ব্রেকিং নিউজঃ
Home / প্রিয় চাঁদপুর / বাল্যবিয়ে রোধে সকল শ্রেনী পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে- অতিরিক্ত সচিব নূরুল আমিন
ফরিদগঞ্জেরর বড়গাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়ার পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন অতিরিক্ত সচিব মো. নূরুল আমিন।

বাল্যবিয়ে রোধে সকল শ্রেনী পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে- অতিরিক্ত সচিব নূরুল আমিন

ফরিদগঞ্জের ৩নং সুবিদপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী বড়গাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও পুরস্কার বিতরনী সভা ৪ মার্চ ২০১৭ শনিবার সকাল ১১ ঘটিকায় উৎসব মুখর পরিবেশে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সম্পন্ন হয়েছে।

বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি প্রকৌশলী মাহমুদুল আমিন খানের সভাপতিত্বে, সহ – শিক্ষক আ. কাদের মামুনের পরিচালনায়, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাষ্টের ব্যবস্হাপনা পরিচালক ও শিক্ষা মন্তনালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. নূরুল আমিন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর জেলা ভারপ্রাপ্ত মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আবু ছালেহ, ৩নং সুবিদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাওলানা শরাফত উল্যাহ, ফরিদগঞ্জ এ,আর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রফিকুল আমিন কাজল, শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. আরিফুর রহমান, বড়গাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রফিক উল্যা, গল্লাক নোয়াব আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আ. হান্নান, আষ্টা মহামায়া পাঠশালা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. লোকমান হোসেন, মুন্সিরহাট জি এন্ড এ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহ – প্রধান শিক্ষক মো. ছিদ্দিকুর রহমান, বড়গাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি জহিরুল ইসলাম চৌধুরী, বড়গাঁও সপ্রাবির প্রধান শিক্ষক আবু বাকার মোল্লা, আইটপাড়া সপ্রাবির প্রধান শিক্ষক সফি উদ্দিন পাটওয়ারী, বড়গাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের বিদ্যুৎসাহী সদস্য জসিম উদ্দিন বাচ্চু, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আশরাফ খান আশু, আক্তার হোসেন মল্লিক, সাহাদাত হোসেন পাটওয়ারী, জাকির হোসেন চৌধুরী সহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক – শিক্ষিকা, অভিভাবক, ছাত্র – ছাত্রী ও এলাকার সূধী সমাজ।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বাল্য বিবাহ একটি সামাজিক ব্যাধি, বাল্য বিবাহ রোধে প্রত্যেক শ্রেনী পেশার মানুষ স্ব -স্ব অবস্থান থেকে দায়িত্ব নিলে বাল্য বিবাহ নামক ব্যাধি আমাদের সমাজ থেকে মুছে যাবে।

তিনি আরো বলেন, মাধক একটি মরন ব্যাধি, এ ব্যাধির কারনে আমাদের যুব সমাজ আজ বিপদগামী। আমরা অভিভাবকরা সন্ধা হলে যেমন গরু গোয়াল ঘরে নেই, হাঁস মুরগী খামারে নেই, তেমনি আমরা কি একবারও খোঁজ রাখি যে আমার সন্তান কোথায়। তাই প্রত্যেক অভিভাবকরা নিজেদের সন্তানের প্রতি দায়িত্ববান হউন, পাশাপাশি সমাজের দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা সমন্বিত ভাবে দায়িত্ব নিলেই মাধক আমাদের সমাজে থেকে চিরতরে বিলীন হয়ে যাবে।


ফরিদগঞ্জ প্রতিবেদক

Facebook Comments

Check Also

রামপুরে শিক্ষামন্ত্রীর স্বামীর সুস্থতা কামনায় ইউনিয়ন আ’লীগের দোয়া

মাসুদ হোসেন : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী আলহাজ্ব ডাঃ দীপু মনি …

vv