ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / দৈনিক অন্যদিগন্ত সম্পাদক মাসুদকে হুমকি; নিরাপত্তা চেয়ে থানায় ডায়েরি

দৈনিক অন্যদিগন্ত সম্পাদক মাসুদকে হুমকি; নিরাপত্তা চেয়ে থানায় ডায়েরি

সাংবাদিক নির্যাতন, হয়রানী, হুমকি যেন নিত্যদিনের রুটিনে পরিণত হয়েছে। সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় পার পেয়ে যাচ্ছেন অপরাধীরা। চলমান হুমকি ধমকির মধ্যেই আটকে নেই সাংবাদিকরা। এমনকি জীবননাশের হুমকি মাথায় নিয়েই পরিবার পরিজন নিয়ে দিনানিপাত করতে হয় তাদের।

এমনই জীবননাশের আশঙ্কায় থাকা ‘দৈনিক অন্যদিগন্ত’ সম্পাদক ও সাংবাদিক মোহাম্মদ মাসুদ গত ৯ জুন শুক্রবার রমনা মডেল থানায় নিরাপত্তা চেয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। যার নাম্বার ৫৮৪। তিনি তার সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করেছেন, ‘মোঃ সাহেদ করিম ওরফে মোঃ সাহেদ, পিতাঃ সিরাজুল করিম, মাতাঃ মরহুমা সাপিয়া করিম, চেয়ারম্যান রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল। ফেসবুক আইডি Md Shahed এ আমার সম্পর্কে বিভিন্ন মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য লিখে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করেছে।

এতে আমি, আমার সন্তান ও পরিবার নিয়ে আতংকের মধ্যে দিনযাপন করছি। এমতাবস্থায় আমি আমার পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে পারছিনা।’ ডায়েরিতে আরো উল্লেখ করেন, ‘মোঃ সাহেদ ও তার সহযোগীরা আমার নামে মিথ্যা মামলা দেয়া কিংবা আমাকে হত্যা সহ যে কোন বড় ধরণের ক্ষতি সাধন করতে পারে।’

সম্পাদক মাসুদ আমাদের প্রতিবেদককে বলেন, ‘অফিস তথা বাসা কোথাও সুস্থভাবে থাকতে পারছিনা। সাহেদ ও তার লোকজন দিয়ে প্রতিনিয়ত হুমকি দিয়ে যাচ্ছে’। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে অবশেষে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন বলে তিনি জানান।

প্রতিবেদন: প্রিয় চাঁদপুর রিপোর্ট

Facebook Comments

Check Also

ফরিদগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচী ধর্ষণ,  ধর্ষণের ভিডিও পাঠিয়ে টাকা দাবী

এস.এম ইকবাল: চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার চরদু:খিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের বিষকাঁটালী গ্রামে ভাতিজা কর্তৃক চাচীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে, সেই ধর্ষণের ভিডিও মোবাইলে ধারন করে সৌদিপ্রবাসী স্বামীর কাছে পাঠিয়ে অর্থ দাবী করার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেছে ভূক্তভোগী। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত রিয়াদ নামে এক যুবককে আটক করে আদালতে প্রেরণ করেছে। থানায় দায়েরকৃত মামলা অনুযায়ী জানাযায়, ওই ইউনিয়নের চৌকিদার বাড়ির সৌদি আরব প্রবাসী মোস্তফা কামালের স্ত্রী শারমিন আক্তারকে একই বাড়ির শফিকুর রহমানের প্রবাস ফেরত ছেলে রিয়াদ হোসেন ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষন করে, অবৈধ শারিরিক সর্ম্পকের একটি ভিডিও মুঠো ফোনে ধারণ করে রিয়াদ নিজেই। পরে সে নিজেই শারমিনের স্বামীর কাছে সেই ভিডিও চিত্র ও ছবি পাঠিয়ে অর্থ দাবী করে। পরে শারমিন বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় সোমবার লিখিত অভিযোগ করেন। পুলিশ অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণ করে অভিযুক্ত রিয়াদকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই কাজী মো: জাকারিয়া জানান, মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এছাড়া ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা ও আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি নেয়া হয়েছে। Facebook Comments

vv