ব্রেকিং নিউজঃ
Home / বিশেষ প্রতিবেদন / চাঁদপুরে `পুলিশের দায়িত্বশীল ভূমিকা মানুষের প্রশংসা পেয়েছে`

চাঁদপুরে `পুলিশের দায়িত্বশীল ভূমিকা মানুষের প্রশংসা পেয়েছে`

অমরেশ দত্ত জয় : চাঁদপুরে মানুষের মুখে মুখে জেলা পুলিশের মানবিক নানামুখি কার্যক্রমের প্রশংসা শোনা যাচ্ছে।এরমধ্যে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় লকডাউন বাস্তবায়নেও জেলা পুলিশ ব্যাপক তৎপরতা চালাচ্ছে। জীবনঝুঁকির এই সন্দিহানে গণসচেতনতা তৈরি করতে গিয়ে তাদের অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।তবুও পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান মানবসেবায় জেলা পুলিশের সব ইউনিটকে সদা জাগ্রত রেখে চলেছেন।

২১শে মে শুক্রবার এক পর্যবেক্ষনে দেখা যায়, লকডাউন কার্যকর,স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করা, বিভিন্ন স্থানে গণজমায়েত রোধ, অযথা ঘোরাঘুরি বন্ধ,কমিউনিটি পুলিশ ওয়াচ টিম গঠনের মাধ্যমে মার্কেট-দোকানপাট বন্ধ রাখার প্রক্রিয়া প্রণয়ন, জেলার বড় বড় বাজারগুলো বন্ধ রেখে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা, পুলিশের নিজস্ব বেতনের কিছু ও রেশনের অংশের অর্থায়নে অসহায়দের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে জেলা পুলিশ।

এদিকে পর্যবেক্ষণে আরো দেখা যায়, বিভিন্ন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক খাদ্য সহায়তা প্রদানে ত্রাণ নিতে আসা মানুষের প্রাপ্তি নিশ্চিতে সুশৃঙ্খলতা রক্ষা করা, লকডাউন শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত রাতের বেলা রাস্তায় বা প্লাটফর্মে শুয়ে থাকা অসহায় মানুষকে নিজেদের কেন্টিনে রান্না করা খাবার প্রদান, হিজড়া সম্প্রদায়ের একশ’ দশজন ও বেদে সম্প্রদায়ের প্রায় তিন শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান সহ জেলা পুলিশের নানামুখী পদক্ষেপ এখন মানুষের মুখে মুখে।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি নাসিম উদ্দিন জানান, ন্যায্যমূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রিতে সহায়তা, পথশিশু, রিকশাচালক,ভিক্ষুক, দুস্থ ও প্রতিবন্ধীদের মাঝে বিভিন্ন থানায় খাদ্য ও ইফতার সামগ্রী প্রদান,চাঁদপুর থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ধান কাটতে প্রায় দেড়শ’ শ্রমিক প্রেরণ, করোনা শনাক্ত রোগীর বাড়ি লকডাউন নিশ্চিত করাসহ নানা কাজে পুলিশ সুপার স্যারের নির্দেশে জেলা পুলিশের সব ক’টি ইউনিট সেবা নিশ্চিতে নিয়োজিত রয়েছেন।

এদিকে পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান তার অধীনস্থ কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রতিনিয়ত ছুটছেন সমগ্র জেলার বিভিন্ন প্রান্তে। এতে জেলার সেবা প্রত্যাশীদের কাছে পুলিশ সুপারের মানবিকতা প্রশংসিত হচ্ছে এবং পুলিশ সদস্যদের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কর্মহীন অসহায় হতদরিদ্র পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান, বাড়ি বাড়ি গিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি করা, প্রচার-প্রচারণার মাধ্যমে গণসচেতন তৈরি করা,করোনায় আক্রান্তদের ঘরে ঘরে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়ার কাজটি এখন পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে।

আর পুলিশ সুপারের সঙ্গে থেকে সার্বক্ষণিকভাবে ছুটে যাচ্ছেন পুলিশ সুপার পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ ও প্রশাসন) মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(হেডকোয়ার্টার)মো. আসাদুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, অতিরক্ত পুলিশ সুপার হাজীগঞ্জ সার্কেল আফজাল হোসেন, সিনিয়র সহকারী পুুলিশ সুপার সুুুপার মতলব সার্কেল আহসান হাবীব সহ প্রতিটি থানার ওসি, ডিবি’র ওসি সহ তাদের অধিনস্ত পুলিশবাহীনী।

এ ব্যপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান, মানবিক কাজের পাশাপাশি আমাদের নিয়মিত আইনশৃঙ্খলা রক্ষার কাজ থেকেও আমরা পিছিয়ে নেই। গেলো ২ মাসে বেশ কয়েকটি চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ডের আসামীদেরকে দ্রুত ধরতে সক্ষম পর্যন্ত হয়েছি। জাটকা রক্ষা অভিযানেও ছিলো নানামুখী পদক্ষেপ। এতে জেলার মানুষের মাঝে স্বস্তি ও অনেকটা সোহাদ্যপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করছে।

এ ব্যপারে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান জানান, আমরা প্রধানমন্ত্রী,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইজিপি মহোদয়ের মানবিক নির্দেশনা বাস্তবায়নে সর্বদা জনসাধারণের পাশে আছি।

করোনায় মানুষের সেবা দিতে গিয়ে ইতোমধ্যে চাঁদপুরে ১২ জন পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাতেও আমাদের মনোবল ভেঙে যায়নি। আমরা আমাদের দায়িত্ব পালনে সর্বদা অটুুট থাকবো।

Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুরে ঈদের নামাজে করোনা হতে মুক্তি পেতে মসজিদ গুলোতো কান্নার রোল

সাইফুল ইসলাম সিফাত : বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এর মধ্যে বাদ যায়নি বাংলাদেশও। তাই …

vv