ব্রেকিং নিউজঃ
Home / প্রিয় চাঁদপুর / ড্রেনেজ ব্যবস্থা সংস্কারের অভাবে চাঁদপুর পৌর এলাকায় দুর্ভোগ

ড্রেনেজ ব্যবস্থা সংস্কারের অভাবে চাঁদপুর পৌর এলাকায় দুর্ভোগ

দীর্ঘ নয় বছর ধরে পানি নিস্কাশনের জন্য কোনো প্রকার ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানিতে বন্যার পানির ন্যায় চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন চাঁদপুর পৌরসভার ১৫ নং ওয়ার্ডবাসী।

দু’একদিন টানা বৃষ্টি হলেই ওই বৃষ্টির পানি জমে  জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। ওই এলাকায় কোনো ধরনের ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানি জমে গিয়ে রাস্তা এবং মানুষের বাসা বাড়িতে ঢুকে পড়ছে।

শুক্রবার (২৩ জুন ) চাঁদপুর শহরের চেয়ারম্যান ঘাট জেলা শিক্ষা অফিসের বিপরীতে গনি ওয়ার্কসপের পেছনে সরজমিনে দেখা যায়, ১৫ নং ওয়ার্ডস্থ কাদির মিজি বাড়ি হতে সুইটি সেন্টার গলি রাস্তা পর্যন্ত হাটু পরিমাণের চেয়েও বেশি বৃষ্টির পানি জমে আছে।

বিভিন্ন বাসা বাড়ি এবং উঠোনেও হাটু পরিমাণ পানি জমে আছে। বাসা বাড়ির লোকজন ঘর থেকে বের হলেই কয়েক’শ গজ রাস্তায় জমে থাকা পানি ডিঙ্গিয়ে শহরে যেতে হয়।

এলাকাবাসী জানায়, তাদের এলাকার পানি নিস্কাশনের জন্যে চাঁদপুর পৌরকর্তৃপক্ষ আজো কোনো ড্রেনেজ ব্যবস্থা করে দেয়নি। একটু বৃষ্টি হলেই তাদের চলাচলের রাস্তায় হাঁটু পরিমাণ পানি জমে থাকে সে আর যদি দু’তিন দিন টানা বৃষ্টি হয় তাহলে সে বৃষ্টির পানি জমে ঘরের ভেতর ঢুকে পড়ে।

জলাবদ্ধতার ওই পানি শুকাতে প্রায় ৫/৬ মাস সময় লাগে। তাই বারো মাসই তাদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। আর তারা এমন দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন, দীর্ঘ নয় বছর ধরে।

ওই এলাকার ভুক্তভোগী বাসিন্দা ছাবেদা বেগম, সুফিয় বেগম, বাচ্চু মিজি, দুলাল মিজি, রহিমা বেগম, সাদু পাটওয়ারী, হানিফ মিজি, বিউটি আক্তার, সাখাওয়াত মিজি, লতিফ মিজিসহ একাধিক ব্যাক্তি অভিযোগ করে বলেন, ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আ. মালেক বেপারীকে এমন দুর্ভোগের কথা একাধিকবার বলার পরেও তিনি এ ব্যাপরে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

তাদের জোরালো অভিযোগ কাউন্সিলর আ. মালেক বেপারী দু’দুবার নির্বাচনের সময় তাদের এলাকায় পানি নিস্কাশনের জন্যে উন্নত ড্রেনেজ ব্যবস্থা করে দিবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। কিন্তু আজো তা বাস্তবায়িত করছেন না। এমন অনেক অভিযোগের কথা তুলে ধরে তারা ওই কাউন্সিলরের প্রতি অনেক ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

জলাবদ্ধতার এমন দুর্ভোগ শুধু চেয়ারম্যান ঘাটস্থই কাদির মিজি বাড়ি এলাকা জুড়েই নয় । একই ওয়ার্ডের ষোলঘর বিটি রোডস্থ আ. জলিল মোল্লা সড়কেও একই দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এলাকাবাসী।

জানাযায়, ওই এলাকার ষোলঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে আ.জলিল মোলা সড়কের প্রবেশ মুখ থেকে শুরু করে সমাজসেবক ও সাবেক ছাত্রনেতা কাজী ইব্রাহিম জুয়েলের বাড়ি পর্যন্ত একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তায় হাঁটু পরিমাণ পানি জমে থাকে।দু’দিনের বৃষ্টিতে ওই সড়কে পানি জমে থাকায় পানি ডিঙ্গিয়ে প্রতিদিন চলাচল করছেন স্থানীয়রা।

এ ব্যাপারে ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আ.মালেক বেপারীর সাথে মুঠোফেনে কথা হলে তিনি অনেকটা রাগন্বিত হয়ে বলেন, ‘এ ব্যাপারে মেয়রের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। সরকার টাকা না দিলে আমরা কাজ করবো কীভাবে? সারা বাংলাদেশেই পানি এবং মাদ্রাসা রোডসহ চাঁদপুর শহরের বিভিন্নস্থানেই পানি জমে আছে। ’

প্রতিবেদন: স্টাফ রিপোর্টার

Facebook Comments

Check Also

রামপুরে শিক্ষামন্ত্রীর স্বামীর সুস্থতা কামনায় ইউনিয়ন আ’লীগের দোয়া

মাসুদ হোসেন : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী আলহাজ্ব ডাঃ দীপু মনি …

vv