ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / চাঁদপুরে আরবি শিক্ষকের অমানবিক নির্যাতনে রক্তাক্ত শিশু

চাঁদপুরে আরবি শিক্ষকের অমানবিক নির্যাতনে রক্তাক্ত শিশু

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুর পৌরসভার ১৪ নং ওয়ার্ডে ষোলঘর বিটি রোড মোল্লা বাড়ি সংলগ্ন খান বাড়ি জামে মসজিদের মোয়াজ্জেম কবিরের (২৭) অমানবিক নির্যাতনে রক্তাক্ত শিশু জিদান হোসেন (৯)।
শারিরীক নির্যাতনের  শিকার জিদান হোসেনের মা ফাতেমা হ্যাপি জানান, আমার ছেলে সকাল ১০ ঘটিকায় কাজী বাড়ি সোহেলের বাসায় আরবি পড়তে যায়। মোয়াজ্জেম আসে পাশের আরো কয়েক জনকে একত্রে আমার ছেলেকে আরবি পাড়াত। আমার ছেলে আজ মোয়াজ্জেমের পাশে বসে। ওই সময় সুর্বনা (১৫) নামে একটি উপযুক্ত মেয়ে পড়তে আসলে মোয়াজ্জেম আমার ছেলেকে ধমক দিয়ে অন্য স্থানে গিয়ে বসতে বলে। আমার ছেলে সুর্বনাকে বলে আপু আমি আজ হুজুরের পাশে বসি। এই কথা কেন সুর্বনাকে আমার ছেলে বললো সে জন্য মোয়াজ্জেম আমার ছেলেকে মাটিতে শুইয়ে তার পীঠে দাড়িয়ে গলায় পাড়া দেয়, কপালে মাথায় এলোপাথাড়ি লাথি মারে।
এক পর্যায়ে রুমের দরজা বন্ধ করে এলোপাথাড়ি বেতের আঘাতে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে রক্তাক্ত করে অজ্ঞান করে ফেলে। উপস্থিত অন্যান্য ছাত্র ছাত্রীর চিৎকারে আশেপাশের মানুষ আমার ছেলেকে উদ্ধার করে। আমি দৌড়ে আমার ছেলেকে পরে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাই। মোয়াজ্জেম ওই সময় ঘটনার স্থান থেকে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে।
এদিকে শিশুর উপর এই অমানুবিক শারিরীক নির্যাতনের ফলে সচেতন মহল সহ এলাকায় মোয়াজ্জেম কবির এর বিরুদ্ধে নিন্দার জড় বইছে। শিশুর উপর এই নির্যাতন কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না এলাকার লোকজন। এলাকার লোক জনের দাবি তদন্ত পূর্বক কবির মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে দ্রুত আইন গত ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক।
Facebook Comments

Check Also

ক্ষুধার্ত-অসহায় পথচারীদের জন্য বিনামূল্যে ফ্রিজে খাবার বিতরণ

মনিরামপুরে অসহায় ক্ষুধার্ত পথচারীদের জন্য রাস্তার ধারে ফ্রিজ দিলেন আলী রেজা রাজু। আপনি যদি ক্ষুধার্ত …

Shares
vv