ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / চাঁদপুরে করোনা ভাইরাস নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে মাকসুদ আটক
ডিবি চাঁদপুর কর্তৃক গ্রেফতারকৃত আসামী খাজা মোহাম্মদ মাকসুদ

চাঁদপুরে করোনা ভাইরাস নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে মাকসুদ আটক

অমরেশ দত্ত জয় : চাঁদপুরে করোনা ভাইরাস নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজবের দায়ে একজন কে আটক করা হয়েছে।

২৩শে মার্চ সোমবার এ আটক করা হয়।আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান।

তিনি জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে খাজা মোহাম্মদ মাকসুদ(৩৯) নামে করোনা ভাইরাস নিয়ে গুজব রটায়।তিনি আরো জানান, গুজব রটানো ওই ব্যক্তি ফেসবুকে ভিডিও ক্লিপ বানিয়ে প্রচার চালিয়েছেন যে করোনা ভাইরাসে একদিনে মারা গেছে ১৮জন। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভুয়া ও গুজব এবং মানুষের মাঝে আতঙ্ক সৃষ্টি করার মতো ঘটনা। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

এদিকে এ ব্যপারে ডিবি চাঁদপুরের অফিসার ইনচার্জ মোঃ নূর হোসেন মামুন জানান, গুজবের দায়ে আটক আসামী খাজা মোহাম্মদ মাকসুদকে আমরা বিষ্ণুদী সাকীনস্থ বাসষ্ট্যান্ড ফয়সাল শপিং কমপ্লেক্স এর ২য় তলার তার মালিকীয় সাইমুম ডিজিটাল হাউজ এন্ড অফসেট প্রেস নামক দোকান হতেই দুপুর সাড়ে পৌনে ১টায় আটক করেছি।

তিনি উদ্ধার প্রসঙ্গে জানান, আমরা মাকসুদকে আটকপূর্বক তার ব্যবহৃত মোবাইলফোন যাচাই করেছি। সেখানে ইউটিউব এ আপলোড দেওয়া চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ এর ডাক্তার ইফতেখার আদনান কর্তৃক মোবাইল ফোনে বলা করোনা ভাইরাসে একদিনে চট্টগ্রামে মৃতের সংখ্যা ১৮/১৯ জন উল্লেখিত একটি মিথ্যা, ভুয়া ও গুজব সৃষ্টিকারী ভিডিও ক্লিপ গত ২১শে মার্চ শনিবার সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে তিনি শেয়ার করে। যা প্রচার করে তিনি জনমনে অস্থিরতা বা বিশৃংখলা সৃষ্টি করে আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটনোর উপক্রম করেন। যেজন্য তার ব্যবহৃত মোবাইলসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ব্যপারে জেলা গোয়েন্দা সংস্থার এসআই মোঃ রেজাউল কররিম জানান, আসামী খাজা মোহাম্মদ মাকসুদের শহরের ইসলামপুর গাছতলা এলাকায়। তার পিতার নাম খাজা মোহাম্মদ অলিউল্লা।

এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলা নং-৪৮(২৩-০৩-২০২০)।

এদিকে এই ব্যপারে চাঁদপুর সদর মডেল থানার ইন্সপেক্টর(তদন্ত) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ জানান, আসামী খাজা মোহাম্মদ মাকসুদের বিরুদ্ধে এটি ছাড়াও আরো নাশকতার মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। সেগুলো হলো, চাঁদপুর সদর মডেল থানার মামলা নং- ০৬, তারিখ- ০৩/১২/২০১৩খ্রিঃ ধারা-১৪৩/১৪৭/১৪৮/১৪৯/৩৩২/৩৩৩/৩০২/৪২৭/৩৪ পেনাল কোড।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার মামলা নং- ৪৪, তারিখ- ২২/০২/২০১৩খ্রিঃ, ধারা- ১৪৩/৩৫৩/৩৩২/৩০৭/৩৩৪/৩৪ পেনাল কোড। চাঁদপুর সদর মডেল থানার মামলা নং- ৪৫, তারিখ- ২২/০২/২০১৩খ্রিঃ, ধারা- ১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৬(২)। চাঁদপুর সদর মডেল থানার মামলা নং- ০৭, তারিখ- ০৩/১২/২০১৩খ্রিঃ, ধারা- ১৯০৮ সালের বিস্ফোরকদ্রব্য আইনের ৩/৬।

Facebook Comments

Check Also

কচুয়ায় যুবককে প্রকাশ্যে পানিতে চুবিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার ৩নং বিতারা ইউনিয়নের বাইছারা (লৈয়ামেহের) গ্রামে ২৯ মে শুক্রবার সকালে …

vv