ব্রেকিং নিউজঃ
Home / দেশজুড়ে / ইলিশ উৎপাদনে এবং দুধ উৎপাদনে দেশ অনেক এগিয়েছে : উপজেলা চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ
মতলব উত্তরে জাতীয় প্রাণী সম্পদ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ।

ইলিশ উৎপাদনে এবং দুধ উৎপাদনে দেশ অনেক এগিয়েছে : উপজেলা চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ

মনিরুল ইসলাম মনির : মতলব উত্তরে জাতীয় প্রাণী সম্পদ সেবা সপ্তাহে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয় চত্ত্বর থেকে র‌্যালী বের হয়ে স্থানীয় এলাকার প্রধান প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে পুণরায় প্রাণী সম্পদ কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।

এরপর অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ। মনজুর আহমদ বলেন, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা থাকলে খামার ব্যবসা চাঙ্গা করা সম্ভব। এজন্য উপজেলা ভিত্তিক ব্যবসায়ী সংগঠন থাকতে হবে। তিনি সকল খামারীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে সংগঠনের আওতায় আসতে হবে। তিনি আরো বলেন, মুরগী, ডিম ও দুধ সহ আমিষ জাতীয় খাদ্য বেশি বেশি উৎপাদন করতে হবে। যাতে করে এই এলাকার মানুষ অন্য এলাকার খাদ্য পণ্যের নির্ভরশীল না হয়। তাহলেই মাংস, দুধ ও ডিমের ন্যায্য মূল্য পাওয়া যাবে।

তিনি আরো বলেন, ইলিশ উৎপাদনে এবং দুধ উৎপাদনে দেশ অনেক এগিয়েছে। ডিমের ক্ষেত্রে কিছুটা ঘাটতি আছে। তবে ২০২১ সালের ম্যধ্যে এ ঘাটতি আর থাকবে না। ডিম শিল্পকে সমৃদ্ধ করতে ইতোমধ্যে ডিম আমদানি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ভিশন ২০২১ সালের মধ্যে দেশের ৮৫ ভাগ লোকের জন্য পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার নিশ্চিতের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ হিসেবে মাথাপিছু ২টি করে ডিমের চাহিদা মেটাতে সপ্তাহে প্রয়োজন ১ হাজার ৫৯৭ কোটি ৪৪ লাখ ডিম। আশা করছি এ লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত সময়ের আগেই অর্জন হবে।

মতলব উত্তরে জাতীয় প্রাণী সম্পদ সেবা সপ্তাহ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, বর্তমান সরকার দেশে চালের বিপ্লব ঘটিয়েছে। চাল উৎপাদনে দেশ এখন স্বয়ংসম্পূর্ণ। এখন পুষ্টিতে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়ার লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। ভিশন ২০২১ সালের মধ্যে দেশ পুষ্টিজাত খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোঃ ফারুক হোসেনের সভাপতিত্বে ও ভেটেরিনারী সার্জন মো. রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. সালাউদ্দিন, নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী হেকমত আলী, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার কাজী আবদুল ওয়াহিদ মো. সালেহ, ওষুধ বিক্রয় প্রতিনিধি মো. আশরাফ আলম, পল্লী চিকিৎসক মো. কামাল হোসেন, ওষুধ বিক্রেতা ফখরুল ইসলাম, পোল্ট্রি ব্যবসায়ী রাসেল হোসেন, খামারী শহীদুল ইসলাম, সেলিম খান টিটু, মাংস ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলাম ফরাযী প্রমূখ। এরপর উপস্থিত সকলে দুপুরের ভোজে মিলিত হন। এবং লাকী কুপনের ড্র অনুষ্ঠিত হয়। উল্লেখ্য, গত ২০ জানুয়ারী আনুষ্ঠানিকভাবে প্রাণী সম্পদ সেবা শুরু হয়।

Facebook Comments

Check Also

মতলব উত্তরে কৃষি অফিসের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষ উপলক্ষে ১শ’ বৃক্ষরোপণ

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে মঙ্গলবার (৭জুন) সকাল …

vv