ব্রেকিং নিউজঃ
Home / মতামত / কর্মহীন মানুষের পাশে একজন কামরুজ্জামান মিন্টু

কর্মহীন মানুষের পাশে একজন কামরুজ্জামান মিন্টু

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম হৃদয় :

মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারেনা ও বন্ধু
মানুষ মানুষকে পণ্য করে
মানুষ মানুষকে জীবিকা করে
পুরানো ইতিহাস ফিরে এলে
লজ্জাকি তুমি পাবেনা ও বন্ধু
বল কি তোমার ক্ষতি
জীবনের অথই নদী
পার হয় তোমাকে ধরে দুর্বল মানুষ যদি
মানুষ যদি না হয় মানুষ, দানব কখনো হয়না মানুষ
যদি দানব কখনো বা হয় মানুষ
লজ্জাকি তুমি পাবেনা ও বন্ধু!
মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারেনা ও বন্ধু!

গীতিকার এর লেখা গান আর স্বনামধন্য  শিল্পী ভূপেন হাজারিকার কন্ঠে গাওয়া বিখ্যাত এই গান চলবে আমরন,  যখনি মানুষ মানুষের পাশে মানবিক সাহায্য বা আবেদন নিয়ে যায় তখনি মনের অজান্তেই – মানুষ মানুষের জন্য গানটির কথা মনে হয়।

তেমনি ভাবে আজ বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাস আতংকে পৃথিবীর ধনী দেশের ধনী রাস্ট্রপ্রধানগণ নিরুপায় হয়ে হাল ছেড়ে দিয়ে যখন এক সুবিশাল আসমান আর জমিনের মালিকের দিকে আংগুল উঁচিয়ে বলছে আই এম নাথিং- আল্লাহ ইজ নো এভরিথিং, আল্লাহ ইজ দেয়ার। এসব বলে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন কেউবা আবার নিজ গৃহে নিজেই বন্ধি।

মাঠে আছে প্রশাসনের নিরাপত্তা কর্মী, সাস্থ্যসেবা কর্মী,  মানবিক, সামাজিক কিছু সংস্থা যারা নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন।

এই ভাইরাস যদি মানুষ বা কোন দেশের তৈরি মহামারী হতো, তাহলে এতো দিনে ক্ষেপণাস্ত্র আর জংগী বিমানের বিধবংশী গোলাবর্ষণে নিমাশ করে দিতেন পৃথিবীর ক্ষমতাধর দেশের ক্ষমতাধর বাহাদুররা।

আজ কোন ভাবেই এর অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না দেখেই নিরুপায় তারা।

একমাত্র পৃথিবীর মালিক মহান আল্লাহ ছাড়া কেউ বলতে পারবেন না, এর শুরু কি আর শেষ কোথায়।  আজ বিশ্ব জুড়ে শিশু, যুবক, বৃদ্ধ সবার মুখে একটাই নাম করোনা।
হে আল্লাহ পাক তোমার প্রিয় হাবিব, প্রিয় বন্ধু বিশ্ব নবীর উম্মত হিসাবে আমাদের ক্ষমা করুন,  যে কয়েকটি দিন হায়াত রেখেছেন পরিশুদ্ধ হওয়ার সুযোগ দিন।

বিশ্ব জুড়ে মানুষ যখন করোনা নিয়ে আতংকে – সেখানে বাংলাদেশের মানুষের মাঝে একটাই কথা আল্লাহ বাঁচাইলে বাঁচবো নাইলে মরে যাবো। সরকারি ভাবে লকডাউন, বা ঘরে থাকার জন্য বলা হয়েছে। দৈনিক খেটে খাওয়া মানুষ গুলিও আজ  কর্মহীন হয়ে পড়েছে।

খেটে খাওয়া কর্মহীন মানুষের জন্য সরকারি ভাবে নেয়া হয়েছে নানান পদক্ষেপ- দেয়া হচ্ছে খাদ্য।

