ব্রেকিং নিউজঃ
Home / শীর্ষ / কুমিল্লায় বাবা-মায়ের কবরের পাশে শায়িত হলেন মুনিয়া

কুমিল্লায় বাবা-মায়ের কবরের পাশে শায়িত হলেন মুনিয়া

শাকিল মোল্লা, কুমিল্লা : মঙ্গলবার বাদ আছর নামাজের জানাজা শেষে কুমিল্লা নগরীর টমছমব্রিজ কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে শায়িত হলেন মোশারাত জাহান মুনিয়া। এর আগে ৫টা ৭ মিনিটে ঢাকা থেকে তাকে বহনকারী লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স কুমিল্লা নগরীর বাগিচাগাঁও তার বড় বোন ও মামলার বাদী নুসরাত জাহানের ভাড়া বাসা অরণীতে আনা হয়।

এখানে লাশটি আনা মাত্র এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। আত্মীয়স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। মাত্র ৩ মিনিট এখানে রাখার পর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় জানাজা ও দাফনের উদ্দেশ্যে টমছমব্রিজ কবরস্থানে। সেখানে বাদ আছর জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়। এই কবরস্থানেই নিহত মোশরাত জাহান মুনিয়ার বাবা বীরমুক্তিযোদ্ধা সফিকুর রহমান ও মা ব্যাংক কর্মকর্তা সেতারা বেগমকে দাফন করা হয়েছিল।

জানাজা শেষে মুনিয়ার আত্মীয়স্বজনরা সাংবাদিকদের জানান, দেশের প্রত্যেক নাগরিকেরই সুষ্ঠু বিচার পাওয়ার অধিকার আছে। মুনিয়াকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করছে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। টাকার ও ক্ষমতার জোরে যেন সে কোন মতেই পার পেয়ে যেতে না পারে। আমরা মুনিয়া হত্যার বিচার চাই। সায়েম সোবহানের ফাঁসি চাই।

উল্লেখ্য, সোমবার সন্ধ্যার পর গুলশান-২-এর ১২০ নম্বর রোডের ১৯ নম্বর ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান (মুনিয়া) নামের এই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে সোমবার দিবাগত সাড়ে তিনটার দিকে মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান বাদী হয়ে গুলশান থানায় বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরকে আসামি করে মামলা দায়ের করে। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজে পোস্ট মর্টেম শেষ করে আইনি জটিলতা পেরিয়ে আজ বিকেলে মুনিয়ার লাশ কুমিল্লা আনা হয়।

Facebook Comments

Check Also

মৃত্যুর আগে সেলিম ফিরতে চান চাঁদপুরের আপনজনদের কাছে

নিজস্ব প্রতিনিধি : ৪০ বছর আগে যখন বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান সেলিম মিয়া, তখন সবেমাত্র ম্যাট্রিক …

Shares
vv