ব্রেকিং নিউজঃ
Home / ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর / ইলিশের বাড়ি চাঁদপুরে শুরু হলো “পরিচ্ছন্নতার অঙ্গীকার”

ইলিশের বাড়ি চাঁদপুরে শুরু হলো “পরিচ্ছন্নতার অঙ্গীকার”

প্রিয় চাঁদপুর : সুস্থ ও সুন্দর দেশ গড়ার লক্ষ্যে ঢাকার পঁচিশটি (২৫) গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় পরিচছন্নতার  সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করেছে “বাংলাদেশ স্কাউটস” ও “ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ”। এইসময়ে বাংলাদেশ স্কাউটস-এর প্রায় আড়াই হাজার ছাত্র-ছাত্রী এই সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণ করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার (৩১ জানুয়ারি) চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ এবং বাকিলা ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হয়েছে “পরিচ্ছন্নতার অঙ্গীকার” ক্যাম্পেইন। হাজীগঞ্জ পৌরসভা এবং বাকিলা ইউনিয়নে প্রায় দুই হাজার (২০০০) জন মানুষকে দেশ পরিচ্ছন্ন রাখার বিষয়ে “পরিচ্ছন্নতার অঙ্গীকার” করানো হয়। এবার চাঁদপুর জেলার চাঁদপুর পৌর এলাকায় পৌর বাস টার্মিনার, কালিবাড়ি মোড় এবং পালবাজার গেট এলাকায় পরিচ্ছন্নতার কার্যক্রম শুরু হয়। এই ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রাণালয়ের সিনিয়র সচিব এবং বাংলাদেশ স্কাউটস-এর জাতীয় কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য) মো. শাহ্ কামাল এবং সভাপতিত্ব করেছেন জেলা প্রশাসক ও সভাপতি বাংলাদেশ স্কাউটস চাঁদপুর জেলা এবং রোভার মোঃ মাজেদুর রহমান খান।

সচেতনতামূলক এই ক্যাম্পেইনে প্রায় চার শতাধিক কিশোর-কিশোরী অংশগ্রহণ করে। পরিচ্ছন্নতার এই ক্যাম্পেইনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সহসভাপতি চাঁদপুর জেলা স্কাউট আলহাজ্ব মোঃ ওসমান গনী পাটওয়ারী এবং পৌর মেয়র ও সহসভাপতি চাঁদপুর জেলা স্কাউটস নাসির উদ্দীন আহমেদ। আরও উপস্থিত ছিলেন (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য) বিভাগের জাতীয় উপ কমিশনার এবং ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ হেমায়েত হোসেন, ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’-এর মুখ্য সমন্বয়ক মোহাম্মদ সালাউদ্দিন আহমেদ তারেক; সমন্বয়ক মোঃ রাকীব উদ্দীন, বাংলাদেশ স্কাউটের যুগ্ন নির্বাহী পরিচালক (প্রোগ্রাম) কে এম সাইদুজ্জামন, ডিরেক্টর (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য) গোলাম মোস্তফা, চাঁদপুর জেলা রোভার স্কাউটের নজরুল ইসলাম, চাঁদপুর উপজেলা স্কাউটের সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশ স্কাউটের কুমিল্লা অঞ্চলের পরিচালক স্বপন কুমার দাস, চাঁদপুর স্কাউটের যুগ্ন সম্পাদক মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর জেলা স্কাউট কমিশনার গোলাম সারোয়ার, চাঁদপুর জেলা রোভার স্কাউটের সম্পাদক আক্তারুজ্জান খোকা ও এই ক্যাম্পেইনের জনসংযোগ পার্টনার কনসিটো পিআর-এর পক্ষ থেকে এ. কে.এম.আশরাফ-উজ-জামান (অনিক)।

দেশের মানুষের মাঝে পরিচ্ছন্নতার অঙ্গীকার বিষয়ক সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি সুস্থ, সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ে তোলাই এই ক্যাম্পেইনের মূল উদ্দেশ্য। এর মাধ্যমে হাতের পরিচ্ছন্নতা, পরিবেশের পরিচ্ছন্নতা এবং নিরাপদ পয়ঃনিস্কাশন ব্যবস্থা ইত্যাদি সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করানো হয়। এছাড়াও দেশকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য পথচারীদেরকে তাদের প্রিয়জনের নামে অঙ্গীকার করানো হয়।

সচেতনতামূলক এই ক্যাম্পেইনে দূযোর্গ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রাণালয়ের সিনিয়র সচিব এবং বাংলাদেশ স্কাউটস-এর জাতীয় কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য) মো. শাহ্ কামাল বলেন, “বিশ্বে এখন মরণব্যাধী ভাইরাইসের সৃষ্টি হচ্ছে যার মূল কারন হচ্ছে অপরিচ্ছন্নতা। এই সকল ভাইরাস প্রতিরোধের একমাত্র উপায় হচ্ছে সকল স্থান পরিচ্ছন্ন রাখা। আমরা যখন অন্য কোন দেশে যাই তখন ঠিকই সেখানে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকি। দেশের বাইরে থেকে আমাদের দেশে আসলেই আমরা পরিবর্তন হয়ে যাই এবং যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা শুরু করে দেই যা আসলে সঠিক নয়। মুজিববর্ষকে সামনে রেখে পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়তে দেশব্যাপী পরিচ্ছন্ন গ্রাম-পরিচ্ছন্ন শহর গড়ার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। সরকারের এই উদ্যোগের সাথে আমরা বাংলাদেশ স্কাউটস-এর সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য বিভাগ অনেক আগে থেকেই পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা আশা করছি পরিচ্ছন্নতার এই উদ্যোগে “ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ” যুক্ত হওয়ায় আমাদের কাজের পরিধি আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। এই সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশের সর্বস্তরের মানুষের মাঝে পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে সচেতনতা গড়ে তুলতে পারবো এবং সরকারের এই লক্ষ্যে আমরাও অংশীদারি হবো। পরিচ্ছন্নতার এই কাজ আমাদের একার নয়, দেশের সকল স্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে তাহলেই আমাদের লক্ষ্য “পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ” আমরা গড়তে পারবো।”

সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনে “ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’’-এর মুখ্য সমন্বয়ক সালাউদ্দিন আহমেদ তারেক বলেন, ‘‘দেশকে স্বাধীন করার পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান এর যে সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন ছিলো সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সরকার যে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে তার সাথে আমরা একাত্বতা ঘোষণা করেছি। পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তিন বছর আগে থেকে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। এখন আমাদের পাশে পেয়েছি বাংলাদেশ স্কাউটসকে। তাদের সাথে নিয়ে আমরা দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে দেশের মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করবো। ।

সচেতনতামূলক এই ক্যাম্পেইনে সভাপতির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক ও সভাপতি বাংলাদেশ স্কাউটস চাঁদপুর জেলা এবং রোভার মোঃ মাজেদুর রহমান খান, “স্কাউট ভালো মানুষের মডেল হিসেবে পরিচিত। ছোট ছোট বাচ্চারা মানুষকে শিখিয়ে দেয় কি করে সুশৃংখলতার সাথে জীবন যাপন করতে হয়। চাঁদপুর জেলাতে বিভিন্ন কার্যক্রমে স্কাউটের ভুমিকা প্রশংসনীয়। আমি আশাকরি পরিচ্ছন্নতার অঙ্গীকার কার্যক্রমটি এই মুজিব বর্ষে সফলতার সাথে বাস্তবায়িত হবে। আমি ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশকে এবং বাংলাদেশ স্কাউটসকে চাঁদপুরে এর ক্যাম্পেইন উপহার দেওয়ার জন্য জানাই আন্তরিক অভিনন্দন”।

পরিচ্ছন্নতার এই ক্যাম্পেইনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সহ সভাপতি চাঁদপুর জেলা স্কাউট আলহাজ্ব মোঃ ওসমান গনী পাটওয়ারী, “ আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি সুস্থ ও সুন্দর দেশ গড়ে তুলতে চাই। ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ স্কাউটস যে উদ্যোগ গ্রহন করেছে নিশ্চয়ই তা প্রশংসনীয়। এই মুজিব বর্ষে চাঁদপুরবাসির পক্ষ থেকে দেশকে একটি সুস্থ সুন্দর এবং ‘পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ উপহার দিবো আমরা”।

পরিচ্ছন্নতার এই ক্যাম্পেইনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র ও সহ সভাপতি চাঁদপুর জেলা স্কাউটস নাসির উদ্দীন আহমেদ, “ সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী শীঘ্রই পূর্ণ হতে যাচ্ছে। এক সাগর রক্তের বিনিময়ে আমরা আমাদের এই দেশকে স্বাধীন করতে পেরেছিলাম। এতো রক্ত, এতো আত্বত্যাগের বিনিময়ে দেশকে স্বাধীন করার নজির আর কোন স্বাধীন রাষ্ট্রের নেই। জাতির পিতার সোনার বাংলা গড়ার অনেক স্বপ্ন ছিলো যা তিনি বাস্তবায়ন করে যেতে পারেননি কিন্তু তারই সুযোগ্য কন্যা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। দেশকে শুধু উন্নতি হলেই হবে না তার সাথে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন হিসেবে গড়ে তুলতে হবে এবং আমাদের শৃঙ্খল হতে হবে। বাংলাদেশ স্কাউটস এবং ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ এই অপরিচ্ছন্নতার বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে তার জন্য ধন্যবাদ। আমি আশকরি তাদের এই মহৎ উদ্যোগ আমাদের চাঁদপুর বাসি ভালোবেসে গ্রহণ করবেন এবং চাঁদপুর সব জেলার জন্য একটি মডেল জেলা শহর হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে”।

উল্লেখ্য, গত ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ তারিখ রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে “পরিচ্ছন্নতার অঙ্গীকার” ক্যাম্পেইনের যাত্রা শুরু করে বাংলাদেশ স্কাউটস ও ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ। ক্যাম্পেইনটির উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান, এমপি এবং ৪ সেপ্টেম্বর আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গণে ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম’ ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক, এমপি। সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ উপহার দিতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাসব্যাপী পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এসময় ঢাকা শহরের পঁচিশটি (২৫) গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় বাংলাদেশ স্কাউসটের সদস্যসহ প্রায় বিশ হাজার শিক্ষার্থী ও ত্রিশ হাজার পথচারীকে পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে অঙ্গীকার করানো হয়।

Facebook Comments

Check Also

ফরিদগঞ্জে মেয়র মাহফুজুল হকের জীবনুনাশক স্প্রে ও চাল বিতরণ

এস. এম ইকবাল : ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহফুজুল হক এর উদ্যেগে মেঘনা পাড় মুক্ত স্কাউট ও …

vv