ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / দেশজুড়ে ফুলের মহাবাণিজ্য

দেশজুড়ে ফুলের মহাবাণিজ্য

ফাল্গুন আর ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী ফুলের মহাবাণিজ্যের আয়োজন চলছে। প্রতি বছরই এ সময়টার জন্য অপেক্ষায় থাকেন ফুল ব্যবসায়ীরা। দুদিনের বাণিজ্য ধরতে ফুল ব্যবসায়ীরা লাখ লাখ টাকার ফুল সংরক্ষণ করেছেন। কারণ এই সময়টাতে পাইকারি বাজারে তিন টাকার ফুল বিশ টাকায়ও বিক্রি হয়। আর খুচরা বাজারে ৫০ থেকে ৭০ টাকায়ও বিক্রি হয়।

রোববার রাজধানীর শাহবাগ, ফার্মগেট, আগারগাঁওসহ বেশ কয়েকটি বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ফুলের বিক্রি বেড়েছে অন্যান্য দিনের তুলনায় কয়েকগুণ। সারাদেশ থেকে ট্রাকে ট্রাকে ফুল আসছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, এবার বাণিজ্য একটু বেশি হবে। রাজনৈতিক অস্থিরতা ও প্রাকৃতিক কোনো দুর্যোগ না থাকায় এবার ব্যবসায় কোনো সমস্যা হবে না। মানুষের মনমানসিকতাও ভালো। তাই রমরমা বাণিজ্য হবে।

শাহবাগের বটতলার ফুল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, এবার মানুষের মধ্যে আনন্দ-উল্লাস একটু বেশি। দেশের সার্বিক পরিবেশও ভালো। এবার শুধু শাহবাগেই কয়েক কোটি টাকার বাণিজ্য হবে, যা গতবাবের চেয়ে অবশ্যই বাড়বে বলে আশা করছি।

জানা গেছে, শাহবাগের বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী প্রচুর ফুল সংরক্ষণ করেছেন। এর মধ্যে কালাম আজাদ ফুল স্টোর এক লাখ, বৃষ্টি ভিআইপ ফুল বিতান ৮০ হাজার, চুমকি ফুল বিতান ৬০ হাজার ফুল সংরক্ষণ করছে। এছাড়া অন্য ব্যাবসায়ীরাও সংরক্ষণ করেছেন বলে জানিয়েছেন।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পহেলা ফাল্গুন খোঁপায় তাজা ফুল গোজে না এমন তরুণী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। এছাড়া সঙ্গীর মন পেতে একটি ফুলের বিকল্প নেই। তাই এ দুদিন ফুল বিক্রির হার বছরের যেকোনো সময়ের চেয়ে অন্যতম উচ্চতায় পৌঁছায়। নগরজীবনে এ দুটি দিবসে ফুলের গুরুত্ব থাকে একটু বেশি। দিবস পালনে ফুল হয়ে উঠেছে প্রধান আকর্ষণ।

জানা গেছে, সারাদেশের খুচরা বিক্রেতারা শাহবাগ, ফার্মগেট ও আগারগাঁওয়ে অবস্থিত ফুলের পাইকারি মার্কেট আসেন এদিন উপলক্ষে। প্রতিদিন শুধু রাজধানীর পাইকারি বাজারে ৩০ থেকে ৩৫ লাখ টাকার ফুল কেনাবেচা হয়। আর বিশেষ দিবসে যেমন পহেলা ফাল্গুন ও ভালোবাসা দিবসে ৮ থেকে ১০ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়। তবে দেশব্যাপী সমিতির অধীনে আরও ছয় হাজার ফুলের দোকান রয়েছে। সব মিলিয়ে ২০-৩০ কোটি টাকার ফুল বাণিজ্য হয়।

শাহবাগের পাইকারি বাজারের ফুল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন বলেন, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার বেশি ব্যবসা করার পরিকল্পনা নিয়ে পসরা সাজিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। শাহবাগে রাজধানীর সবচেয়ে বড় ফুলের বাজার। এখানে রয়েছে ৫১টি পাইকারি ফুলের দোকান। খুচরা আরও ১০০টি। এবারের বসন্ত দিবস ও ভালোবাসা দিবসে ঢাকায় যে কয়েক কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে, এর সিংহভাগই শাহবাগে। রাজধানীজুড়ে হাজারের বেশি ফুল ব্যবসায়ী রয়েছেন।

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পাইকারি বাজারে প্রতিটি গোলাপ ১২ থেকে ১৮ টাকা, জারবেরা ১৫ থেকে ১৮, গ্লাডিওলাস ৭ থেকে ১৪ ও রজনীগন্ধা ৬-৮ টাকা দরে বেচাকেনা হয়েছে। এছাড়া ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে এক হাজার গাঁদা ফুল।

আগারগাঁওয়ে ফুল কিনতে আসা মুজিব নামে এক খুচরা ব্যবসায়ী জানান, যেকোনো ধরনের ফুলের গোড়া বালতির পানিতে ভিজিয়ে রাখলে অনায়াসে তিন-চারদিন সতেজ রাখা যায়। তাই আগেও কিছু ফুল কিনে রেখেছিলাম। তবে আরও প্রয়োজন পড়তে পারে তাই কিনে নিয়ে গেলাম।

মিরপুরে-১১ নম্বর বাস স্ট্যান্ডের কাছে তার দোকান রয়েছে বলে তিনি জানান।


প্রতিকেদক: মেহেদী হাছান রাব্বী

Facebook Comments

Check Also

কচুয়ায় পানিতে ডুবে এক বৃদ্বের মৃত্যু

মোঃ রাছেল, কচুয়া : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার বিতারা ইউনিয়নের মাঝিগাছা গ্রামের খালের পানিতে ডুবে কাউছার আহমেদ …

vv