ব্রেকিং নিউজঃ
Home / ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর / চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র হিসেবে নুরুল ইসলাম নুরুকে প্রয়োজন

চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র হিসেবে নুরুল ইসলাম নুরুকে প্রয়োজন

অমরেশ দত্ত জয় : চাঁদপুর পৌরসভায় সমাজসেবক,ব্যবসায়ী ও জননেতা পৌর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ নুরুল ইসলাম নুরুকে মেয়র পদে প্রয়োজন বলে গুঞ্জন উঠেছে। পরিবর্তনের অঙ্গিকারে তাকে মেয়র হিসেবে পেলে উন্নয়নের গতি আরো তরান্বিত হতে পারে।তা ই তাকে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন দিয়ে নির্বাচনের সুযোগ দেওয়া হতে পারে বলে মনে করছে পৌরবাসী। কেননা তার পিতা মরহুম এম. এ. মোমেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের স্বপক্ষে পৃষ্ঠোপোষকতা করে গেছেন। এমনকি ১৯৭৭ সালে চাঁদপুর জেলা মহকুমা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের জন্য জোড়পুকুর পাড়ে দান করেছেন নিজস্ব ভূমি। তাই পারিবারিকভাবেই তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন।
জানা যায়, আলহাজ্ব মোঃ নুরুল ইসলাম নুরু বাংলাদেশ ট্রাক কভার ভ্যান মালিক সমিতির সহ-সভাপতি, পণ্য পরিবহন এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি,এফবিসিসিআই এর জেনারেল বডির মেম্বার,নিউ নেশান একাডেমীর সভাপতি সহ বহু ব্যবসায়িক,সামাজিক,মসজিদ কমিটির সাথে জড়িত থেকে সুনামেরসহিত জনসেবা করে যাচ্ছেন। বর্তমানে তিনি পুরানবাজারের রয়েজ রোডের মোমেনবাগস্থ নিজের বাসভবনে থেকে রাজনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।
তিনি ১৯৯৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত আওয়ামীলীগের স্বপক্ষে সকল জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনে পৌর ৪ নং ওয়ার্ডের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। আর তার দক্ষ নেতৃত্বে সব নির্বাচনেই আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ওই এলাকার কেন্দ্রগুলোতে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে।
আরো জানা যায়, পিতার আদর্শে উজ্জীবীত হয়ে নুরুল ইসলাম নুরু নিজেই শুধু বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হননি। একই পথে পথ চলতে শিখিয়েছেন তার ৩ পুত্রকে।
এ ব্যপারে তার পুত্র আরিফুল ইসলাম হৃদয় জানান, আমি আমার বাবার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাত্রজিবন থেকেই জড়িয়েছি ছাত্রলীগের রাজনীতিতে। ঢাকা মহানগর উত্তরের শের-ই বাংলা নগর থানা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদকেরও দায়িত্ব পালন করেছি।
পৌর নির্বাচন প্রসঙ্গে জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, আগামী ২৯ মার্চ সকাল ৯ টা হতে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত ইভিএমে বিরতিহীনভাবে চলবে ভোটগ্রহণ। যার আগে ২৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রার্থীতার মনোনয়নপত্র গ্রহণ এবং জমাদান করা যাবে।পহেলা মার্চ মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে।৮ই মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।আর ৯ মার্চ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হবে।
এদিকে ২৩ ফেব্রুয়ারী রবিবার এক সাক্ষাৎকারে আলহাজ্ব মোঃ নুরুল ইসলাম নুরু জানান,চাঁদপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয়ভাবে আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি অবশ্যই নির্বাচন করবো। এ ব্যপারে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তবে আমাকে দলীয় প্রতিকে নির্বাচন করার সুযোগ দিলে জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত রয়েছি। সেই সাথে মুজিব শতবর্ষের উপহার হিসেবে পৌরসভার নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করবো ইনশাআল্লাহ।
তিনি আরো জানান, চাঁদপুর পৌরসভাকে আধুনিকায়নের পাশাপাশি মাদক-সন্ত্রাস-দুর্নীতিমুক্ত গঠনের লক্ষ্যে কাজ করে যাবো।তবে নির্বাচন প্রসঙ্গে দলীয় যেকোন সিদ্ধান্তের সাথেই আমি একমত পোষণ করতে প্রস্তুত।
তবুও আমি পৌরবাসীর দোয়া ও সমর্থণ প্রত্যাশা করছি।
Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুর চান্দ্রা শিক্ষিত বেকার যুব বহুমুখী সমিতির স্যানিটেশন সামগ্রী বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর দুইবারের জাতীয় সমবায় পুরস্কার প্রাপ্ত  প্রতিষ্ঠান চান্দ্রা শিক্ষিত বেকার যুব বহুমুখী …

vv