ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / পুরাণবাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু

পুরাণবাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু

চাঁদপুর শহরের পুরান বাজার এলাকায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইভা আক্তার (৯) বছরের এক স্কুল ছাত্রীর করুণ মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় তার বড় বোন মিথিলা আক্তার (১৪) গুরুতর আহত হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ৯ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকেলে পুরান বাজার নিতাইগঞ্জ (কুলি বাগান) এলাকার দুলাল মিয়ার বাস ভবনে।

নিহত ইভা আক্তার পুরান বাজার মার্চেন একাডেমির ৩য় শ্রেণির ছাত্রী, এবং মিথলা আক্তার মধুসুধন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। তারা দু’জন চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের অফিস সহায়ক মনির হোসেনের মেয়ে। তাদের পরিবারের লোকজন জানায় বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের ছোট ভাইয়ের সুন্নতে খাতনা অনুষ্ঠান করার জন্য বাসার ৩য় তলার ছাদে মেহেমানদের খাওয়া দাওয়ার আয়োজন করা হয়। আয়োজন শেষে তারা দু’বোন খেলা ধুলা করতে ছাদে উঠেন।

এসময় তারা ছাদের পাশে থাকা ১১ হাজার বোল্ডের বিদ্যুৎতের তারে হাত দিলে দু’জনই বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠ হয়ে গুরুতর ভাবে আহত হয়। পরিবারের লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক ইভা আক্তারকে মৃত ঘোষনা করেন। এমন ঘটনার কথা শুনে ওই এরাকায় গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে। নিহত ইভার পিতা মনির হোসেন আরো জানান পুরান বাজারের ব্যবসায়ী বিল্লাল পাটওয়ারীর উট মার্কা লবন ও বরফ কারখানার জন্য ১১ হাজার বোল্ডের এ লাইনটি সরানোর জন্য বেশ কয়েকবার বলা হলেও তারা লাইনটি বাসার কাছ থেকে সরিয়ে নেননি। এমনকি ওই তার গলোকে প্লাস্টিকের কভার দিয়ে মুড়ানো হয়নি। তাদের গাফলতির কারনেই তার মেয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন। এ ব্যাপারে বিল্লাল পাটওয়ারীর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, কারখানর জন্য আমরা যে লাইনটি টেনেছি তা ঠিক আছে। বরং তারাই সরকারি জায়গায় বিল্ডিং তৈরি করেছে।


চাঁদপুর প্রতিবেদক

Facebook Comments

Check Also

ফরিদগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচী ধর্ষণ,  ধর্ষণের ভিডিও পাঠিয়ে টাকা দাবী

এস.এম ইকবাল: চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার চরদু:খিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের বিষকাঁটালী গ্রামে ভাতিজা কর্তৃক চাচীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে, সেই ধর্ষণের ভিডিও মোবাইলে ধারন করে সৌদিপ্রবাসী স্বামীর কাছে পাঠিয়ে অর্থ দাবী করার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেছে ভূক্তভোগী। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত রিয়াদ নামে এক যুবককে আটক করে আদালতে প্রেরণ করেছে। থানায় দায়েরকৃত মামলা অনুযায়ী জানাযায়, ওই ইউনিয়নের চৌকিদার বাড়ির সৌদি আরব প্রবাসী মোস্তফা কামালের স্ত্রী শারমিন আক্তারকে একই বাড়ির শফিকুর রহমানের প্রবাস ফেরত ছেলে রিয়াদ হোসেন ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষন করে, অবৈধ শারিরিক সর্ম্পকের একটি ভিডিও মুঠো ফোনে ধারণ করে রিয়াদ নিজেই। পরে সে নিজেই শারমিনের স্বামীর কাছে সেই ভিডিও চিত্র ও ছবি পাঠিয়ে অর্থ দাবী করে। পরে শারমিন বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় সোমবার লিখিত অভিযোগ করেন। পুলিশ অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণ করে অভিযুক্ত রিয়াদকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই কাজী মো: জাকারিয়া জানান, মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এছাড়া ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা ও আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি নেয়া হয়েছে। Facebook Comments

vv