ব্রেকিং নিউজঃ
Home / এক নজরে / আপনার একটু সহযোগিতায় বেঁচে যেতে পারে মেধাবী শিক্ষার্থী মুসতাবির জীবন

আপনার একটু সহযোগিতায় বেঁচে যেতে পারে মেধাবী শিক্ষার্থী মুসতাবির জীবন

মানুষ মানুষের জন্যে,
জীবন জীবনের জন্যে,
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না?
ও বন্ধু, মানুষ মানুষের জন্যে,
জীবন জীবনের জন্যে,
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না?
ও বন্ধু, মানুষ মানুষের জন্যে।
মানুষ মানুষকে পণ্য করে,
মানুষ মানুষকে জীবিকা করে।
পুরনো ইতিহাস ফিরে এলে,
লজ্জা কি তুমি পাবে না?
ও বন্ধু, মানুষ মানুষের জন্যে,
জীবন জীবনের জন্যে,
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না?
ও বন্ধু, মানুষ মানুষের জন্যে।
বল কি তোমার ক্ষতি,
জীবনের অথৈ নদী,
পার হয় তোমাকে ধরে দূর্বল মানুষ যদি।
মানুষ যদি সে না হয় মানুষ
দানব কখনো হয় না মানুষ।
মানুষ যদি সে না হয় মানুষ
দানব কখনো হয় না মানুষ।
যদি দানব কখনো বা হয় মানুষ,
লজ্জা কি তুমি পাবে না?
ও বন্ধু, মানুষ মানুষের জন্যে,
জীবন জীবনের জন্যে,
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না?
ও বন্ধু, মানুষ মানুষের জন্যে….
মানুষ হিমালয় জয় করেছে অদম্য সাহসের কারনে। একজন মানুষের অদম্য সাহসই পারে বিশ্ব জয়ের রেকর্ড গড়তে।
এমনই একজন সাহসী ছোট্ট মানুষ যার চোখে মুখে ছিলো বিশ্ব জয়ের অদম্য ইচ্ছা। সেই সাহসী মানুষটির স্বপ্ন আজ ভেঙ্গে যাওয়ার পথে।
বন্ধুরা, যার কথা বলছিলাম তিনি হচ্ছেন সরকারি হাজী মোহাম্মদ মহসিন কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির মেধাবী শিক্ষার্থী মুসতাবির শামীম। তার ক্লাস রোল নম্বর-১৯৩, বিজ্ঞান বিভাগ । সে সরকারী মুসলিম হাই স্কুল থেকে জেএসসি’তে  জিপিএ-৫ এবং চট্টগ্রাম কলেজিয়েট হাই স্কুল থেকে এসএসসি’তে জিপিএ-৫ পেয়ে হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজে ভর্তি হন।
বাবা ইমতিয়াজ শামীম আরিফ ও মা-সারমিন আক্তার। বাবা ইমতিয়াজ শামীম আরিফ বেসরকারী স্বেচ্ছায়সেবী সংস্থার ‘কারিতাস’ এর একজন কর্মকর্তা ও মা গৃহিনী। তিনি পরিবারের সাথে বর্তমানে আগ্রাবাদের বেপারীপাড়ায় বসবাস করছেন। তাদের পৈত্রিক নিবাসও চট্টগ্রাম শহরের সারসন রোডে।  দুই ভাইয়ের মধ্যে মুসতাবির শামীম বড়। তার ছোট ভাই চট্টগ্রামের একটি বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়ে। মা-বাবা ও দুই ভাই নিয়ে তার পরিবারের সদস্য সংখ্যা চার। অনেক সুখেই কাটছিল তাদের জীবন। কিন্তু হঠাৎ কোথায় থেকে কি হয়ে গেল, তছনছ হয়ে গেল মুসতাবির শামীমের জীবন ও পরিবারে শান্তিরনীড়। গেল ফেব্রুয়ারী মাসের দিকে মুসতাবির শামীম ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়েন। অনেক পরীক্ষা নিরীক্ষায়ও তার সঠিক রোগ নির্ণয় করা যায়নি ।
মাত্র ১৯ বছরের মুসতাবির শামীম Helicobacter pylori  – রোগে আক্রান্ত হয়ে বহু চিকিৎসার ও চেষ্টায় মুক্ত হতে পারলেও কি এক অজানা রোগ বাসা বেঁধেছে তার শরীরে। সে বর্তমানে লিভার জটিলতায় ভোগছে ।  এতে আজ তার স্বপ্ন ভঙ্গ হওয়ার পথে। আপনার দেয়া একটু  সহায়তায় হয়তো বেঁচে যেতে পারে মেধাবী শিক্ষার্থী মুসতাবির শামীম’র জীবন।
মুসতাবির শামীম বর্তমানে চট্টগ্রামে ‘ডা. শামীম বকস্’ (মেডিসিন, পরিপাকতন্ত্র ও লিভার বিশেষজ্ঞ) এর অধীনে চিকিৎসাধীন আছেন। তার পরিবার চিকিৎসার জন্য এ যাবৎ বহু টাকা ব্যয় করেছেন। এমতবস্থায় তার পরিবারে পক্ষে অজানা রোগের পরিক্ষা নিরীক্ষার খরচ বহন করা আর সম্ভব হচ্ছে না। তাই সে সমাজের বৃত্তবানদের নিকট চিকিৎসার খরচের জন্য সাহায্য চেয়ে হাত বাড়িয়েছেন। আপনার দেয়া একটু সহায়তায় বেঁচে যেতে পারে মেধাবী শিক্ষার্থী মুসতাবির শামীমের জীবন।
কেউ সাহায্য পাঠাতে চাইলে নিম্নোক্ত নম্বরে পাঠাতে পারেন।
বিকাশঃ ০১৬১২৯৮৫২৬৭ নগদঃ ০১৬২২৯৭৮৭০০ রকেটঃ ০১৭১২৯৮৫২৬৭
ব্যাংক একাউন্ট নম্বরঃ শারমিন আক্তার, হিসাব নং- ৪১০১-৬৯৫৪৫১-৩০০ (এবি ব্যাংক, আগ্রাবাদ শাখা, চট্টগ্রাম)।
কেউ যোগাযোগ করতে চাইলে কথা বলতে পারেন- ০১৭১২৯৮৫২৬৭ নম্বরে।
Facebook Comments

Check Also

চাঁদপুর কণ্ঠের ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন

নিজস্ব প্রতিনিধি : ‘বস্তুনিষ্ঠতাই আমাদের মূলনীতি, পাঠকপ্রিয়তাই আমাদের মূলধন’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে ২৭ বছর আগে …

Shares
vv