজেরাই তদন্ত করতে চাইলে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের কথা উল্লেখ করে তা নাকচ করে দেন। তিনি বলেন, ‘আমার সঙ্গে মিটিং করে সেই রাতেই তারা বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টরের বাসায় কার কার সঙ্গে ডিনার করেছিলেন, তার বিস্তারিত আমার কাছে আছে।’

এ সময় সংসদ সদস্যরা তাদের নাম প্রকাশ করতে বললে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘বলব, বলব সবই বলব। আমার কাছে ডিটেইল আছে। এটা নাম বলার প্ল্যাটফর্ম না।’

সংসদে এ আলোচনার সূত্রপাত করেন জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ।

২০১৩ সালের জানুয়ারিতে এই প্রকল্পে বাংলাদেশের সঙ্গে ১২০ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি বিশ্বব্যাংক বাতিল করার পর দুর্নীতির ওই ষড়যন্ত্রে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন সেই সময়ের যোগাযোগমন্ত্রী আবুল হোসেন। অভিযোগ ছিল সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরীর বিরুদ্ধেও। তবে তাঁদের বিরুদ্ধেও দুর্নীতির কোনো তথ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে দুদকের পক্ষ থেকে সে সময় জানানো হয়।

পদ্মা সেতু প্রকল্পের কাজ পেতে কানাডীয় কোম্পানি এসএনসি-লাভালিন বাংলাদেশের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঘুষ লেনদেনের ষড়যন্ত্র করেছিল অভিযোগ করে অর্থ আটকে দেয় বিশ্বব্যাংক। পরে তাদের শর্তে এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়। কয়েকজন সিনিয়র সরকারি কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারও করা হয়। যোগাযোগমন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেন আবুল হোসেন।


আজকের প্রথম আলো প্রতিবেদক:

Facebook Comments

Check Also

কচুয়ায় পানিতে ডুবে এক বৃদ্বের মৃত্যু

মোঃ রাছেল, কচুয়া : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার বিতারা ইউনিয়নের মাঝিগাছা গ্রামের খালের পানিতে ডুবে কাউছার আহমেদ …

vv