ব্রেকিং নিউজঃ
Home / দেশজুড়ে / তিব্র শীতে চুমুক দিন এক কাপ চা

তিব্র শীতে চুমুক দিন এক কাপ চা

অমরেশ দত্ত জয় : চাঁদপুরের অলিতে গলিতে যেটি সবচেয়ে বেশি দৃশ্যমান,তাহলো একটি চায়ের দোকান।

শহরের তুলনায় গ্রাম-গঞ্জে চায়ের দোকান একটু বেশি দেখা যায়।নির্বাচন,বিশ্বকাপ খেলা,আচার-অনুষ্ঠান বা যেকোন দুর্ঘটনায় একটি চায়ের দোকান বিভিন্নরূপে দৃশ্যমান হয়।

চাঁদপুরের চায়ের দোকানগুলোর দুধ চা ও রং চা বেশ জনপ্রিয়।৫ টাকা থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত সাধারণত ১ কাপ চায়ের দাম নির্ধারণ করে থাকেন দোকানী।সাধারণত ১৫ থেকে শুরু করে মাঝ বয়সী বা বৃদ্ধারাই চায়ের দোকান গুলোতে চায়ের ভাব জমান বেশি।ক্রেতারা অন্যান্য ঋতুর তুলনায় শীতের ঠান্ডায় সকাল ও সন্ধ্যায় চায়ের ভাব জমান বেশি বলে জানান চাঁদপুরের দোকানীরা।ফয়সাল নামের এক চা দোকানী জানান,হড়েক রকমের শুকনো খাবার (বিস্কুট,ব্রেড,পিঠা) আর ১টি টিভি নিয়ে গড়ে ওঠে ১টি চায়ের দোকান। চা পানকারীগন চায়ের সাথে জ্বীবের স্বাদ পাবার উদ্দেশ্য শুকনো খাবার ক্রয় করেন।

প্রতিটি চায়ের দোকানে থাকে পানি পানের সু-ব্যবস্থা।যাতে চা পানের পূর্বে বা পরে তৃষ্ণা মেটাতে ক্রেতারা পানি পান করতে পারেন। টিভি দেখতে দেখতে বিভিন্ন আলোচনায় লিপ্ত হওয়ার সাথে সাথেই চা পান করতে আগ্রহী হয়ে ওঠে চাঁদপুরের চা পানকারী ক্রেতারা।

সকাল থেকে রাত পর্যন্ত খোলা থাকে এই চায়ের দোকান।মাসুদ নামের আরেক চা দোকানী জানান,রোজ ৫০ থেকে ১০০ কাপ চা বিক্রি হয়।তবে বিশেষ কারন থাকলে চা বিক্রি একটু বেশি বা কম হয়। এই চা বিক্রির রোজগার দিয়েই সংসার পরিচালনা করি। আমার বাপ-দাদারাও এই চা ব্যবসার সাথে যুক্ত ছিলো। তাই বংশ পরাম্পরায় আমিও চা বিক্রির জন্য ছোট পরিসরে এই দোকানটি খুলেছি।চায়ের দোকান খুলতে খুব বেশি অর্থ লাগেনা বলে এই ব্যবসাটি বর্তমানে বেশ জনপ্রিয়।

রাখছে জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। কালু নামের একজন চা পানকারী জানান,রোজ আমি ৩/৪ কাপ লিকার চা খাই।আঁদা ও এলাচ মিশিয়ে তৈরি হয় এই লিকার চা(রং চা)। বেশী রাত পর্যন্ত পড়ালেখা করতেও এক কাপ লিকার চা রাখে গুরুর্তপূর্ন ভূমিকা।সৎভাবে বেঁচে থাকার খুব ভালো মাধ্যম এই চায়ের দোকান। চা বানানো এবং এর সাথে বিস্কুট ও অন্যান্য শুকনো খাবার বেচাকেনা খুব কঠিন কাজ নয়।

অশিক্ষিত লোকের পাশাপাশি বর্তমানে অনেক শিক্ষিত বেকার লোকও যুক্ত হচ্ছেন এই চা বিক্রির পেশায়।মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে এবং মানুষকে স্বল্প অর্থে সাবলম্বি করতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখে চায়ের দোকান এমনটাই মনে করেন চাঁদপুরের অনেক সচেতন মানুষ।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুরে মসজিদের ইমাম কর্তৃক ধর্ষণের শিকার মাদ্রাসা ছাত্রী দু’মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর সদর উপজেলার ১২ নং চান্দ্রা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রোড রাশেদিয়া জামে মসজিদের ইমাম …

vv