ব্রেকিং নিউজঃ
Home / ধর্ম / আমাদের মধ্যে কোন সাম্প্রদায়িকতা থাকতে পারে না
জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে মাসব্যাপি ২য় মুড়ি উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ওচমান গনি পাটওয়ারী।

আমাদের মধ্যে কোন সাম্প্রদায়িকতা থাকতে পারে না

সাইদ হোসেন অপু : ‘একপাত্রে মুড়ি খাই, সাম্প্রদায়িকতার স্থান নাই’ এই শ্লোগনকে সামনে রেখে মাসব্যাপি ২য় মুড়ি উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সন্ধায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে উৎসবের আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ওচমান গনি পাটওয়ারী। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বাঙালি জাতি উৎসব প্রিয় জাতি। এই জাতির দীর্ঘ সময়ের ঐতিহ্য রয়েছে। আমরা সম্প্রতিবন্ধুন ধরে রেখে সমস্ত মানুষ একত্রে বসবাস করি। আমরা আমাদের ভাষার জন্য আন্দোলন করেছি। আমাদের মধ্যে কোন সাম্প্রদায়িকতা থাকতে পারে না। বাঙালি জাতির অধিকারের জন্য জাতির পিতা আন্দোলন করেছে।

তিনি সকল মানুষকে সাম্প্রদায়িকতা ভুলে এক করে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করেছেন। আমরা সকলে এক এবং অভিন্ন। আমাদের মধ্যে ভেদাভেদ নেই। সকল কিছু ভুলে গিয়ে আমাদের মিলে মিশে থাকতে হবে। সাম্প্রদায়িকতার স্থান, এই কথা হাজার বছর আগে থেকে বলা হয়েছে। আমরা তা ধারন করে সকলে এগিয়ে যাবে। যারা এই উৎসব চালু করেছেন তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই। এই সম্প্রতি ধরে রেখে আমাদের আরো এগিয়ে যেতে হবে।

জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে মাসব্যাপি ২য় মুড়ি উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ওচমান গনি পাটওয়ারকে শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেন উৎসব কমিটির নেতৃবৃন্দ।

তিনি আরো বলেন, ২০১৮ সাল আমাদের জন্য গুরুত্ব পূর্ণ একটি বছর। এই বছরেই নির্বাচন হবে। আমরা স্বাধীনতার পক্ষে থেকে দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। যারা সাম্প্রাদায়িকতার বীজ রোপন করতে চাইবে, তাদের বিরুদ্ধে সকলকে এক করে তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করবো।

মুড়ি উৎসব উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা বিবি দাসের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডা. পীযূষ কান্তি বড়ুয়া। মুড়ি উৎসব উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব মানিক পোদ্দারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়, তমাল ঘোষ, সম্মিলিত সাংস্কৃতি জোটের সভাপতি তপন সরকার, মুুক্তিযোদ্ধা অজিত সাহা, চাঁদপুর ড্রামার সভাপতি অ্যাড. আব্দুল্লাহ আল ফারুক, জেলা যুব মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কাউন্সিলর ফরিদা ইলিয়াস, জহিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের সচিব নির্মল পাল, বঙ্গবন্ধু আবৃতি পরিষদের সভাপতি পীযূষ কান্তি রায় চৌধুরী রোটারিয়ান গোপাল সাহা, রোটা. রফিকুল ইসলাম।

মাসব্যাপি ২য় মুড়ি উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠান শেষে তারুণ্য সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পীরা নৃত্য পরিচালনায় করেন।

Facebook Comments

Check Also

হাজীগঞ্জে রামপুর উবি’র সভাপতি আনিস মজুমদারের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ!

স্টাফ রিপোর্টার : হাজীগঞ্জের রামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আনিসুর রহমান মজুমদারের বিরুদ্ধে অর্থ …

vv