ব্রেকিং নিউজঃ
Home / প্রিয় চাঁদপুর / পুরাণবাজার দোকানঘর এলাকায় অগ্নিকান্ডে পুড়ে গেছে ৬ দোকান

পুরাণবাজার দোকানঘর এলাকায় অগ্নিকান্ডে পুড়ে গেছে ৬ দোকান

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে জেলা প্রশাসক, পৌর মেয়র, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও স্থানীয় এমপির পক্ষে নেতৃবৃন্দ

চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার জাফরাবাদ এমদাদিয়া মাদ্রাসার সামনে চাঁদপুর-হাইমচর সড়কের দোকানঘর এলাকায় আকস্মিক অগি্নকান্ডে  ছোট-বড় ৬টি দোকান মালামালসহ পুড়ে গেছে। রোববার দিবাগত রাত সোয়া বারটায় আগুন লাগার এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন চাঁদপুর দক্ষিণ ও উত্তরের দুটি ইউনিট দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় একঘণ্টার চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আনুমানিক ২০/২৫ লাখ টাকা হবে বলে সদর উপজেলার ইব্রাহিমপুর ইউপির ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার সেলিম বেপারী ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা নিলু হাওলাদার ক্ষতিগ্রস্তদের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন।

চাঁদপুর দক্ষিণ ফায়ার স্টেশনের টিম লিডার মোঃ ইসমাইল হোসেন জানান, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এদিকে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছেন জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র নাছির উদ্দিন আহম্মেদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারী এবং স্থানীয় এমপি ডাঃ দীপু মনির পক্ষে দলীয় নেতৃবৃন্দ।

প্রত্যক্ষদর্শী দোকানঘরের নুরুল ইসলাম পাটওয়ারী, জাকির সর্দার ও ইউপি সদস্য সফিক আখন জানান, সফিক গাজীর বিল্ডিংয়ের উত্তর পাশের দোকানে আগুন লেগে ১৫/২০ মিনিটের মধ্যে দেখি আগুনের লেলিহান শিখা। মুহূর্তের মধ্যে পাশের দোকানেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আগুনের তাপে দোকানগুলোর সামনে কেউ যেতে পারে নি। একের পর এক দোকান জ্বলতে ছিলো। তখন আগুন আগুন চিৎকারে আশপাশের বাড়ির মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে আসে। এ পরিস্থিতি দেখতে পেয়ে মুক্তিযোদ্ধা ও ব্যাংকার মুজিবুর রহমান পুরাণবাজার ফাঁড়ি পুলিশের মাধ্যমে ফায়ার স্টেশনে আগুন লাগার বিষয়টি জানান। পরে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন চাঁদপুর দক্ষিণ ও উত্তরের দু’টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভানোর কাজে লেগে যায়।

খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানার এসআই কামরুল হাসান, স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শামীমসহ সঙ্গীয় ফোর্স দুর্ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আইনশৃঙ্খলার দায়িত্ব পালন করেন।

ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন : মমিন শেখের লন্ড্রি দোকান, সুলতান গাজী ও মোহাম্মদ শেখের মুদি দোকান, রহিম শেখ ও শাহআলমের চা-স্টেশনারী দোকান এবং মাহমুদ ছৈয়ালের তরকারির দোকান। এসব দোকানের কোনো কিছুই রক্ষা পায় নি। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় সুলতান গাজীর মুদি দোকান। এ দোকানের প্রায় ৮/৯ লাখ টাকার মুদি মালামাল পুড়ে যায় বলে সুলতান গাজীর ছেলে রাসেল গাজী জানিয়েছেন।

এদিকে এ দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গতকাল সোমবার সকালে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহম্মেদ ঘটনাস্থলে যান। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত দোকানিদের সান্ত্বনা দিয়ে তাদের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল আগুনে পুড়ে যাওয়া দোকানগুলো দেখে ক্ষতিগ্রস্ত দোকানিদের সান্ত্বনা দেন এবং তাদের প্রত্যেককে এক বান্ডেল করে ঢেউটিন ও নগদ ৩ হাজার টাকা করে দেয়ার আশ্বাস দেন। তাঁর সাথে ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ আবদুল হাই। এছাড়া জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারীও ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করে ভুক্তভোগীদের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। এদিকে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডাঃ দীপু মনি দেশের বাইরে থাকায় তাঁর পক্ষে সদরের ভারপ্রাপ্ত ইউএনও অভিষেক দাশ, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী ও সদর উপজেলার পিআইওসহ একটি প্রতিনিধি দল দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

সূত্র: দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠ

Facebook Comments

Check Also

রামপুরে শিক্ষামন্ত্রীর স্বামীর সুস্থতা কামনায় ইউনিয়ন আ’লীগের দোয়া

মাসুদ হোসেন : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী আলহাজ্ব ডাঃ দীপু মনি …

vv