ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / ফরিদগঞ্জে ১ কিলোমিটার সড়কের বেহাল দশা, ধানের চারা লাগিয়ে বিক্ষোভ

ফরিদগঞ্জে ১ কিলোমিটার সড়কের বেহাল দশা, ধানের চারা লাগিয়ে বিক্ষোভ

এস এম ইকবাল : ফরিদগঞ্জে ৫ গ্রামের প্রায় ৫ হাজার লোকের যাতাায়াতের একমাত্র সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় এলাকাবাসী নিদারুন কষ্ট উপেক্ষা যাতাায়াত করছে হচ্ছে। প্রতিবাদ স্বরুপ  রাস্তায় ধানের চারা লাগিয়ে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।
সরজমিনে দেখা যায়, উপজেলার পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের  দায়চারা, ইছাপুরা, রামদাসেরবাগ, চৌমূখা ও সাহাপুর গ্রামের প্রায় ৫ হাজার সাধারণ জনগন প্রতিনিয়ত  এ দিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে।  অল্প বৃষ্টি হলেই রাস্তায় পানি জমে হাঁটু পরিমান কাঁদায় রুপান্তরিত হয়।  তাছাড়া  ইউনিয়নের দক্ষিণ- পূর্বাঞ্চলের জনগন এ কর্দমাক্ত ও খানাখন্দ  ডিঙ্গিয়ে ইউনিয়ন পরিষদসহ উপজেলা সদরের সাথে যাতায়াতের  মাধ্যম হিসেবেই  জনগণ দীর্ঘদিন  এই সড়কটিই ব্যবহার করে আসছে।
এ দিকে এই অঞ্চলের সাহাপুর দাখিল মাদ্রাসা, রামদাসেরবাগ আলিম মাদ্রাসা, ইছাপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইছাপুরা নূরানী মাদ্রাসা, দায়চারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পাইকপাড়া ইউজি উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়ুয়া কোমলমতি ছাত্র- ছাত্রীরা ও যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম হিসেবেই এ সড়কটি ব্যবহার করে আসছে। যাহা সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে।
১৬ জুন (মঙ্গলবার) বিকেলে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা ও এলাকাবাসী উক্ত সড়কের বিভিন্ন স্থানে ধানের চারা রোপন করে বিক্ষোভ করেছে।

এ বিিষয়ে  চাঁদপুর সরকারি কলেজে পড়ুুয়া শিক্ষার্থী নূরুল ইসলাম তারেক বলেন, র্দীঘদিন থেকে দেখে আসছি রাস্তাটি শুধু মাপযোগ হচ্ছে পাঁকার কোন খবর নাই। রাস্তাটি পাঁকা হওয়া খুব জরুরি। ধানের চারা লাগিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছি। জনপ্রতিনিধিরা শুধু ভোটের প্রয়োজনে  জনগনের কাছে, নাগরিক সেবায় তারা জনগণের কোন খবর রাখে নাা।

পাইকপাড়া ইউজি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জীবন, শাম্মি, খেলাফত, রহমান জানায়,  বৃষ্টি হলেই এই রাস্তা দিয়ে স্কুলে যাওয়া যায় না। হাাঁটু পরিমান  কাঁদা এবং রাস্তায়  পানি জমে যায়। তার পরেও রাস্তা বাদ দিয়ে অন্যের বাড়ি দিয়ে বিদ্যালয়ে যেতে হয়। অনেক সময় মানুষের গালমন্দ শুনতে৷ হয়।

রিক্সাচালক বাচ্চু শেখ বলেন,  এহনও বর্ষা শুরু অয় না,  তাতেই রাস্তার  এই অবস্থা। সরকার দেশে অনেক উন্নয়ন করছে,  আমরা আশা করি  আমাদের দুঃখ দূূূূর্দশা লাগবে এই রাস্তাটি অচিিরেই পাঁকা করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট  কতৃপক্ষ দ্রুত ব্যবস্থা নিবেন।

ইছাপুরা গ্রামের ব্যবসায়ী সাদ্দাম হোসেন মিঠুন বলেন, দেশে অনেক উন্নয়ন হয়েছে। ফরিদগঞ্জ অনেক এলাকার রাস্তা পাকা হয়েছে যে গুলো রাস্তায় মানুষ চলাচল করে না।  অথচ  এই৷ রাস্তাটি    জনবহুল হওয়া সত্ত্বেও পাঁকা হচ্ছে না। এলাাকাবাসীর প্রানের দাবী রাস্তাটি দ্রুত পাকা  করলে, এলাকাবাসীর দুর্ভোগ লাগব হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী জানায়,  স্থানীয় চেয়ারম্যানের বাড়ি এ সড়কেই।  তিনি রাস্তার বেহাল অবস্থার কারণে  রুপসা বাজার অথবা কড়ৈতলী বাজার হয়ে পরিষদে আসে।  এ বিষয়ে এলাকাবাসী উনাকে বারবার বললেও তিনি কোন কর্নপাত করেনি।
এ বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্যেেের  ইউনিয়ন প্রতিনিধি মোহাম্মদ হোসেন মিন্টু পাটওয়ারী বলেন, এ রাস্তা ইউনিয়নবাসীর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  অল্প বৃষ্টিতেই পানি ও কাদায় একাকার হয়ে যায়।  এ সড়কটি দিয়ে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার সাধারন জনগনসহ স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার পড়ুয়া কোমলমতি ছাত্র- ছাত্রী এবং এলাকার সাধারন মানুষ উপজেলা সদরের যোগাযোগের  একমাত্র মাধ্যম এ সড়কটি।  গত কয়েক মাস পূর্বে  সরকারি বরাদ্দ আসলেও স্থানীয়  ইউপি চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তার অনিয়মের কারণে  এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তা বন্ধ হয়ে যায়।  এহেন অবস্থায় জনস্বার্থে রাস্তাটি পাকা করনে সংশ্লিষ্ট বিভাগের সু- দৃষ্টি কামনা করছি।
এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে আপনাদের ( সংবাদ কর্মীদের) অন্য কোন কাজ নেই? একথা বলেই ফোন কেটে দেয়।
Facebook Comments

Check Also

হাইমচরে দেশীয় অস্ত্রসহ ৬ ডাকাতকে আটক করেছে নৌ-পুলিশ

মোঃ সাজ্জাদ হোসেন রনি, হাইমচর : চাঁদপুর জেলার হাইমচর উপজেলায় নীলকমল নৌ-পুলিশের ইনচার্জ আবদুল জলিলের …

vv