ব্রেকিং নিউজঃ
Home / অপরাধ / চাঁদপুরে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান

চাঁদপুরে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর সদর উপজেলার ১৪ নং রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড লক্ষ্মীর চরে স্বামীর গলায় অস্ত্র ঠেকিয়ে গৃহবধূকে পালাক্রমে গণধর্ষণ করার ঘটনায় মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

চাঁদপুর মডেল থানায় ধর্ষিতার স্বামী আব্বাসবকাউল বাদী হয়ে চার জনের নাম উল্লেখ দুজনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন মামলা নং ৩০,তারিখ-২৩/৬/২০।

মামলার প্রেক্ষিতে মডেল থানার ওসি নাছিম উদ্দিন, তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসি তদন্ত হারুনুর রশিদ ওএকজন পুলিশ কর্মকর্তা সহ মোট ১১ জনের একটি পুলিশের টিম আসামিদের গ্রেফতার করার জন্য রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নে লক্ষীচর এলাকায় অভিযান করেন। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গণধর্ষণের মামলার আসামিরা এলাকা ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছে।

পুলিশ ধর্ষিতা গৃহবধূর কাছ থেকে গণধর্ষণের ঘটনা পুলিশ বিস্তারিত জেনে থানায় মামলা রুজু করে তাকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠায়। বর্তমানের  গৃহবধূ হাসপাতালে গাইনি বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসি তদন্ত হারুন রশিদ জানায়,গণধর্ষণের মামলায় এজাহারভুক্ত আসামী সহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ সাঁড়াশি অভিযান চালিয়েছে। পুলিশের উপস্থিতিতে তারা পালিয়ে গেল খুব দ্রুত তাদেরকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে। এই ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের কোনো অবস্থাতেই ছাড় দেওয়া হবে না।

উল্লেখ্য, গত রবিবার গভীর রাতে লক্ষ্মীর চরে কৃষক আব্বাস বকাউলের ঘরের দরজা ভেঙে ৭/৮ জন দুর্বৃত্ত ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে স্বামী আব্বাস বকাউলের গলায় দেশীয় অস্ত্র রাম দা ঠেকিয়ে পাশের রুমে তার স্ত্রীকে নিয়ে জোরপূর্বক গণধর্ষণ করে।

ধর্ষিতা গৃহবধূ ও তার স্বামী চাঁদপুর মডেল থানায় এসে এই লোমহর্ষক ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জানায়, এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ভুদাই গাজীর ছেলে বাবুল গাজী, শোবহান মল্লিকের ছেলে ফিরোজ মল্লিক, জাহাঙ্গীর প্রধানের ছেলে মোস্তফা প্রধানিয়া, শফী প্রধানিয়া ছেলে সবুজ প্রধানীয়া সহ ৭/৮জন মুখোশ পরে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঘরের দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকে।

এ সময় তারা গলায় অস্ত্র ঠেকিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে স্ত্রীকে পাশের ঘরে জোরপূর্বক নিয়ে একের পর এক ধর্ষণ করে। এ সময় কয়েকজনের মুখোশ খোলা থাকায় তাদেরকে খুব সহজে চেনা যায়।

ঘটনাটি রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ওসমান গাজী সহ কয়েকজনকে জানালে তারা ধর্ষণকারী কয়েকজনকে এনে সালিশি বৈঠক করেন। পরে সবার উপস্থিতিতে তাদেরকে জুতা পিটা করে ছেড়ে দেয়।

সোমবার সকালে ধর্ষণকারীরা লোকজন নিয়ে বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায় অবশেষে সেখান থেকে পালিয়ে এসে মেঘনা নদী পার হয়ে থানায় আশ্রয় নেই।

এ ঘটনায় এখন আমরা পুরো পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। যেকোনো সময় ধর্ষণকারীরা আবারো বাড়িতে হামলা করার আশঙ্কা রয়েছে। এই ধর্ষনের ঘটনায় ধর্ষণকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

Facebook Comments

Check Also

হাজীগঞ্জে চুরি হওয়া দুই মোটরসাইকেল সহ চোর গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার : কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম থেকে হোন্ডা চোর মনির হোসেনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে হাজীগঞ্জ …

Shares
vv