ব্রেকিং নিউজঃ
Home / সম্পাদকীয় / চাঁদপুরের ডিবি ওসি– আমাদের প্রত্যাশা

চাঁদপুরের ডিবি ওসি– আমাদের প্রত্যাশা

আমাদের জানা মতে চাঁদপুর ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চ (ডিবি) ওসি নুর হোসেন মামুন চৌকশ পুলিশ অফিসার। তিনি সততার সহিত কাজের মধ্যে সাফল্যের আত্মতৃপ্তি পান। তিনি একজন প্রকৃত দেশ প্রেমীক এবং আইনের সহায়তা থেকে বিচ্ছিন্ন সমাজের মানুষগুলোকে সহজে কাছে টেনে নিয়ে যে সেবা দিচ্ছেন যারা তার টেবিলে গিয়েছেন তারাই তা অনুধাবন করতে পারছেন। বলতে গেলে তিনি অনেক গুনে গুনাম্বিত। তার দরজা সকল শ্রেনীর লোকের জন্য উম্মুক্ত।
তিনি শাহরাস্তি থানায় ওসি তদন্ত থাকালিন অনেক দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন। ২০১৮ সালে পদোন্নতি পেয়ে চাঁদপুর জেলা ডিবি ওসি হিসেবে যোগদান করেন। এর পর শুরু হয় আরেক ধাপ কর্মের পরীক্ষা। জেলা পুলিশ সুপার মহোদয়ের সার্বিক দিক নির্দেশনায় বিশাল গুরুদায়িত্ব নিয়ে কর্ম পরিকল্পনার মধ্য দিয়ে মাঠে নেমে পড়েন তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী, জঙ্গী, ডাকাত, মাদক ব্যবসায়ীসহ বড় বড় ঘটনা নির্মুল করতে। রৌদ্র, বৃষ্টি, ঝড় ও তুফান মাথায় নিয়ে ঘুমহীন গন্তব্যহীন স্থানে ছুটেছেন। তাতে সফলও হয়েছেন।
এই ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চ (ডিবি) অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও স্পর্শকাতর মামলা খুন, ডাকাতি, ছিনতাই, সংঘবদ্ধ চক্র এবং আগাম গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ, মাদক ও জঙ্গীসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী দলের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে সমগ্র জেলার আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রনে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।
তার অধিনস্থ ২জন ইন্সেপেক্টর, ৭জন সাব-ইন্সেপেক্টর, ৭জন এসআই, ২৫জন সিপাহীসহ মোট ৪১জন নিয়ে শক্তিশালী ও দক্ষ ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চ (ডিবি) টিম রয়েছে। এই টিম তার কর্ম পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ২০১৯ সালের জানুয়ারী হতে ডিসেম্বর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে প্রায় ৮১ লাখ টাকার মাদকসহ ১টি গাড়ি উদ্ধার করেন এবং ২৮৪টি মামলা দায়ের করেন। একই সঙ্গে এজাহারনামীয় ৪১৬ জন আসামীর মধ্য ৪১২জনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। চিরুনি অভিযানে অক্লান্ত পরিশ্রমে চাঁদপুর জেলার ৮টি থানা ও সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে স্বস্তির বোধ নেমে এসেছে। আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক হয়ে উঠায় মানুষ উম্মুক্ত চলাফেরা করতে পারছে।
আমাদের প্রত্যাশা পুলিশ সুপার মহোদয়ের আর্শিবাদ নিয়ে চাঁদপুরের ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চের ওসি নুর হোসেন মামুন সত্যিকারের এক জন দেশপ্রেমিক ও জনবান্ধব ব্যক্তি হিসেবে কর্ম পরিচালনা করে যাক। এবং চাঁদপুরের মাটি ও মানুষ যেন নুর হোসেন মামুনের কথা স্মরনে রাখে এমন দৃষ্টান্ত স্থাপন করুক।
Facebook Comments

Check Also

এমপি’র মহানুভাবতায় দৃষ্টিহীন পেলো বাসস্থান ও নগদ অর্থ

চোখ থেকেও এই সমাজের অধিকাংশ লোক অন্ধ। আমরা নিজে বিশিষ্ট্য সমাজ সেবক, দানবীর, বড় বড় …

vv