ব্রেকিং নিউজঃ
Home / প্রশাসন / পরিবহন মালিক সংগঠনের সাথে চাঁদপুর পুলিশ সুপারের মতবিনিময়

পরিবহন মালিক সংগঠনের সাথে চাঁদপুর পুলিশ সুপারের মতবিনিময়

পবিত্র রমজান ও ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে পরিবহন ( বাস, লঞ্চ ও সিএনজি) মালিক, শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা ও সুশীল সমাজের সাথে এক মতবিনিময় সভা চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

চাঁদপুর পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার এর সভাপতিত্বে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফজাল হোসেন এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর চেম্বার অফ কমার্সের সভাপতি সুভাস চন্দ্র রায় , অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান, মনজিল হোসেন সহকারী পুলিশ সুপার কচুয়া চাঁদপুর, জেলা ক্যাব সভাপতি জীবন কানাই চক্রবর্তী, চাঁদপুর বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান, বিআরটিএর সহকারী পরিচালক ইমরান হোসেন, মোঃ মোস্তফা কামাল ওসি ডিবি চাঁদপুর, মোঃ মহিউদ্দিন মিয়া পুলিশ পরিদর্শক ডিবি চাঁদপুর, টিআই দেলোওয়ার হোসেন চাঁদপুর, ওসমান পাঠান অফিসার ইনর্চাজ চাঁদপুর রেলওয়ে থানা, মুহাম্মদ হোসেন মজুমদার ষ্টোশন মাষ্টার চাঁদপুর রেলওয়ে, আব্দুর রশিদ পুলিশ পরির্দশক ইনর্চাজ পুরাণ বাজার ফাড়ি, মোঃ আনোয়ারুল হক পুলিশ পরিদর্শক পুলিশ লাইন আরআই, মোঃ মনিরুজামান ডিআইও-১ চাঁদপুর, জেলা কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক সুফী খায়রুল খোকন, সদর পুলিশ পরিদর্শক আব্দুর রহমান, ওসি তদন্ত সদর মাহাবুব মন্ডল , মোঃ নাছির উদ্দিন ভূইয়া টিআই মডেল থানা চাঁদপুর, শ্রমিক নেতা হারুন মাষ্টার, কার্গো ট্রলার বলগেট শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর সরর্দার, আলী আজগর সুপার বাইজার ময়ূর, মোঃ সফিউল্লাা সভাপতি কুমিল্লা ট্রেঙ্ক লরি মালিক সমিতি, মফিজ উদ্দিন সরকার সাধারণ সম্পাদক জেলা সড়ক কমিউনিটি পুলিশ চাঁদপুর, মোঃ রিপন প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সিএনজি শ্রমিক ইউনিয়ন, মোঃ আনোয়ার হোসেন মুন্সি সাধারণ সম্পাদক চাঁদপুর জেলা বাস মালিক সমিতি, আলহাজ্ব শাহির পাটোয়ারী সহ-সভাপতি বাস মালিক সমিতি, রুহুল আমিন হাওলাদার, ইউসুফ আলী বেপারীসহ আরো অনেকে।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়। যেমন প্রতিটি লঞ্চের সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করতে হবে। লঞ্চ ঘাটে পর্যাপ্ত পরিমানে আলোর ব্যবস্থা করতে হবে। সিএনজিগুলোকে সাড়িবদ্ধ ভাবে যাত্রী নিতে হবে। ঈদের ৩দিন পূর্বে ও ৩দিন পরে লঞ্চ ঘাটের রাস্তাটি ওয়ানওয়ে করা হবে। শহরের যানযট নিরশনের লক্ষ্যে যাত্রীবাহী লঞ্চগুলোকে ইচলি থেকে আগমন ও নির্গমন করার জন্য পরার্মশ দেওয়া হয় সে জন্য ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ব্রিজের নিচে দিয়ে লঞ্চ সচরাচর চলাচল করতে পারবে কী না আগামী ৩দিনের মধ্যে তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিল করিবেন। ঈদের আগে ৭ দিন এবং ঈদের পরের ৭দিন। নৌ-পথে কোনো ধরনের বালিবাহী বলগেট চলাচল করিতে পারিবে না।

ঘাটে সবসময় স্বেচ্ছাসেবক টিম উপস্থিত থাকবে। পল্টুনকে সম্পূর্ণ হকার মুক্ত রাখা হবে। নৌকা দিয়ে কোনো প্রকার যাত্রী উঠা নামা করিতে পারবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে একটি বড় ইঞ্জিন চালিত নৌকা রাখিতে পারবে। লঞ্চে অতিরিক্ত যাত্রী বহন করিতে পারিবে না। ঘাটে কুলি/লেভার দ্বারা সাধারণ যাত্রীর হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গিয়াছে প্রশাসনকে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। বিআইডব্লিউটিএ পার্কিং ইয়ার্ডের প্রতি গাড়ি প্রতি বার ১০টাকা নেওয়া হয় অনেকে অভিযোগ করেন রশিদ বিহীন বিগত দিনগুলোতেও এই অভিযোগ পাওয়া গিয়াছিল। তাই বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তাকে এই বিষয়টি শক্ত হাতে দমন করার জন্য বলা হয়েছে। সভাপতি তার বক্তব্য দিয়ে আলোচনা সভা শেষ করেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

Facebook Comments

Check Also

কচুয়া ইউএনওকে নিয়ে স্ট্যাটাস দেওয়ায় আইসিটি আইনে মামলা

মোঃ রাছেল, কচুয়া : চাঁদপুরের কচুয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপায়ন দাস শুভ’র আচার-আচরন নিয়ে জনৈক গাজী …

vv