ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / চাঁদপুরে মাতৃভাষা দিবসে ইংরেজিতে প্রধান শিক্ষকের ছবি পোস্ট, কঠোর সমালোচনা

চাঁদপুরে মাতৃভাষা দিবসে ইংরেজিতে প্রধান শিক্ষকের ছবি পোস্ট, কঠোর সমালোচনা

সাইফুল ইসলাম সিফাত : বাংলা ভাষায় নূন্যতম কথা শেখার জন্য কাউকে পরিশ্রম করতে হয় না। জন্মদানকারী মা বা স্তন্যদানকারী মা, স্নেহ দানকারী পিতা, খেলার সাথী অন্যান্য শিশু, খেলার সাথী বয়স্ক দাদা-দাদী, নানা-নানী এদের সান্নিধ্যে থাকতে থাকতেই একজন শিশু বাংলার শব্দগুলো একটু একটু করে রপ্ত করে। অর্থাৎ মায়ের মুখ থেকে প্রথম আওয়াজটা শুনে বলেই মনে হয়, ভাষাটির নাম মাতৃভাষা।

কিন্তু মনের কথাটি সাধারণভাবে সাধারণ একজন মানুষের নিকট সাধারণ প্রয়োজনে প্রকাশ করতে যতটুকু ভাষা শেখা প্রয়োজন, ততটুকু ভাষা বেশিরভাগ শিশু-কিশোরই শিখে ফেলে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায়। অতিরিক্ত গুরুত্বপূর্ণ কোনো কাজের জন্য, অতিরিক্ত গুরুত্বপূর্ণ কোনো ভাবের আদান-প্রদানের জন্য, অতিরিক্ত গুরুত্বপূর্ণ কোনো বিষয় লেখার জন্য, অতিরিক্ত ভাষা-জ্ঞানের প্রয়োজন। সেইজন্যই জ্ঞান অর্জনে প্রয়োজন লেখাপড়া এবং লেখাপড়ার অংশ হচ্ছে মাতৃভাষার উপর পারদর্শিতা অর্জন করা।

আর এ পারদর্শিতা অর্জন শিশুদের প্রথমে প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকেই দেয়া হয়ে থাকে। কিন্তু প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকই যদি এর ব্যাতিক্রম কিছু করে থাকে তাহলে আগামির প্রজন্ম কি শিখবে? এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে চাঁদপুরের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের যোগ্যতায়। তিনি চাঁদপুর সদর পৌর এলাকার ৬২ নং গুনরাজদী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আল মামুন পাটওয়ারী।

২১ ফেব্রুয়ারী (শুক্রবার) সকালে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে প্রভাতফেরি শেষে ভাষাশহীদদের স্বরণে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এরপর প্রধান শিক্ষক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন কার্যক্রমের ধারন করা চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তাঁর ব্যক্তিগত আইডিতে পোস্ট করেন। সেই সাথে এই গুরুত্বপূর্ণ দিনটিতে ছবিগুলোর ক্যাপশন দিয়েছেন বাংলার পরিবর্তে ইংরেজিতে।

ক্যাপশনে লিখেছেন- (International mother language day-2020 Celebration, Arrange by : 62 no Gunorajde gps,Sador, Chandpur.)। যদিও চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক চাঁদপুর প্রতিদিন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক মো: ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী ঐ পোস্ট-এ একটি মন্তব্য করে ইংরেজী লেখাটি সরানোর জন্য বলেছেন।

কিন্তু এদিন রাত সোয়া ১০টা পর্যন্ত এর কোন পরিবর্তন দেখা যায় নি।

একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান যদি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইংরেজিতে পোস্ট করেন, তাহলে সাধারণ মানুষ কি একই ভুল করবে? উক্ত পোস্টের কয়েক ঘন্টা আগে বাংলায় পোস্ট করেছেন তিনি। তারপরও জনমনের প্রশ্ন, এই গুরুত্বপূর্ণ দিনটিতে একজন শিক্ষক এমন কাজ করতে পারেন না।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুরে করোনা সচেতনতায় প্রশাসনের ‘সামজিক দূরত্ব বন্ধন’

বিশেষ প্রতিনিধি : চাঁদপুরে করোনা পরিস্থিতিতে ঘর থেকে বেরিয়ে পড়া মানুষদের মাঝে স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়াতে শোভাযাত্রা …

vv