এরি মাঝে চাঁদপুর শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান,  বর্তমান শাহরাস্তি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামরুজ্জামান মিন্টুর উদ্যোগে নেতা – কর্মীদের সাথে নিয়ে  উপজেলার খেটে খাওয়া মানুষের ঘরে ঘরে  নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র এবং খাদ্য পৌঁছে দিচ্ছেন তিনি।

কামরুজ্জামান মিন্টু ছোট বেলা থেকেই সামাজিকভাবে মানুষের জন্য কাজ করার চেস্টা করতেন,  ছাত্র রাজনিতি থেকেই তিনি তা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন,  স্থানীয় স্কুল, কলেজ, মসজিদ ও মাদ্রাসায় দান অনুদান দিয়ে থাকেন।

কামরুজ্জামান মিন্টুর সাথে  আমার ব্যাক্তিগত পরিচয় প্রায় ২৫ বছর ধরে, উনার আচার, আচরণ, আন্তরিকতা, সামাজিকতা ভিন্ন,  তিনি সবসময় ভালো কাজ গুলি করার চেস্টা করেন, স্থানীয় সংবাদ কর্মী, সাংস্কৃতিক সংগঠন সহ সকলের সঙ্গেই রয়েছে সুসম্পর্ক।

একজন দায়িত্বশীল রাজনৈতিক ব্যাক্তি  হিসেবেও তিনি সকলের প্রিয় মিন্টু ভাই হিসাবে পরিচিত।
নেই কোন অহংকার, সদালাপী, প্রানবন্ত একজন মানুষ।

করোনায় কর্মহীন মানুষের পাশে মানবিক সাহায্য নিয়ে প্রতি নিয়তেই ছুটে যাচ্ছেন সবার ঘরে ঘরে,  তিনি বলেন সবাই যদি নিজ নিজ জায়গা থেকে মানবিক সাহায্য নিয়ে এগিয়ে আসে তাহলে শাহরাস্তি উপজেলার  কোন পরিবার খাদ্যে কস্ট পাবেনা।
অপর দিকে আমাদের স্থানীয় সংসদ সদস্য আমাদের অভিবাবক মেজর( অবঃ)  রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি মহোদয় প্রতিনিয়ত  জনসাধারণের খাদ্য, সাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার ব্যাপারে নির্দেশ দিয়ে যাচ্ছেন ।

আসুন না সবাই কামরুজ্জামান মিন্টুর মতই নিজ নিজ এলাকায় মানবতার হাত বাড়িয়ে দেই,  আমার আপনার একটু সহযোগিতা পেয়ে যদি একটি পরিবার ভালো থাকে তাহলেই আল্লাহর রহমত নাজিল হবে, কেটে যাবে সকল অন্ধকার, ফিরে পাবো আলো ইনশাআল্লাহ।

জীবনটাই যদি না থাকে তাহলে সেই  সম্পদ কোন কাজে  আসবেনা, পাশের ঘরের বা সমাজের মানুষকে কস্টে রেখে কি হবে ব্যাংকে   টাকা জমা রেখে।  আসুন সবাই করোনায়  আতংকিত না  হয়ে – একটু সচেতন হই।
নিজে সচেতন হই, সমাজের অন্যকে সচেতন করি।

অযথা মাঠে, ঘাটে, হাটে, বাজারে বা জনসমাগম যেখানে বেশি সেখান থেকে দুরে থাকি, একে অন্যের কাছ থেকে ৩/৬ ফিট দুরে থাকি। সাবান দিয়ে বেশি করে হাত ধুতে হবে এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে।  আল্লাহ পাক সবাইকে হেফাজত করুন এবং সুস্থ ও নেক হায়াত দান করুন।

লেখক পরিচিতি : সাংবাদিক, নাট্যকার লেখক, কবি।  মার্কেটিং ডিরেক্টর – রিয়াদ প্রবাসী সেবা কেন্দ্র (EDC)
পাবলিক রিলেশন অফিসার- রিয়াদ ঢাকা মেডিকেল সেন্টার, সৌদি আরব।

Facebook Comments

Check Also

সাংস্কৃতিক পরিবারের পাশে সফিক মজুমদার

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম হৃদয় : মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য একটু সহানুভূতি কি মানুষ …

vv