ব্রেকিং নিউজঃ
Home / দেশজুড়ে / কাল সকালে সদরঘাট থেকে ছাড়বে লঞ্চ

কাল সকালে সদরঘাট থেকে ছাড়বে লঞ্চ

প্রিয় চাঁদপুর : ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবের কারণে ঢাকা নদীবন্দর সদরঘাট টার্মিনাল থেকে সব ধরনের নৌযান চলাচল আজ রোববারও রয়েছে। লঞ্চঘাটে যাত্রী আসলেও বৈরি আবহাওয়ার কারণে আজ লঞ্চ ছাড়া হচ্ছে না। তবে আগামীকাল (সোমবার) সকাল থেকে সব ধরনের নৌযান চলাচল করবে।

ঢাকা নদীবন্দরের (সদরঘাট) যুগ্ম-পরিচালক (নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা) আলমগীর কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আজ ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবের কারণ সদর ঘাট টার্মিনাল থেকে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে আগামীকাল (১১ নভেম্বর) থেকে সব ধরনের নৌযান চলাচল করবে।’

রোববার (১০ নভেম্বর) ঢাকা নদীবন্দর সদরঘাট টার্মিনালে সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, অনেকে বাড়ি যাওয়ার জন্য টার্মিনালে বসে আছেন। অনেকে শুয়ে আছেন টার্মিনালের ভিতরে। সবার মুখে একটাই প্রশ্ন-‘কখন ছাড়বে লঞ্চ?’

সকাল থেকে বরিশালে যাওয়ার জন্য পরিবারসহ টার্মিনালে বসে আছেন জসিম মিয়া। তিনি বলেন, ‘সপরিবারে বরিশাল যাওয়ার জন্য টার্মিনালে সকাল থেকে বসে আছি। কখন ছাড়বে লঞ্চ তা জানি না। কেউ বলতেও পারছে না।’

রহিম উদ্দিন যাবেন ভোলায়। তিনি দুপুরে টার্মিনালে আসেন। তিনি বলেন, ‘বাড়ি যাওয়ার জন্য দুই দিন ধরে ঘুরছি। কখন লঞ্চ ছাড়বে তা বলতে পারছি না ‘

পারাবত-১০ এর কর্মচারী মালিক লাল বলেন, ‘দুই দিন ধরে আমরা লঞ্চ নিয়ে বসে আছি। কর্তৃপক্ষ জানালে আমরা লঞ্চ ছাড়ব।’

এর আগে আজ দুপুরে আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ ড. আব্দুল মান্নান বলেন, “প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হলেও সকাল থেকেই পটুয়াখালী ও বাগেরহাট জেলায় ‘স্থল নিম্নচাপ’ হিসেবে অবস্থান করছে। আবহাওয়া অধিদফতর থেকে নদীবন্দরে দুই ও সমুদ্রবন্দর এলাকায় তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন, ‘চার নম্বর সতর্কতা সংকেতের নিচে থাকলে ঘূর্ণিঝড়ের নাম থাকে না। তাই বুলবুলকে এখন ঘূর্ণিঝড় হিসেবে নয়, স্থল নিম্নচাপ হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় বুলবুল দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। তবে সকাল থেকেই পটুয়াখালী ও বাগেরহাট রিজিয়নে স্থল নিম্নচাপ হিসেবে অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও বৃষ্টি ঝরিয়ে ক্রমশ দুর্বল হতে পারে।’

নিম্নচাপের কারণে সংশ্লিষ্ট এলাকায় বাতাস ও বৃষ্টিপাত হচ্ছে। গড়ে ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইছে। পটুয়াখালীতে ৪৫ ও ভোলায় ৯৬ মিলিমিটারে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। আজ সারাদিনই নদীবন্দরে দুই ও সমুদ্রবন্দর এলাকায় ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত বলবৎ থাকবে বলেও উল্লেখ করেন আবহাওয়াবিদ ড. আব্দুল মান্নান।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের জন্য আর কোনো বিশেষ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামসুদ্দিন আহমেদ।

মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর।

চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত এবং কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে চার নম্বর সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতরের ৩০ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, খুলনা ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আরও সামান্য উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে আজ সকাল ৬টায় বাগেরহাট, বরিশাল ও পটুয়াখালী অঞ্চলে গভীর নিম্নচাপ আকারে অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও বৃষ্টি ঝরিয়ে ক্রমশ দুর্বল হতে পারে।

গভীর নিম্নচাপের কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে।

Facebook Comments

Check Also

বুলবুলের আঘাতে লন্ডভন্ড ভোলা, আহত ২০ : উদ্ধার চলছে

প্রিয় চাঁদপুর : ভোলার লালমোহনে ‘ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের’ আঘাতে গাছ উপড়ে ৩০টি বসতঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় …

vv