ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশায় স্থবির চাঁদপুরের জনজীবন : বিপাকে নিন্ম আয়ের মানুষ
মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় ঘন কুয়াশায় ঢাকা চাঁদপুর সদরের মহামায়া এলাকার বিভিন্ন পথঘাট।

তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশায় স্থবির চাঁদপুরের জনজীবন : বিপাকে নিন্ম আয়ের মানুষ

মাসুদ হোসেন : চাঁদপুরে তীব্র শীত ও ঘন কুয়াশায় জনজীবন অনেকটাই স্থবির হয়ে পড়েছে। ভোরে ও সন্ধ্যায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির মতো কুয়াশা পড়ছে। ঘন কুয়াশায় ব্যাহত যান চলাচল হচ্ছে। দিনে গাড়ির হেডলাইট জ্বালিয়েও বেশি দূরের জিনিস দেখা যাচ্ছে না। দৃষ্টি সীমা কমে যাওয়ায় ফেরি ও লঞ্চ ব্যহত হচ্ছে। এ শীতে জেলার বিভিন্ন এলাকা ও চরাঞ্চলের মানুষ দুর্ভোগের কবলে পড়েন। কৃষকরা মাঠে নামতে পারছেন না তীব্র শীতের কারনে।

শীতে সাধারণ মানুষ বিশেষ করে শিশু এবং বৃদ্ধরা এতে কষ্ট পাচ্ছেন বেশি। শীতের কারণে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। বিশেষ করে শিশুরা অত্যাধিক ঠাণ্ডার কারণে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে বেশি। তের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। শীত নিবারণ করতে মানুষ খড়কুঠো জ্বালিয়ে আগুন পোহাচ্ছেন। সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে শহরের রাস্তায় মানুষের চলাফেরা কমে যায়। এর ফলে কমে গেছে রিকশাচালকদের আয়। অপরদিকে শীতের তীব্রতার জন্য খেটে খাওয়া মানুষের আয়ও কমে গেছে।

অর্থশালীরা গরম কাপড়ের জন্য সুপার মার্কেটগুলোতে ভিড় করলেও নিন্ম আয়ের মানুষ ভিড় জমাচ্ছে ফুটপাতের কম দামি পুরনো কাপড়ের দোকানে। শীতে হাসপাতালের বহির্বিভাগে রোগীর ভিড় কমে গেলেও ওয়ার্ডগুলোতে বেড়েছে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ ঠাণ্ডাজনিত রোগীর চাপ। এদের মধ্যে শিশুর সংখ্যাই বেশি। তীব্র শীতে দুর্ভোগ বেড়েছে গবাদিপশুরও।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারী) সকালে ঘন কুয়াশার চাদরে ঢাকা পড়ছে সবকিছু। সূর্যের দেখা মিলছে না বেলা ১১টা পর্যন্ত। তবে দিনের চেয়ে সন্ধ্যা ও রাতে শীতের তীব্রতা বেশি অনুভূত হচ্ছে। গুগল সূত্রে জানা গেছে, এদিন সর্বনিন্ম তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে। সন্ধা ৬টার পর থেকে বাড়তে থাকে কুয়াশার তীব্রতা।

জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে কিছু কিছু স্থানে ঠিকমত ১০ হাত সামনে কিছুই দেখা যায় না ঘন কুয়াশার কারনে। তবে চলতি সপ্তাহে কুয়াশার ঘনত্ব ছিল শূন্য দৃষ্টিসীমায়। এ কারণে লঞ্চগুলোকে হেডলাইট জ্বালিয়েও নির্ধারিত সময়ের ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিলম্বে ঘাটে পৌঁছতে হচ্ছে। ঘটছে দুর্ঘটনা।

ঘন কুয়াশার কারনে রোববার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে চাঁদপুরের মেঘনায় দুটি লঞ্চের সংঘর্ষে মা ও শিশু নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও ৮ যাত্রী। ঢাকা-বরিশাল নৌ রুটের মাঝেরচর এলাকায় ঘন কুয়াশার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

Facebook Comments

Check Also

শাহরাস্তিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১, আহত-২

স্টাফ রিপোর্টার : শাহরাস্তিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ১জন নিহত এবং আহত হয়েছে ২জন। শনিবার ভোর ৫টায় …

vv