ব্রেকিং নিউজঃ
Home / ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর / চাাঁদপুরকে নান্দনিক পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলব : নৌকা প্রার্থী জুয়েল

চাাঁদপুরকে নান্দনিক পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলব : নৌকা প্রার্থী জুয়েল

সাইদ হোসেন অপু চৌধুরী : আসন্ন চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী অ্যাড.জিল্লুর রহমান জুয়েল পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে দিনব্যাপী গণসংযোগ ও উঠান বৈঠক করেছেন।

সোমবার সকাল থেকে তিনি ২নং ওয়ার্ডের কবরস্থান রোড, বালুর মাঠ, পশ্চিম ও পূর্ব মাঝামাঝি বউ বাজার ভাওয়াল বাড়ি, ইউসুফ গাজী বাড়ি, পশ্চিম জাফরাবাদ বর্ধিত অংশের দর্জি বাড়ি, ঘোষপাড়া দূর্গা ও শীতলা মন্দির, হরিসভা মন্দির কমপ্লেক্সে উঠান বৈঠকে বক্তব্য রাখেন।

মেয়র প্রার্থী অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন, আমি শেখ হাসিনার প্রার্থী। ইউসুফ গাজী ভাইয়ের আস্তাভাজন প্রার্থী। এ প্রথম দলীয় প্রতীকে চাঁদপুর পৌরসভায় নির্বাচন করছি। নৌকা এমন একটা প্রতীক ১৯৬৯ সালে নির্বাচনে বিজয়ী হয়েও রাষ্ট্র ক্ষমতায় যেতে পারেনি। এটি হচ্ছে স্বাধীনতার প্রতীক। নৌকা উন্নয়নের প্রতীক। আমি আগে নির্বাচন করেনি। আমার সৌভাগ্য হয়নি। এই প্রথম নির্বাচন করছি। যে ওয়াদা রাখতে পারব সেই ওয়াদাই করছি। নৌকা হলো উন্নয়নের প্রতিক। নৌকায় ভোট দিলে কেউ ঠকে না।

আমি ধাপে ধাপে আপনাদের সকল সুযোগ সুবিধা করে দেওয়ার চেষ্টা করবো। আমি নির্বাচিত হতে পারলে চাঁদপুর পৌরসভায় সর্বোচ্চ বরাদ্দ এনে দিবো। আমি জনগণের মেয়র হয়ে আপনাদের জন্য কাজ করবো। আমার কাছে সকল মানুষ সমান। সকলে আমার সাথে কথা বলার সুযোগ পাবে। মাদকের বিষয়ে আমি এক সেকেন্ডের জন্য কারো সাথে আপোষ করবো না। মাদকের বিষয়ে জিরো টলারেন্স।

তিনি আরও বলেন, আমার পিতার বয়স ৯৫ বছর। তিনি নুরিয়া স্কুলে শিক্ষকতা করেছেন। ৬৯সালে তিনি চাকুরী ছেড়ে দেন। তারপর তিনি এই পুরাণবাজারেই ব্যবসা শুরু করেন। তাই পুরাণবাজারের সাথে আমার হৃদয়ের সম্পর্ক রয়েছে। ১শ ২৪ বছরের পুরনো পৌরসভা এটি। পুরাণবাজার বাণিজ্যিক কেন্দ্র ছিল। তখন একে বলা হত আসাম বেঙ্গল গেটওয়ে। আমি নির্বাচিত হলে পুরাণবাজারে বাণিজ্যিক প্রাণ ফিরিয়ে আনার জন্য কাজ করব। পর্যটনের বিপুল সম্ভাবনা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে চাঁদপুর শহর। পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি সংসদের প্রস্তাবনা দিয়েছেন। আমি নির্বাচিত হতে পারলে এই চাাঁদপুরকে নান্দনিক পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলব। পৌরবাসীর দাবিহলো রাস্তা-ঘাট, ড্রেনের সমস্যা দূরীকরণ। আমি নির্বাচিত হলে সরকারের কাছ থেকে সহায়তা এনে নগরবাসীর উন্নয়নে কাজ করব।

এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব ইউসুফ গাজী, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটোয়ারী, পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাধা গোবিন্দ গোপ, সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান বাবুল, চাঁদপুর জেলা যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সালাউদ্দিন মোহাম্মদ বাবর, সাবেক ছাত্রনেতা নূরুল হায়দার সংগ্রাম, সাবেক কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম সুমন, ২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল মালেক শেখ, ফেরদৌসি বেগম, যুবলীগ নেতা মোঃ কামাল হাওলাদার, ওসমানিয়া ফাজিল মাদ্রাসার কেন্দ্র কমিটির সদস্য সচিব আলমগীর গাজী, আওয়ামী লীগ নেতা তাজুল ইসলাম সর্দার, যুবলীগ নেতা ফারুক খেয়াল, মাসুদ খান।

Facebook Comments

Check Also

শাহরাস্তিতে দিনশেষে সিএনজি চালক ইমরানের বাড়ি ফেরা হলোনা

মোঃ মাসুদ রানা : চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে দিনভর সিএনজি থ্রি হুইলার চালিয়ে চালক ইমরানের আর বাড়ি …

Shares
vv