ব্রেকিং নিউজঃ
Home / প্রিয় চাঁদপুর / প্রিয় মতলব উত্তর / এক শতক জমিতে পানির জন্য ১৫০ টাকা আদায়, তবুও কৃষক পাচ্ছেনা পানি
সেচ ব›দ্ধ রেখে ড্রেন পাকা করন ও ধানের জমির দূরবস্থা দেখাচ্ছেন কৃষক।

এক শতক জমিতে পানির জন্য ১৫০ টাকা আদায়, তবুও কৃষক পাচ্ছেনা পানি

মতলব দক্ষিণ প্রতিনিধি : মতলব দক্ষিণ উপজেলায় সেচ প্রকল্পে ১ শতক জমিতে পানির জন্য ১ শত ৫০ টাকা দিয়েও ঠিক মত পানি পাচ্ছেনা প্রকল্পের কৃষকগণ। এতে ফসল হানির আশঙ্কায় পড়েছে প্রায় দেড় শতাধিক কৃষক। এছাড়াও ন্যায্য পানি চাইতে গিয়ে কৃষক লাঞ্চিত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে একাধিক।

সরেজমিনে জানা যায়, মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদি দক্ষিণ ইউনিয়নের দক্ষিণ ঘোড়াধারী গ্রামের কৃষক কালু মিয়ার ধানের জমিতে পানি চাইতে গেলে ঐ সেচের মালিক শিপন মিয়ার সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে শিপন কালু মিয়াকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ ও লাঞ্চিত করে। এ ছাড়াও নুরুল্লা মৃধা, আবুল কাশেম, আঃ রহিম, হাসান প্রধান, ছেলামত উল্লা, সুমন মিজিসহ অনেক কৃষকের সাথেই তর্ক বিতর্কসহ এমন দুর্ব্যবহারের ঘটনা ঘটেছে।

অসহায় একাধিক আরো কৃষকরা বলেন, টাকার বিনিময়ে পানি চাইতে গেলেও আমরা পরিপূর্ণ পানি পাইনা। বিদ্যুৎ থাকলেও তিনি থাকেন না এবং এত বড় সেচ প্রকল্পে কোন লাইন ম্যান নাই। এই সময় তিনি পানি দেয়া বন্ধ রেখে ড্রেন পাকা করনের কাজ করছেন। এমনকি শিপন মিয়ার ট্রাক্টর ছাড়া অন্য কোন মালিকের ট্রাক্টর দিয়ে হালচাষ করতে চাইলে সেই জমিতে পানি দিবেনা বলে কৃষকদের জিম্মি করে রাখছেন তিনি। তাই আমরা ইউএনও স্যারের হস্তক্ষেপ কামানা করছি।

আরো জানাযায়, সেচ প্রকল্পটি প্রায় ৩৫ একর জমি নিয়ে। এবং এর আওতাধিন ১৫০ জন কৃষক নিয়মিত ধানের চাষ করে আসছে। শিপন প্রতি শতক জমিতে পানি দিতে ১৫০ টাকা নিলেও কৃষককে তাদের চাহিদা মতো প্রয়োজনীয় পানি জমিতে দিতে পাচ্ছেনা।

এ বিষয়ে সেচ প্রকল্পের মালিক মো. শিপন মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ঘনঘন বিদ্যুতের লোডশেডিং এর কারণে চাহিদা মত পানি দেয়া যাচ্ছেনা।

Facebook Comments

Check Also

সকল জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন শতভাগ করতে হবে : আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান

সজীব খান : চাঁদপুর সদর উপজেলার ৬নং মৈশাদী ইউনিয়ন পরিষদের এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের মাস্ক, সাবান, ব্লিচিং, …

vv