ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / চাঁদপুরে একদিনে সর্বোচ্চ ৪২৪ নমুনার রেকর্ড সংখ্যক ১৬৯ জনের করোনা শনাক্ত

চাঁদপুরে একদিনে সর্বোচ্চ ৪২৪ নমুনার রেকর্ড সংখ্যক ১৬৯ জনের করোনা শনাক্ত

মাসুদ হোসেন : চাঁদপুরে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। দ্রুতই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। সেই সাথে ব্যাপক হারে শহর থেকে গ্রামে ছড়িয়ে পড়েছে ভাইরাসটি।

সোমবার (১৯ জুলাই) সন্ধ্যা পর্যন্ত জেলায় করোনাভাইরাসে মোট ১৪৬ জনের মৃত্যু হলো।
গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে রেকর্ড সংখ্যক ১৬৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৯.৮৫ ভাগ। এ নিয়ে জেলায় মোট রোগীর সংখ্যা ৭ হাজার ৩৪৩ জন। এদিকে চলতি মাসের প্রথম ১০ দিনে জেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের।

গত জুন মাসে জেলায় ৭৫২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে রোগীর সংখ্যা ছিল ৫ হাজার ৪৮০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। গত কয়েকদিনে গ্রামে বেড়েই চলছে আক্রান্ত এবং উপসর্গের সংখ্যা। হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বাড়ায় কর্তৃপক্ষকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। এদিকে চলতি মাসের ১৯ দিনে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৬৩ জন। আর আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ১৯ জন।

সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, সোমবার (১৯ জুলাই) একদিনে সর্বোচ্চ ৪২৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এদের থেকে নতুন করে আরো ১৬৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। আরটি- পিসিআর ও আরএটি ল্যাবে শনাক্ত হওয়া ১৬৯ জনের উপজেলা ভিত্তিক পরিসংখ্যান হচ্ছে- চাঁদপুর সদরে ৪৯ জন, হাজীগঞ্জে ২০ জন, ফরিদগঞ্জে ২৮ জন, মতলব উত্তরে ১৮ জন, মতলব দক্ষিণে ৪ জন, শাহরাস্তিতে ২৩ জন, হাইমচরে ৭ জন, কচুয়ায় ১৯ জন ও শরীয়তপুর সদর উপজেলার ১ জন। এই সাত সহস্রাধিক রোগীর মধ্যে ১৯ জুলাই পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫ হাজার ৫৩৮ জন। আর চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন ১ হাজার ৬৫৯ জন।

জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪৬ জন। এদের মধ্যে- চাঁদপুর সদরে ৫৪, ফরিদগঞ্জে ২৫, হাজীগঞ্জে ২২ জন, শাহরাস্তিতে ১৫ জন, কচুয়ায় ৭ জন, মতলব উত্তরে ১২ জন, মতলব দক্ষিণে ৮ জন ও হাইমচরে ৩ জন।

Facebook Comments

Check Also

মৃত্যুর আগে সেলিম ফিরতে চান চাঁদপুরের আপনজনদের কাছে

নিজস্ব প্রতিনিধি : ৪০ বছর আগে যখন বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান সেলিম মিয়া, তখন সবেমাত্র ম্যাট্রিক …

Shares
vv