ব্রেকিং নিউজঃ
Home / সমস্যা-সম্ভাবনা / চাঁদপুর শাহমাহমুদপুরে স্বাধীনতার ৫০ বছর পর চলাচলের রাস্তা করলেও কেটে ফেলার অভিযোগ!
প্রতীকী ছবি

চাঁদপুর শাহমাহমুদপুরে স্বাধীনতার ৫০ বছর পর চলাচলের রাস্তা করলেও কেটে ফেলার অভিযোগ!

মাসুদ হোসেন : চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নে প্রায় ৩০ টি পরিবারের চলাচলের রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রবিবার (১ আগস্ট) সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ইউনিয়নের পশ্চিম লোধেরগাঁও গ্রামের বাসিন্দা মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ পাটওয়ারী বাড়ি ও মিজি বাড়ির প্রায় ৩০ টি পরিবারের লোকজনের চলাচলের রাস্তা কেটে ফেলে স্থানীয় দমকের গাঁও কাজী বাড়ির কিছু লোকজন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত ৩ বছর পূর্বে সরকারি অর্থায়নে শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে খাল খনন করা হয়। খনন করা মাটি গুলো পশ্চিম পাশে ফেলায় একটি নিচু রাস্তার মত তৈরি হয়েছে। পরবর্তীতে গত ৬ মাস আগে ইউনিয়ন পরিষদের আর্থিক সহযোগিতা নিয়ে পাটওয়ারী বাড়ি ও মিজি বাড়ির কিছু লোকজন নিজেদের কাছ থেকে টাকা তুলে ঐ নিচু রাস্তার উপর আরো মাটি ফেলে রাস্তাটি উঁচু করেন। সেই সাথে পল্লী বিদ্যুৎ- ভরঙ্গারচর পাকা সড়ক থেকে ঐ রাস্তায় সংযোগ করতে কাজী বাড়ির মৃত আলাউদ্দিন কাজীর পুত্র কাজী মনিরুজ্জামান রাস্তা বাড়াতে সহযোগিতা করেন। যদিও অনেকাংশে সরকারী হাওলাটের উপর দিয়ে উক্ত সড়কটি তৈরি হয়েছে।

কিন্তু গত শুক্রবার (৩০ জুলাই) তাদের (কাজী বাড়ির লোকজন ও পাটওয়ারী বাড়ির লোকজনের মধ্যে) পূর্বের মারামারিকে কেন্দ্র করে ৬ মাস পূর্বে করা রাস্তা কেটে ফেলেন কাজী বাড়ির কিছু লোকজন। দমকেরগাঁও কাজী বাড়ির মৃত আলাউদ্দিন কাজীর ছেলে মনিরুজ্জামান কাজী ও মৃত আঃ হালিম কাজীর ছেলে মোঃ ওসমান গনি জানান, পাটওয়ারী বাড়ির লোকজন খুবই দুষ্ট। তারা প্রায় সময়ই মানুষের সাথে গন্ডগোল করে থাকে। এই রাস্তা হলে তো তাদের গন্ডগোলের মাত্রা আরো বেড়ে যাবে। তাই তাদেরকে আমরা আমাদের জমির পাশ দিয়ে রাস্তা করতে দিবো না।

এদিকে পশ্চিম লোধেরগাঁও পাটওয়ারী বাড়ির সালামত উল্যাহ পাটওয়ারীর ছেলে মনির পাটওয়ারী, মৃত ছাত্তার পাটওয়ারীর ছেলে নানু পাটওয়ারী, হাকিম মিজির ছেলে খালেক মিজি ও জয়নাল মিজির ছেলে জাফর মিজি বলেন, আমরা দীর্ঘ প্রায় ৫০ বছর ধরে বর্ষার সময় পানি ডিঙ্গিয়ে রাস্তায় উঠতে হয়। আমাদের কোন রাস্তা না থাকায় সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছি। এলাকায় আমরা প্রায় ত্রিশটি পরিবার বসবাস করছি। স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, মক্তব, মসজিদ, হাট-বাজারে যেতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। এমনকি ছেলে-মেয়ে বিয়ে দিতে গিয়েও অসংখ্য বিয়ে ভেঙ্গে গিয়েছে। এ রাস্তার জন্য কোথাও কোন ভাল সমন্ধ করতে পারিনা। তাই সবাই মিলে এই সড়কটি নির্মাণ করে গত ৬ মাস ব্যবহার করে আসছি। হটাৎ করে ছোট্ট একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী রাস্তার সংযোগ কেটে জমির সাথে মিশিয়ে দেন। তাহলে কি আমাদের সেই পঞ্চাশ বছরের দূর্ভোগ থেকে মুক্তি পাবো না?

এ বিষয়ে শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান স্বপন মাহমুদ বলেন, আমি রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ পেয়েছি। তবে যে বিষয়কে কেন্দ্র করে ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা দুই পক্ষকে পরিষদে ডেকে এনে মিমাংসা করে দিয়েছি। আরেক পশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পথ হচ্ছে মানুষের মানবিক অধিকার। কারো যদি বাড়িতে যাওয়ার জন্য পথ না থাকে তারা আইনি পক্রিয়ায় সরকারের নিকট আবেদন করলে সরকার পথ করে দিতে বাধ্য থাকবে। তিনি আরো বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে দুর্ভোগে থাকা ৩০ টি পরিবারের লোকজন গত ৬ মাস পূর্বে তাদের একান্ত চেষ্টায় ছোট্ট একটি রাস্তা নির্মাণ করতে সক্ষম হয়েছে। তাদের অদূর ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আগামী বছর এ রাস্তাটি পরিষদের পক্ষ থেকে সরকারী বাজেটে তা আরো বড় পরিসরে নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুরে শুক্রবার ১১৫ নমুনায় ৩ জনের করোনা শনাক্ত

মাসুদ হোসেন : চাঁদপুরে নতুন করে ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। সনাক্তের হার ৩.১৫%। শুক্রবার …

Shares
vv