ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / চাঁদপুরে পুলিশ-ছাত্রলীগ সংঘর্ষে আহতের সংখ্যা বেড়ে ৮৬

চাঁদপুরে পুলিশ-ছাত্রলীগ সংঘর্ষে আহতের সংখ্যা বেড়ে ৮৬

চাঁদপুর পুলিশ-ছাত্রলীগ সংঘর্ষে আহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৬। শুক্রবার রাত পৌনে ১২ টা পর্যন্ত চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, আহতদের মধ্যে পুলিশ ছাড়াও ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী রয়েছে।

আহত সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এবিএম রেজোয়ান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন মৃধা (গুলিবিদ্ধ)

আহতরা হলেন, এসআই প্রহলদ, ত্রিনাথ সাহা, অনুপ চক্রবর্তী ও কামরুজ্জামান। এএসআইদের মধ্যে এমরান হোসেন ও সেলিম। কনস্টেবলদের মধ্যে জয়নাল, আতাউদ্দিন, আরমান, জেসমিন, রফিউদ্দিন।

এছাড়া সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এবিএম রেজোয়ান, সাধারণ সম্পাদক নাছির গাজী, সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন মৃধা (গুলিবিদ্ধ) গুরুতর আহত হন।

হাসপাতালের রেজিস্টার সূত্রে আহতদের তালিকায় ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে রয়েছে হোসেন পাটওয়ারী, অনিক সর্দার, কাকন খান, হারাধন কর্মকার, সুমন, কাকন গাজী, জসিম গাজী, সোহেল মাহমুদ, রাসেল, সুমন ঢালী, মামুন দেওয়ান, রুবেল, আক্তার হোসেন, কামরুল হাসান, রাসেল, শুভ মিজি, মো. কামরুজ্জামান প্রধানীয়া, সাদ্দাম খান, মাজহারুল, রাজন খান, মনির ঢালী, মামুন চৌধুরী, ইয়াসিন আরাফাত, আতিক, শান্তা হাওলাদার, আল-আমিন তালুকদার, আদনান আজিজ, রুবেল, মেহেদী হাসান, মনুসুর আহমেদ, মো. খায়ের গাজী, গিয়াস উদ্দিন, মো. আজমির, মো. তাজুল ইসলাম মিয়াজী, দেওয়ান ইমরান, রাকিব হাসান, মো. রিয়াজ, মো. সাদ্দাম, মো. ইউনুছ, মাসুদ গাজী, মো. রনি, জাহাঙ্গীর আলম, সৈকত, মাহবুব আলম, আরিফুল, মুন্না ঢালী, সরওয়ার মজুমদার, মাইনুদ্দিন খান, জয় গোপাল সাহা, উত্তম দে, নাজমুল হোসেন, জাকির হোসেন, বিল্লাল সর্দার, সুমন ঢালী, আনোয়ার হাওলাদার, আজাদ পাটওয়ারী, সুজন পাটওয়ারী, শিমুল হাসান, সুজন, মারজান মোল্লা, বাবুল হোসেন, আবদুল করিম, শামিম সর্দার, ইকবাল বহরদার, আবু হানিফ, জসিম উদ্দিন, নাঈম, দেলোয়ার হোসেন, তাওহিদুল ইসলাম, মো. রফিক উদ্দিন, মো. আফজাল হোসেন, সিনু মনি, সিরাজুল হক।

গুলিবিদ্ধ সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন মৃধা প্রিয় চাঁদপুরকে বলেন, ‘আমার বাম হাতে ও পায়ে গুলি লেগেছে। আরো ক’জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে আমি শুনেছি।’

আহতদের অনেকে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ও কিছু সংখ্যক প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। আরো কিছু নেতাকর্মী চাঁদপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন বলে দাবি করেছন সিনিয়র নেতৃবৃন্দ।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত হাসপাতালে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ আহতদের খোজখবর নিতে হাসপাতালে ছুটে আসতে দেখা গেছে।

এদিকে এ ঘটনার পর থেকে চাঁদপুর শহরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

প্রসঙ্গত, চাঁদপুরে শুক্রবার (২৩ জুন) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে শহরের প্রাণকেন্দ্র কালিবাড়ি এলাকায় মোটর সাইকেলে তিন আরোহী বহনকে কেন্দ্র করে পুলিশ- ছাত্রলীগ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে

সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিকেল ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত সংঘর্ষে পুলিশসহ অনেক আহত হয় এবং পুলিশের দু’টি গাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল ও জেলা ছাত্রলীগের জ্যেষ্ঠ নেতারা উত্তেজিত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের শান্ত করেন।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক মো. আবদুস সবুর মন্ডল ঘটনাস্থলে এসে ঈদের আগেই সুষ্ঠু তদন্ত স্বাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

এ ঘটনায় জেলা অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম রোমান জানান, ‘তিনি ছাত্রলীগের এক নেতার মোটর সাইকেলে করে শপথ চত্বর পার হওয়ার সময় এক পুলিশ সদস্য তার মোটরসাইকেলটি থামানোর সংকেন দেন। তিনি কারণ জানতে চাইলে পাশে অবস্থানকারী জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আফজাল হোসেন আসেন। এ সময় দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এ নিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন স্থান থেকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এতে আশপাশের সব দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়।’

একপর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে ঘটনাস্থলে বাড়তি পুলিশ সদস্য এসে কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আকস্মিক এ ঘটনায় ঈদ মার্কেটে আসা যাত্রীরা এদিক-সেদিক ছোটাছুটি করে অনেকটা বিপাকে পড়েন এবং শহরের কেন্দ্রবিন্দুতে ঘন্টাব্যাপি যানজট লেগে যায়।

প্রতিবেদন: আনোয়ার হোসেন মানিক/ফিরোজ আলম খোকন

 

Facebook Comments

Check Also

কচুয়ায় পানিতে ডুবে এক বৃদ্বের মৃত্যু

মোঃ রাছেল, কচুয়া : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার বিতারা ইউনিয়নের মাঝিগাছা গ্রামের খালের পানিতে ডুবে কাউছার আহমেদ …

vv