ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / ফরিদগঞ্জ পৌর নির্বাচনে দুই মনোনয়ন প্রত্যাশী একই মঞ্চে!

ফরিদগঞ্জ পৌর নির্বাচনে দুই মনোনয়ন প্রত্যাশী একই মঞ্চে!

এস.এম ইকবাল : আসন্ন পৌরসভা নির্বাচন সামনে রেখে ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড. জাহিদুল ইসলাম রোমানের বিশ্বস্ত সহোচর পৌরসভার সম্ভাব্য দুই মেয়র প্রার্থী জেলা পরিষদ সদস্য সাইফুল ইসলাম রিপন ও পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আকবর হোসেন মনিরের উদ্যোগে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডস্থ মীরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ফরিদগঞ্জ বাজারের প্রবীন ব্যবসায়ী শহীদ হোসেন সভাপতিত্বে, এ সময় প্রধান অতিথি বক্তব্য রাখেন সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী সাইফুল ইসলাম রিপন, আকবর হোসেন মনির, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক কামরুজ্জামান সবুজ, ৩ নং ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি জাকির হোসেন, পৌর যুবলীগ নেতা আরিফ বেপারী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শাকিল পাঠান, ফয়সাল ভূঁইয়া, ১৪ নং যুবলীগ নেতা সাহেদ সুমন, পৌর যুবলীগ নেতা জসিম উদ্দিন, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ হোসেন মুন্না, রেদোয়ান, আল-আমিন, আরিফুল ইসলাম, শান্ত, মাহাবুবসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় মেয়র প্রার্থী সাইফুল ইসলাম রিপন ও আকবর হোসেন মনির বলেন, আমরা পরিচ্ছন্ন রাজনীতির মাধ্যমে আধুনিক ফরিদগঞ্জ গঠন করতে চাই, আমাদের মধ্যে কোন বিবেধ নেই, তবে প্রতিযোগিতা রয়েছে। আমাদের অভিভাবক এড. জাহিদুল ইসলাম রোমান ভাইয়ের যাকে নির্দেশ দিবে আমরা সকলে তার হয়ে কাজ করবো।

Facebook Comments

Check Also

ফরিদগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচী ধর্ষণ,  ধর্ষণের ভিডিও পাঠিয়ে টাকা দাবী

এস.এম ইকবাল: চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার চরদু:খিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের বিষকাঁটালী গ্রামে ভাতিজা কর্তৃক চাচীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে, সেই ধর্ষণের ভিডিও মোবাইলে ধারন করে সৌদিপ্রবাসী স্বামীর কাছে পাঠিয়ে অর্থ দাবী করার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেছে ভূক্তভোগী। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত রিয়াদ নামে এক যুবককে আটক করে আদালতে প্রেরণ করেছে। থানায় দায়েরকৃত মামলা অনুযায়ী জানাযায়, ওই ইউনিয়নের চৌকিদার বাড়ির সৌদি আরব প্রবাসী মোস্তফা কামালের স্ত্রী শারমিন আক্তারকে একই বাড়ির শফিকুর রহমানের প্রবাস ফেরত ছেলে রিয়াদ হোসেন ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষন করে, অবৈধ শারিরিক সর্ম্পকের একটি ভিডিও মুঠো ফোনে ধারণ করে রিয়াদ নিজেই। পরে সে নিজেই শারমিনের স্বামীর কাছে সেই ভিডিও চিত্র ও ছবি পাঠিয়ে অর্থ দাবী করে। পরে শারমিন বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় সোমবার লিখিত অভিযোগ করেন। পুলিশ অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণ করে অভিযুক্ত রিয়াদকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই কাজী মো: জাকারিয়া জানান, মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এছাড়া ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা ও আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি নেয়া হয়েছে। Facebook Comments

vv