ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকায় জুয়েল, ধানের শীষে শফিক ও হাতপাখায় বেলাল 
(বামে থেকে) নৌকার প্রার্থী-জিল্লুর রহমান জুয়েল,ধানের শীষে-শফিকুর রহমান ভূঁইয়া এবং হাতপাখা-মামুনুর রশীদ বেলাল

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকায় জুয়েল, ধানের শীষে শফিক ও হাতপাখায় বেলাল 

অমরেশ দত্ত জয় : চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের হয়ে নৌকায় জিল্লুর রহমান জুয়েল,বিএনপি’র ধানের শীষে শফিকুর রহমান ভূঁইয়া এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখায় মামুনুর রশীদ বেলাল চূড়ান্তভাবে দলের হয়ে মেয়রপ্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দিতা করবেন।

২৪ ফেব্রুয়ারী সোমবার পর্যন্ত এরাই ৩ রাজনৈতিক দলের মেয়র পদে চূড়ান্ত প্রার্থী।

যাদের মধ্যে যেকোন একজন কে পৌরবাসী ভোটের মাধ্যমে নগরপিতা নির্বাচিত করবেন। তবে এই ৩ মেয়র প্রার্থী বাদে ভোটের মাঠে অন্য কোন রাজনৈতিক দলের প্রার্থী বা কোন বিদ্রহী বা সতন্ত্র প্রার্থী মেয়র পদে লড়বেন কিনা? সে তথ্য এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এদিকে পৌরসভার মেয়র পদে এই ৩ রাজনৈতিক দল থেকে মনোনীত তিন প্রার্থীর মধ্যে বিএনপির জন বাদে বাকি ২জনই নতুন মুখ।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা যায়, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখা মার্কার মেয়র প্রার্থী মামুনুর রশীদ বেলাল। যিনি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চাঁদপুর জেলা শাখার অর্থ বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি এই প্রথম কোন নির্বাচনে প্রার্থীতা করছেন। তবে জনগণ যদি তাকে ভোটের মাধ্যমে সুযোগ দেয়। তাহলে অবশ্যই নির্বাচনে জয়ী হলে তিনি মানুষের প্রাণের দাবীগুলো পূরণ করতেই কাজ করবেন বলে নিজের মতামত প্রকাশ করেন।

অপর দিকে বিএনপি’র প্রার্থী শফিকুর রহমান ভূঁইয়ার চিত্র একদম উল্টো। কেননা মেয়র পদে তিনি এই প্রথমই নির্বাচনে লড়ছেন না। তিনি পর পর দুবার মেয়র পদে আ’লীগের পূর্বের সমর্থিত নাছির আহমেদের নিকট পরাজিত হয়েছেন। অবশ্য পরাজয়ই নয় তিনি এই চাঁদপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যানও বটে। তাই জয়-পরাজয় উভয়ের স্বাদ তার থাকলেও এবারের নির্বাচনের চিত্র ভিন্ন। কেননা এবার নির্বাচন হচ্ছে দলীয় প্রতীকে। তবে তিনি সামলিয়েছেন জেলা বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের পদও (বর্তমানে সাবেক)। তাই দলকে চাঙ্গা করতে এই পৌরসভা নির্বাচনে তিনি ও তার দল জয়ের বিকল্প কিছু ভাবছে না।

অপর দিকে দলীয় মনোনয়নে নৌকা প্রতীক নিয়ে এবারই প্রথম নির্বাচন করছেন জিল্লুর রহমান জুয়েল।

যিনি জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। অবশ্য নিজে এই প্রথম নির্বাচনে প্রার্থীতা করলেও দলের হয়ে বেশ কয়েকটি নির্বাচনে নেতৃত্বশালী ভূমিকা রাখার তীক্ষ্ণ অভিজ্ঞতা তার রয়েছে। সেই সাথে তার সহজ-সরল কথাবার্তা ও চলাফেরা খুব সহজেই মানুষকে কাছে টানে। তাইতো দল-মত-ধর্ম-নির্বিশেষে সকলের কাছে অল্প সময়ে তিনি মনে জায়গা করে নিয়েছেন।

বিশেষ করে তরুনদের কাছে তিনি সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। তাই তাকে ঘিরে পরিবর্তনের অঙ্গিকারে আধুনিকায়ন মডেল চাঁদপুর পৌরসভার রূপান্তর দেখবে বলে ভাবছে নগরবাসী।

এদিকে পৌর নির্বাচন প্রসঙ্গে জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়,আগামী ২৯ মার্চ সকাল ৯ টা হতে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত ইভিএমে বিরতিহীনভাবে চলবে ভোটগ্রহণ। যার আগে ২৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রার্থীতার মনোনয়নপত্র গ্রহণ এবং জমাদান করা যাবে। পহেলা মার্চ মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে। ৮ই মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। আর ৯ মার্চ প্রতিদ্বন্দ্বী সকল প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে। তাই ভোটযুদ্ধের চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য শেষ পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকবে পৌরবাসী। এই সময়ের মধ্যে দলগুলোও তাদের মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ী করতে সাজাচ্ছেন নতুন কর্মপরিকল্পনা।

এ নির্বাচন প্রসঙ্গে জেলা নির্বাচন অফিসার হেলাল উদ্দিন খান জানিয়েছেন, সুষ্ঠু,অবাধ ও নিরপেক্ষভাবে পৌরসভা নির্বাচন উপহার দিতে আমরা প্রস্তুত। ইতিমধ্যে নির্বাচনকে ঘিরে সকল আইনানুগ ব্যবস্থা সম্পন্ন করা হচ্ছে।

নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা পরিবেশ শান্ত রাখতে আমরা সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুর জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে ১১৪, মুক্ত ২৩

মনিরুল ইসলাম মনির : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে চাঁদপুর জেলায় বর্তমানে বিদেশফেরত ১১৪জন হোম কোয়ারেন্টাইনে …

vv