ব্রেকিং নিউজঃ
Home / জনপ্রতিনিধি / বালিয়ায় করোনাকালীন ঝুঁকি নিয়ে জনগণের পাশে চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম

বালিয়ায় করোনাকালীন ঝুঁকি নিয়ে জনগণের পাশে চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম

সজীব খান : চাঁদপুর সদর উপজেলার বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ তাজুল ইসলাম করোনাকালীন সময়ে ও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের পাশে থেকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে শুরু থেকে এ পর্যন্ত কাজ যাচ্ছেন। সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন স্থানীয় প্রশাসনের এ জনপ্রতিনিধি। সরকারের সব নির্দেশনা পালনে প্রথম থেকেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে চলেছেন।

করোনা প্রতিরোধে কাজ করে এক অনন্য দৃষ্টাস্ত স্থাপন করেছেন তিনি। এ ভাইরাস সংক্রমন রোধ ও সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সচেতনতা সৃষ্টি, প্রবাস ফেরত ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা, স্বাস্থ্য সচেতনতায় প্রথম থেকেই ইউনিয়নের প্রত্যন্ত এলাকায় অভিযান অব্যাহত রেখেছেন।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি আতংকে পরিণত হওয়ার সাথে সাথে ইউপি চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের হাট-বাজার, গ্রামীন জনগুরুত্বপূর্ণ স্থান ও বিভিন্ন সড়ক-উপসড়কে মাইকিং করে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার শুরু করেছেন। করোনার তৃতীয় ঢেউ কমাতে মানুষকে আতংকিত না হয়ে এখন পর্যন্ত সচেতন হওয়ার জন্য দিক নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন।

তাজুল ইসলাম করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে সার্বক্ষনিক খোঁজ খবর নিচ্ছেন এবং ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রান্তে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা পালনসহ ইউনিয়নের প্রতিটি মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতে সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করে যাচ্ছেন। ইউনিয়নের কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষের মাঝে সরকারী সহায়তার পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগেও নগদ অর্থ ও ত্রাণ সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছেন। মানবতার ফেরিওয়ালা মত জনসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিচ্ছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে ইউনিয়নের হাট-বাজারে আগত মানুষদের মাঝে তিনি করোনার প্রথম থেকে এ পর্যন্ত মাস্ক বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন।

ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ জানান, তাজুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই জনপ্রতিনিধিদের সাথে সমন্বয় করে রাত-দিন ইউনিয়নবাসীর জন্য নিবেদিত প্রাণ হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। এমন নিষ্ঠাবান-কর্মঠ ও মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন চেয়ারম্যান অতীতে খুব কম পেয়েছে। করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় তিনি বালিয়াতে যে ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন তাও নজিরবিহীন। তাঁর কর্মকান্ডে মনে হচ্ছে তিনি কেবল চেয়ারম্যান নন, ইউনিয়নের একজন সচেতন অভিভাবকও।

ইউপি চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম জানান, আমি ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে জনগণের একজন সেবক হিসেবে অর্পিত দায়িত্ব পালন করছি মাত্র। করোনা পরিস্থিতিতেও সরকারি নির্দেশনা মতে কাজ করে যাচ্ছি। চলমান করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় অনেক জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি, পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তা ও সাংবাদিকসহ অনেকে সার্বিক সহাযোগিতা দিয়ে যাচ্ছেন। এজন্য তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

Facebook Comments

Check Also

অনিদ্রার কারণ ও প্রতিকার

: হাকীম মিজানুর রহমান : অনিদ্রা একটি রোগ, এটি হয়তো সবাই জানেন না। অনিদ্রা থেকে …

Shares
vv